ঢাকা ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ঝড়ে লন্ডভন্ড নড়াইলের একটি মাদ্রাসা কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মজয়ন্তী উদযাপন কুসিক নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন যারা সিলেটের বন‍্যার্তদের পাশে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানা আকস্মিক পরিদর্শনে পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার গজারিয়ায় মাদক, সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ,প্রতিরোধে বিট পুলিশের সভা অনুষ্ঠিত। নওগাঁর নিয়ামতপুরে শ্রীমন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুমিল্লায় ট্রেনের চাকা লাইনচ্যুত হয়ে তিন রুটে চলাচল বন্ধ। সরে দাঁড়ালো বিদ্রোহী,সাতকানিয়ার এওচিয়ায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আবু ছালেহ

২০ বছরের যাত্রা শেষ হলো ইয়াহু মেসেঞ্জারের

এ বছরের ১৭ জুলাই তারিখটা অনেকের জন্য স্মৃতিরোমন্থনের একটি দিন। কারণ, এদিন বন্ধ হয়ে গেল ইয়াহু মেসেঞ্জার। একসময়ের জনপ্রিয় এ চ্যাটিং সেবার সঙ্গে অনেকের স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। তাঁদের সে স্মৃতিকথাই টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপে জানাচ্ছেন অনেকেই। ইয়াহু কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা ১৭ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে ইয়াহু মেসেঞ্জার বন্ধ করে দিয়েছে। ইয়াহু মেসেঞ্জার ব্যবহারের স্মৃতি অনেকেই তুলে ধরছেন বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোয়।

১৯৯৮ সালে যাত্রা শুরু করেছিল ইয়াহুর মেসেঞ্জার সেবা। ওই সময়কার কিশোর-তরুণদের কাছে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল মেসেঞ্জার। গ্রুপ বা দল আকারের চ্যাট রুমে আলাপ করার বিষয়টি অনেকেই উপভোগ করেছেন।

তবে এখনকার যুগের হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাটের সঙ্গে জনপ্রিয়তায় পেরে ওঠেনি ইয়াহু মেসেঞ্জার।

এটি সর্বশেষ যুক্তরাষ্ট্রের টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ভেরিজনের ওথ কোম্পানির অধীনে ছিল। তারা বলছে, এখন যাঁদের ইয়াহুতে চ্যাটের বিভিন্ন হিস্টরি রয়েছে, তা আগামী ছয় মাস পর্যন্ত ডাউনলোড করার সুযোগ থাকবে। এরপর ইয়াহু মেসেঞ্জার আর ওয়েবে থাকবে না।

ইয়াহু মেসেঞ্জারের ব্লগ পোস্টে বলা হয়, ‘দারুণ এক যাত্রা ছিল ইয়াহু মেসেঞ্জারের। ২০ বছরের যাত্রায় এ সেবা কোটি কোটি মানুষ উপভোগ করেছেন। লাখো মানুষের জীবন বদলে দিয়েছিল এটি। লাখো মানুষ চিঠি পাঠিয়েছেন, ছবি পাঠিয়েছেন।

আরেক বিবৃতিতে ইয়াহু কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা আরেকটি মেসেজিং অ্যাপ তৈরি করছে, যার নাম স্কুইরেল। এটি ইয়াহু মেসেঞ্জারের বদলি হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ঝড়ে লন্ডভন্ড নড়াইলের একটি মাদ্রাসা

২০ বছরের যাত্রা শেষ হলো ইয়াহু মেসেঞ্জারের

আপডেট টাইম ১১:০৪:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮

এ বছরের ১৭ জুলাই তারিখটা অনেকের জন্য স্মৃতিরোমন্থনের একটি দিন। কারণ, এদিন বন্ধ হয়ে গেল ইয়াহু মেসেঞ্জার। একসময়ের জনপ্রিয় এ চ্যাটিং সেবার সঙ্গে অনেকের স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। তাঁদের সে স্মৃতিকথাই টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপে জানাচ্ছেন অনেকেই। ইয়াহু কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা ১৭ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে ইয়াহু মেসেঞ্জার বন্ধ করে দিয়েছে। ইয়াহু মেসেঞ্জার ব্যবহারের স্মৃতি অনেকেই তুলে ধরছেন বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোয়।

১৯৯৮ সালে যাত্রা শুরু করেছিল ইয়াহুর মেসেঞ্জার সেবা। ওই সময়কার কিশোর-তরুণদের কাছে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল মেসেঞ্জার। গ্রুপ বা দল আকারের চ্যাট রুমে আলাপ করার বিষয়টি অনেকেই উপভোগ করেছেন।

তবে এখনকার যুগের হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাটের সঙ্গে জনপ্রিয়তায় পেরে ওঠেনি ইয়াহু মেসেঞ্জার।

এটি সর্বশেষ যুক্তরাষ্ট্রের টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ভেরিজনের ওথ কোম্পানির অধীনে ছিল। তারা বলছে, এখন যাঁদের ইয়াহুতে চ্যাটের বিভিন্ন হিস্টরি রয়েছে, তা আগামী ছয় মাস পর্যন্ত ডাউনলোড করার সুযোগ থাকবে। এরপর ইয়াহু মেসেঞ্জার আর ওয়েবে থাকবে না।

ইয়াহু মেসেঞ্জারের ব্লগ পোস্টে বলা হয়, ‘দারুণ এক যাত্রা ছিল ইয়াহু মেসেঞ্জারের। ২০ বছরের যাত্রায় এ সেবা কোটি কোটি মানুষ উপভোগ করেছেন। লাখো মানুষের জীবন বদলে দিয়েছিল এটি। লাখো মানুষ চিঠি পাঠিয়েছেন, ছবি পাঠিয়েছেন।

আরেক বিবৃতিতে ইয়াহু কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা আরেকটি মেসেজিং অ্যাপ তৈরি করছে, যার নাম স্কুইরেল। এটি ইয়াহু মেসেঞ্জারের বদলি হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।