ঢাকা ১০:২৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কোরআন শরিফ অবমাননা করায় মানববন্ধন রাঙ্গুনিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনার চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দিঘলিয়া উপজেলার প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিলেন। চট্টগ্রামে সাতকানিয়ায় গভীর রাতে কৃষি জমির মাটি কাটার দায়ে দুইজনকে কারাদণ্ড … নড়াইলে মসজিদ ইমামের স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার, ভাড়াটিয়া পলাতক চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেছেন: প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা প্রচণ্ড দাবদাহে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের স্বস্তির উদ্যোগ। বেলখাইন স্পোটিং ক্লাবের অলনাইট অলিম্পিক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ সম্পন্ন নিয়ামতপুরে এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার, স্ত্রীর ওপর অভিমানে প্রাণ গেল কৃষকের “বেনজীরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চেয়ে দুদকে ব্যারিস্টার সুমন”

নির্বাচনে নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত যেসব যানবাহন

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধিকাংশ ক্ষেত্রে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলেও বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে শিথিল করার কথা বলা হয়েছে।

নির্বাচনের আগের দিন শনিবার মধ্যরাত থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় বেশ কিছু যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বহাল থাকবে।

যেসব ক্ষেত্রে যানবাহন ও নৌযান চলবে

  • জরুরি সেবা কাজে নিয়োজিত যানবাহন, ওষুধ, স্বাস্থ্য-চিকিৎসা বা অনুরূপ কাজে ব্যবহৃত দ্রব্যাদি এবং সংবাদপত্র বহনকারী সব ধরনের যানবাহন চলাচল করবে।
  • আত্মীয়-স্বজনের জন্য বিমানবন্দরে যাওয়া, বিমানবন্দর থেকে যাত্রী বা আত্মীয়-স্বজনসহ নিজ বাসস্থান যাওয়া-আসা অথবা আত্মীয়-স্বজনের বাসায় ফিরে যাওয়ার জন্য ব্যবহৃত যানবাহন (টিকিট বা অনুরূপ প্রমাণ সাপেক্ষে) এবং দূরপাল্লার যাত্রী বহনকারী অথবা দূরপাল্লার যাত্রী হিসেবে স্থানীয় পর্যায়ে যাতায়াতের জন্য যেকোনো পরিবহন চলবে।
  • নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর জন্য একটি, প্রার্থীর নির্বাচনি এজেন্টের (যথাযথ নিয়োগপত্র/ পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে) জন্য একটি গাড়ি চলতে পারবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন ও স্টিকার প্রদর্শন সাপেক্ষে)।
  • সাংবাদিক, পর্যবেক্ষক অথবা জরুরি কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল চলবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন সাপেক্ষে)।
  • নির্বাচন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা/কর্মচারীর মোটরসাইকেল চলবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন সাপেক্ষে)।
  • উল্লিখিত যানবাহনের অনুরূপ জরুরি কাজে ব্যবহৃত নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রেও অনুমতি বা নিষেধাজ্ঞা বহির্ভূত থাকবে।
  • নির্বাচনকালে বিমান ও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

এ ছাড়া কূটনৈতিক/দূতাবাস/হাইকমিশনে কর্মরত বিদেশি নাগরিকদের যাতায়াতের জন্য এবং দূতাবাস বা হাইকমিশনে কর্মরত স্থানীয় স্টাফদের কূটনৈতিক জোনের বাইরে যাতায়াতের জন্য সীমিত সংখ্যক গাড়ি চলবে। তবে কূটনৈতিক এলাকায় কোনো বহিরাগত যানবাহন প্রবেশের ক্ষেত্রে পুলিশ কমিশনার বা সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্তৃপক্ষে অনুমতি নিতে হবে।

যেসব যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা :  নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার রাত ১২টা থেকেই সারা দেশে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে আগামী ১ জানুয়ারি মাঝরাত পর্যন্ত। তবে ইসির দেওয়া স্টিকার নিয়ে সাংবাদিকরা মোটরসাইকেল চালাতে পারবেন।

অন্যদিকে, সব ধরনের যন্ত্রচালিত পরিবহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা শুরু হবে আজ শনিবার রাত ১২টা থেকে। চলবে ৩০ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত।

হেলিকপ্টার চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা :  নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হেলিকপ্টার চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  শুক্রবার রাতে ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান স্বাক্ষরিত একটি চিঠি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে দিয়ে এ কথা জানানো হয়। ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর মধ্যরাত ১২টা পর্যান্ত নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই চিঠিতে।

তবে জরুরি রোগীর যাতায়াত বা হাসপাতালে প্রেরণ, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবা এবং ওষুধ ও জরুরি পণ্য পরিবহন এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

গণমাধ্যমকর্মীরা মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারবেন :  নির্বাচন কমিশনের স্টিকার ব্যবহার করে গণমাধ্যমকর্মীরা ভোটের সময় মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারবেন।  নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ শাখার সহকারী পরিচালক আসাদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সহকারী পরিচালক বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন থেকে গণমাধ্যমকর্মী এবং সংশ্লিষ্ট কাজে যুক্তদের যে স্টিকার দেওয়া হয়েছে, সেই স্টিকার ব্যবহার করেই মোটরসাইকেল ব্যবহার করা যাবে।’

এর আগে নির্বাচন কমিশন এক ঘোষণায় জানিয়েছিল, একাদশ নির্বাচনকে ঘিরে ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ১ জানুয়ারি পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ থাকছে। এমনকি সাংবাদিকরাও বিশেষ কোনো ছাড় পাবেন না।

উল্লেখ্য, এবারের নির্বাচনে সারা দেশে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এক হাজার আটশর বেশি প্রার্থী। এর মধ্যে অর্ধ শতাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন, বাকিরা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের। এবার ৩০০ আসনে ভোটার ১০ কোটি ৪২ লাখ ৩৮ হাজার।

নির্বাচনে ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোটকেন্দ্র ও দুই লাখ ছয় হাজার ৪৭৭টি ভোটকক্ষ রয়েছে। একজন প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে গাইবান্ধা-৩ আসনে ভোট স্থগিত করে পুনঃতফসিল দেওয়া হয়েছে। এবারই প্রথম সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হচ্ছে। ছয়টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।

Tag :

জনপ্রিয় সংবাদ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কোরআন শরিফ অবমাননা করায় মানববন্ধন

নির্বাচনে নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত যেসব যানবাহন

আপডেট টাইম ০৫:৫৯:১০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধিকাংশ ক্ষেত্রে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলেও বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে শিথিল করার কথা বলা হয়েছে।

নির্বাচনের আগের দিন শনিবার মধ্যরাত থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় বেশ কিছু যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বহাল থাকবে।

যেসব ক্ষেত্রে যানবাহন ও নৌযান চলবে

  • জরুরি সেবা কাজে নিয়োজিত যানবাহন, ওষুধ, স্বাস্থ্য-চিকিৎসা বা অনুরূপ কাজে ব্যবহৃত দ্রব্যাদি এবং সংবাদপত্র বহনকারী সব ধরনের যানবাহন চলাচল করবে।
  • আত্মীয়-স্বজনের জন্য বিমানবন্দরে যাওয়া, বিমানবন্দর থেকে যাত্রী বা আত্মীয়-স্বজনসহ নিজ বাসস্থান যাওয়া-আসা অথবা আত্মীয়-স্বজনের বাসায় ফিরে যাওয়ার জন্য ব্যবহৃত যানবাহন (টিকিট বা অনুরূপ প্রমাণ সাপেক্ষে) এবং দূরপাল্লার যাত্রী বহনকারী অথবা দূরপাল্লার যাত্রী হিসেবে স্থানীয় পর্যায়ে যাতায়াতের জন্য যেকোনো পরিবহন চলবে।
  • নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর জন্য একটি, প্রার্থীর নির্বাচনি এজেন্টের (যথাযথ নিয়োগপত্র/ পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে) জন্য একটি গাড়ি চলতে পারবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন ও স্টিকার প্রদর্শন সাপেক্ষে)।
  • সাংবাদিক, পর্যবেক্ষক অথবা জরুরি কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল চলবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন সাপেক্ষে)।
  • নির্বাচন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা/কর্মচারীর মোটরসাইকেল চলবে (রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমোদন সাপেক্ষে)।
  • উল্লিখিত যানবাহনের অনুরূপ জরুরি কাজে ব্যবহৃত নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রেও অনুমতি বা নিষেধাজ্ঞা বহির্ভূত থাকবে।
  • নির্বাচনকালে বিমান ও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

এ ছাড়া কূটনৈতিক/দূতাবাস/হাইকমিশনে কর্মরত বিদেশি নাগরিকদের যাতায়াতের জন্য এবং দূতাবাস বা হাইকমিশনে কর্মরত স্থানীয় স্টাফদের কূটনৈতিক জোনের বাইরে যাতায়াতের জন্য সীমিত সংখ্যক গাড়ি চলবে। তবে কূটনৈতিক এলাকায় কোনো বহিরাগত যানবাহন প্রবেশের ক্ষেত্রে পুলিশ কমিশনার বা সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্তৃপক্ষে অনুমতি নিতে হবে।

যেসব যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা :  নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার রাত ১২টা থেকেই সারা দেশে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে আগামী ১ জানুয়ারি মাঝরাত পর্যন্ত। তবে ইসির দেওয়া স্টিকার নিয়ে সাংবাদিকরা মোটরসাইকেল চালাতে পারবেন।

অন্যদিকে, সব ধরনের যন্ত্রচালিত পরিবহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা শুরু হবে আজ শনিবার রাত ১২টা থেকে। চলবে ৩০ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত।

হেলিকপ্টার চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা :  নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হেলিকপ্টার চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  শুক্রবার রাতে ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান স্বাক্ষরিত একটি চিঠি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে দিয়ে এ কথা জানানো হয়। ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত ১২টা থেকে ৩০ ডিসেম্বর মধ্যরাত ১২টা পর্যান্ত নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই চিঠিতে।

তবে জরুরি রোগীর যাতায়াত বা হাসপাতালে প্রেরণ, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবা এবং ওষুধ ও জরুরি পণ্য পরিবহন এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

গণমাধ্যমকর্মীরা মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারবেন :  নির্বাচন কমিশনের স্টিকার ব্যবহার করে গণমাধ্যমকর্মীরা ভোটের সময় মোটরসাইকেল ব্যবহার করতে পারবেন।  নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ শাখার সহকারী পরিচালক আসাদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সহকারী পরিচালক বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন থেকে গণমাধ্যমকর্মী এবং সংশ্লিষ্ট কাজে যুক্তদের যে স্টিকার দেওয়া হয়েছে, সেই স্টিকার ব্যবহার করেই মোটরসাইকেল ব্যবহার করা যাবে।’

এর আগে নির্বাচন কমিশন এক ঘোষণায় জানিয়েছিল, একাদশ নির্বাচনকে ঘিরে ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ১ জানুয়ারি পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ থাকছে। এমনকি সাংবাদিকরাও বিশেষ কোনো ছাড় পাবেন না।

উল্লেখ্য, এবারের নির্বাচনে সারা দেশে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এক হাজার আটশর বেশি প্রার্থী। এর মধ্যে অর্ধ শতাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন, বাকিরা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের। এবার ৩০০ আসনে ভোটার ১০ কোটি ৪২ লাখ ৩৮ হাজার।

নির্বাচনে ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোটকেন্দ্র ও দুই লাখ ছয় হাজার ৪৭৭টি ভোটকক্ষ রয়েছে। একজন প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে গাইবান্ধা-৩ আসনে ভোট স্থগিত করে পুনঃতফসিল দেওয়া হয়েছে। এবারই প্রথম সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হচ্ছে। ছয়টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।