ঢাকা ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ঈদের দিন আকস্মিক হাসপাতাল পরিদর্শনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ‘২৪ ঘন্টা লক্ষ্যমাত্রার অনেক আগেই কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে সক্ষম হবোঃ মেয়র তাপস ঈদে নিরাপত্তা হুমকি নেই: সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায় সিলেট সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাণীশংকৈল উপজেলার মানবিক ইউএনও রকিবুল হাসান পবিত্র ঈদুল আযহার পবিত্র শুভেচ্ছা জানালেন,বাকেরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাজিব আহম্মেদ তালুকদার। দৈনিক মাতৃভূমির খবর পত্রিকা থেকে সাংবাদিক মোঃ শাহ আলম বহিষ্কার । অগ্রিম ঈদউল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক অনুমোদনহীন পশুর হাট বসানোয় ১৬ ব্যবসায়ীকে ঢাদসিক’র পৌনে ১ লাখ টাকা জরিমানা “মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ঢাকা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট, পোস্ট বাজেট ২০২৪-২০২৫”

মানুষ আ.লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না: এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘প্রতিদিন কত মানুষ মারা যায়, খুন হয়, গুম হয়, তার হিসাব নেই। সমাজব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ক্ষমতার পালাবদল হয়, কিন্তু মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না। মানুষ শান্তি চায়, জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সরকারি জুবিলি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ রোববার দুপুরে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

সমাবেশে এরশাদ সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির বর্তমান সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে দলের প্রার্থী ঘোষণা করেন।

নিজের বয়স হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমি সারা জীবন মানুষের জন্য রাজনীতি করেছি। এখন আমার বয়স হয়েছে, কিন্তু মানুষ দেখলে আমার বয়স কমে যায়। প্রখর রোদের মধ্যে আপনারা ছুটে এসেছেন। মিসবাহ বলেছিল, সম্মেলনে ৫০ হাজার লোক হবে। এখন দেখছি, মানুষ আরও বেশি হয়েছে। আমি নিজের জন্য কিছু চাই না। মানুষের মুক্তি চাই, মানুষের অধিকার চাই।’

আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমদের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘তোফায়েল আহমদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভবিষ্যতে ক্ষমতায় না যেতে পারলে দেশে এক লাখ লোক মারা যাবে। আপনারা জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দিন। আমি বলছি, একজন লোকও মারা যাবে না। আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না। আমরা পরিবর্তন চাই। এই পরিবর্তন জাতীয় পার্টি আনতে পারে।’

জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর সভাপতিত্বে সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের মহাসচিব এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। এ ছাড়া দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, সাংসদ ইয়াহহিয়া চৌধুরী, দলের নেতা ও সাবেক সাংসদ আবদুল মজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে বলে সমাবেশে ঘোষণা দেন এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। তিনি বলেন, ‘কঠিন সময় চলছে, ইচ্ছে করলেই সবকিছু বলা যাবে না। সরকার আসে সরকার যায়, মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। লাঙলে ভোট দিন, আমরা শান্তি দেব, শান্তির নীড় উপহার দেব।’

Tag :

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ঈদের দিন আকস্মিক হাসপাতাল পরিদর্শনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মানুষ আ.লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না: এরশাদ

আপডেট টাইম ০৯:৫৮:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘প্রতিদিন কত মানুষ মারা যায়, খুন হয়, গুম হয়, তার হিসাব নেই। সমাজব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ক্ষমতার পালাবদল হয়, কিন্তু মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে আর ক্ষমতার পালাবদল চায় না। মানুষ শান্তি চায়, জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।’

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সরকারি জুবিলি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ রোববার দুপুরে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

সমাবেশে এরশাদ সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির বর্তমান সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে দলের প্রার্থী ঘোষণা করেন।

নিজের বয়স হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমি সারা জীবন মানুষের জন্য রাজনীতি করেছি। এখন আমার বয়স হয়েছে, কিন্তু মানুষ দেখলে আমার বয়স কমে যায়। প্রখর রোদের মধ্যে আপনারা ছুটে এসেছেন। মিসবাহ বলেছিল, সম্মেলনে ৫০ হাজার লোক হবে। এখন দেখছি, মানুষ আরও বেশি হয়েছে। আমি নিজের জন্য কিছু চাই না। মানুষের মুক্তি চাই, মানুষের অধিকার চাই।’

আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমদের কথা উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘তোফায়েল আহমদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ ভবিষ্যতে ক্ষমতায় না যেতে পারলে দেশে এক লাখ লোক মারা যাবে। আপনারা জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দিন। আমি বলছি, একজন লোকও মারা যাবে না। আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না। আমরা পরিবর্তন চাই। এই পরিবর্তন জাতীয় পার্টি আনতে পারে।’

জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর সভাপতিত্বে সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের মহাসচিব এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। এ ছাড়া দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, সাংসদ ইয়াহহিয়া চৌধুরী, দলের নেতা ও সাবেক সাংসদ আবদুল মজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে বলে সমাবেশে ঘোষণা দেন এ বি এম রহুল আমিন হাওলাদার। তিনি বলেন, ‘কঠিন সময় চলছে, ইচ্ছে করলেই সবকিছু বলা যাবে না। সরকার আসে সরকার যায়, মানুষের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হয় না। লাঙলে ভোট দিন, আমরা শান্তি দেব, শান্তির নীড় উপহার দেব।’