ঢাকা ১০:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব গাড়ি চলাচল বন্ধ

ফাইল ছবি

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক :  ভোটের আগের রাত ২৯ ডিসেম্বর রাত ১২টা থেকে ২৪ ঘণ্টা সারাদেশে সব ধরনের যান্ত্রিক যান চলাচল বন্ধ থাকবে। মোটর সাইকেল চলতে পারবে না ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত চারদিন। নির্বাচন উপলক্ষে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। গতকাল রোববার এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। পরিপত্রে বলা হয়েছে, বেবি ট্যাক্সি, ট্যাক্সি ক্যাব, অটোরিকশা, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, ট্রাক, বাস, টেম্পু, ইজিবাইকসহ স্থানীয়ভাবে নির্মিত যান্ত্রিক যান ২৯ ডিসেম্বর রাত ১২টা থেকে ২৪ ঘণ্টা চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি সাপেক্ষে প্রার্থী ও তার নির্বাচনী এজেন্ট গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন।

নির্বাচন কমিশনের অনুমতি সাপেক্ষে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকরাও নির্বাচন কমিশনের নির্দিষ্ট স্টিকারযুক্ত গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন। একই সুযোগ থাকছে ভোটের খবর সংগ্রহের দায়িত্বে থাকা সাংবাদিকদেরও।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, গ্যাস, বিদ্যুৎ ও ওয়াসার মতো জরুরি সেবা সংস্থার যান চলাচলে কোনো বাধা নেই। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, নির্বাচনী পরিদর্শক, ভোটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

ভোটের দিন ২৪ ঘণ্টা সব গাড়ি চলাচল বন্ধ

আপডেট টাইম ০৮:৩০:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক :  ভোটের আগের রাত ২৯ ডিসেম্বর রাত ১২টা থেকে ২৪ ঘণ্টা সারাদেশে সব ধরনের যান্ত্রিক যান চলাচল বন্ধ থাকবে। মোটর সাইকেল চলতে পারবে না ২৮ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত চারদিন। নির্বাচন উপলক্ষে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। গতকাল রোববার এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। পরিপত্রে বলা হয়েছে, বেবি ট্যাক্সি, ট্যাক্সি ক্যাব, অটোরিকশা, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, ট্রাক, বাস, টেম্পু, ইজিবাইকসহ স্থানীয়ভাবে নির্মিত যান্ত্রিক যান ২৯ ডিসেম্বর রাত ১২টা থেকে ২৪ ঘণ্টা চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি সাপেক্ষে প্রার্থী ও তার নির্বাচনী এজেন্ট গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন।

নির্বাচন কমিশনের অনুমতি সাপেক্ষে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকরাও নির্বাচন কমিশনের নির্দিষ্ট স্টিকারযুক্ত গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন। একই সুযোগ থাকছে ভোটের খবর সংগ্রহের দায়িত্বে থাকা সাংবাদিকদেরও।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, গ্যাস, বিদ্যুৎ ও ওয়াসার মতো জরুরি সেবা সংস্থার যান চলাচলে কোনো বাধা নেই। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, নির্বাচনী পরিদর্শক, ভোটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন।