ঢাকা ১০:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কোরআন শরিফ অবমাননা করায় মানববন্ধন রাঙ্গুনিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনার চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দিঘলিয়া উপজেলার প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিলেন। চট্টগ্রামে সাতকানিয়ায় গভীর রাতে কৃষি জমির মাটি কাটার দায়ে দুইজনকে কারাদণ্ড … নড়াইলে মসজিদ ইমামের স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার, ভাড়াটিয়া পলাতক চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেছেন: প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা প্রচণ্ড দাবদাহে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের স্বস্তির উদ্যোগ। বেলখাইন স্পোটিং ক্লাবের অলনাইট অলিম্পিক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ সম্পন্ন নিয়ামতপুরে এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার, স্ত্রীর ওপর অভিমানে প্রাণ গেল কৃষকের “বেনজীরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চেয়ে দুদকে ব্যারিস্টার সুমন”

মানুষ আ.লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না: এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘প্রতিদিন কত মানুষ মারা যায়, খুন হয়, গুম হয়, তার হিসাব নেই। সমাজব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ক্ষমতার পালাবদল হয়, কিন্তু মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না। মানুষ শান্তি চায়, জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সরকারি জুবিলি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ রোববার দুপুরে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

সমাবেশে এরশাদ সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির বর্তমান সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে দলের প্রার্থী ঘোষণা করেন।

নিজের বয়স হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমি সারা জীবন মানুষের জন্য রাজনীতি করেছি। এখন আমার বয়স হয়েছে, কিন্তু মানুষ দেখলে আমার বয়স কমে যায়। প্রখর রোদের মধ্যে আপনারা ছুটে এসেছেন। মিসবাহ বলেছিল, সম্মেলনে ৫০ হাজার লোক হবে। এখন দেখছি, মানুষ আরও বেশি হয়েছে। আমি নিজের জন্য কিছু চাই না। মানুষের মুক্তি চাই, মানুষের অধিকার চাই।’

আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমদের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘তোফায়েল আহমদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভবিষ্যতে ক্ষমতায় না যেতে পারলে দেশে এক লাখ লোক মারা যাবে। আপনারা জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দিন। আমি বলছি, একজন লোকও মারা যাবে না। আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না। আমরা পরিবর্তন চাই। এই পরিবর্তন জাতীয় পার্টি আনতে পারে।’

জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর সভাপতিত্বে সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের মহাসচিব এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। এ ছাড়া দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, সাংসদ ইয়াহহিয়া চৌধুরী, দলের নেতা ও সাবেক সাংসদ আবদুল মজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে বলে সমাবেশে ঘোষণা দেন এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। তিনি বলেন, ‘কঠিন সময় চলছে, ইচ্ছে করলেই সবকিছু বলা যাবে না। সরকার আসে সরকার যায়, মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। লাঙলে ভোট দিন, আমরা শান্তি দেব, শান্তির নীড় উপহার দেব।’

Tag :

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কোরআন শরিফ অবমাননা করায় মানববন্ধন

মানুষ আ.লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না: এরশাদ

আপডেট টাইম ০৯:৫৮:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘প্রতিদিন কত মানুষ মারা যায়, খুন হয়, গুম হয়, তার হিসাব নেই। সমাজব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ক্ষমতার পালাবদল হয়, কিন্তু মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না। মানুষ শান্তি চায়, জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সরকারি জুবিলি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ রোববার দুপুরে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

সমাবেশে এরশাদ সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির বর্তমান সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে দলের প্রার্থী ঘোষণা করেন।

নিজের বয়স হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমি সারা জীবন মানুষের জন্য রাজনীতি করেছি। এখন আমার বয়স হয়েছে, কিন্তু মানুষ দেখলে আমার বয়স কমে যায়। প্রখর রোদের মধ্যে আপনারা ছুটে এসেছেন। মিসবাহ বলেছিল, সম্মেলনে ৫০ হাজার লোক হবে। এখন দেখছি, মানুষ আরও বেশি হয়েছে। আমি নিজের জন্য কিছু চাই না। মানুষের মুক্তি চাই, মানুষের অধিকার চাই।’

আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমদের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘তোফায়েল আহমদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভবিষ্যতে ক্ষমতায় না যেতে পারলে দেশে এক লাখ লোক মারা যাবে। আপনারা জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দিন। আমি বলছি, একজন লোকও মারা যাবে না। আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না। আমরা পরিবর্তন চাই। এই পরিবর্তন জাতীয় পার্টি আনতে পারে।’

জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর সভাপতিত্বে সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের মহাসচিব এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। এ ছাড়া দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, সাংসদ ইয়াহহিয়া চৌধুরী, দলের নেতা ও সাবেক সাংসদ আবদুল মজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে বলে সমাবেশে ঘোষণা দেন এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। তিনি বলেন, ‘কঠিন সময় চলছে, ইচ্ছে করলেই সবকিছু বলা যাবে না। সরকার আসে সরকার যায়, মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। লাঙলে ভোট দিন, আমরা শান্তি দেব, শান্তির নীড় উপহার দেব।’