বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

হোয়াটসঅ্যাপে দৈনিক ২০০ কোটি ঘণ্টার বেশি কল করা হচ্ছে

বিশ্বজুড়ে দিন দিন জনপ্রিয়তা বাড়ছে ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপের। বর্তমানে ১২০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে হোয়াটসঅ্যাপের। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ গতকাল মঙ্গলবার বলেছে, হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা এ প্ল্যাটফর্মে দৈনিক ২০০ কোটি ঘণ্টার বেশি সময় কল করে কাটান।

হোয়াটসঅ্যাপে গতকাল থেকেই গ্রুপ কলের ক্ষেত্রে ভয়েস ও ভিডিও কল সুবিধা চালু হয়েছে। হোয়াটসঅ্যাপের এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়েছে, গত কয়েক বছরে হোয়াটসঅ্যাপে ভয়েস ও ভিডিও কল উপভোগ করছে মানুষ। ব্যবহারকারীরা ২০০ কোটি ঘণ্টার বেশি এ প্ল্যাটফর্মে সময় কাটাচ্ছেন।

ব্যবহারকারী একে একে চারজনকে কল দিয়ে গ্রুপ কল তৈরি করতে পারবেন এবং ‘অ্যাড পার্টিসিপেন্ট’ চাপ দিয়ে কন্টাক্ট যুক্ত করতে পারবেন। এ কল এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপটেড বলে দাবি করেছে হোয়াটসঅ্যাপ। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর অক্টোবর মাসে প্রথম এই ফিচার দেখা গেলেও এই বছর মে মাসে ডেভেলপার কনফারেন্সে প্রথম এই ফিচার সামনে এনেছিল ফেসবুক। অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএসের সব গ্রাহক নতুন গ্রুপ ভিডিও ও ভয়েস কলের ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন। একসঙ্গে চার ব্যক্তির সঙ্গে এই গ্রুপ কল করা যাবে।

২০১৬ সালে প্রথম এর ভিডিও কল ফিচার যোগ হয়েছিল। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ বলেছে, ধীরগতির নেটওয়ার্কেও ভালো কাজ করবে এ গ্রুপ কলিং ফিচার। আগের মতোই সব কল এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপটেড থাকবে। গ্রুপ ভিডিও কল করার জন্য প্রথমে একজনকে ভিডিও কল করতে হবে। এরপরে ডান দিকে ওপরে নতুন পার্টিসিপেন্ট যোগ করার অপশন চলে আসবে।

ফেসবুক মেসেঞ্জার ভয়েস কলে একসঙ্গে ৫০ জন যোগ দিতে পারেন। স্কাইপে এই সংখ্যা ২৫।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar