ঢাকা ০১:০৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গজারিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান দুই প্রতিষ্ঠান কে অর্থদন্ড টেকপাড়া ও ইয়াকুব নগরের অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্হদের মাঝে নগর অর্থ ও বস্ত্র বিতরণ বাস ও ফুটওভার ব্রিজ মুখোমুখি সংঘর্ষ “২৬শে এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে শার্ক ট্যাংক বাংলাদেশ” –মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর এলাকা হতে ৫৩ কেজি গাঁজাসহ ০৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০; মাদক বহনে ব্যবহৃত পিকআপ জব্দ। “মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন” ইন্দুরকানীতে দিনব্যাপী পারিবারিক পুষ্টি বাগান ও বস্তায় আদা চাষ বিষয়ক প্রশিক্ষণ চট্টগ্রামে সড়ক অবরোধ করে চুয়েট শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন … লালমনিরহাটে বৃষ্টির জন‍্য বিশেষ নামাজ আদায় মিছিল ও শোডাউন করায় মতলব উত্তর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে মানিক দর্জিকে শোকজ

মতলব উত্তরে ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলাম পাটোয়ারীর ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে ইউনিয়নের সাহেববাজারে এ ঘটনা ঘটে। নুরুল ইসলামকে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ওই ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী আজমল হোসেন চৌধুরীর লোকজন এই হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর লোকজন। এতে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ৮ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, রোববার সকালে নুরুল ইসলাম তার প্রতীক আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা করতে সাহেববাজার এলাকায় গেলে হঠাৎ নৌকা প্রার্থীর সমর্থিত কর্মীরা দেশীয় অস্ত্রসহ অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় নুরুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম নবী বাদল, তাদের কর্মী মুজাম্মেল হকসহ কয়েকজন আহত হন।

সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম নবী বাদল বলেন, আমরা সাহেববাজারে ব্রিজের ঢালে রাস্তার পাশে নির্বাচনী প্রচারণা করছিলাম। হঠাৎ করে আজমল হোসেন চৌধুরীর লোকজন এসে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা করে। আমি ধাক্কা খেয়ে রাস্তার নিচে পড়ে যাই। কিন্তু চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলামকে তারা মেরে রক্তাক্ত করে দেয়। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী বলেন, শনিবার ওই এলাকায় আমার কর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণা করছে। তারা আজ এসে এলাকা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার জন্য মহড়া দেয় এবং আমার লোকজনকে গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তারা চড়াও হয় আমার কর্মীদের ওপর। এতে আমার দুই-তিনজন কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেব।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কামাল বলেন, আমরা সংঘর্ষের খবর শুনেছি। তবে এখনো কারও কাছ থেকে কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Tag :

জনপ্রিয় সংবাদ

গজারিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান দুই প্রতিষ্ঠান কে অর্থদন্ড

মতলব উত্তরে ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা

আপডেট টাইম ০৭:১৭:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ নভেম্বর ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলাম পাটোয়ারীর ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে ইউনিয়নের সাহেববাজারে এ ঘটনা ঘটে। নুরুল ইসলামকে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ওই ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী আজমল হোসেন চৌধুরীর লোকজন এই হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর লোকজন। এতে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ৮ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, রোববার সকালে নুরুল ইসলাম তার প্রতীক আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা করতে সাহেববাজার এলাকায় গেলে হঠাৎ নৌকা প্রার্থীর সমর্থিত কর্মীরা দেশীয় অস্ত্রসহ অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় নুরুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম নবী বাদল, তাদের কর্মী মুজাম্মেল হকসহ কয়েকজন আহত হন।

সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম নবী বাদল বলেন, আমরা সাহেববাজারে ব্রিজের ঢালে রাস্তার পাশে নির্বাচনী প্রচারণা করছিলাম। হঠাৎ করে আজমল হোসেন চৌধুরীর লোকজন এসে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা করে। আমি ধাক্কা খেয়ে রাস্তার নিচে পড়ে যাই। কিন্তু চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল ইসলামকে তারা মেরে রক্তাক্ত করে দেয়। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী বলেন, শনিবার ওই এলাকায় আমার কর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণা করছে। তারা আজ এসে এলাকা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার জন্য মহড়া দেয় এবং আমার লোকজনকে গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তারা চড়াও হয় আমার কর্মীদের ওপর। এতে আমার দুই-তিনজন কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেব।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কামাল বলেন, আমরা সংঘর্ষের খবর শুনেছি। তবে এখনো কারও কাছ থেকে কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।