বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১০:২৯ অপরাহ্ন

সৈয়দপুরে পিকআপের চাপায় দাদা নাতি নিহত ॥ আটক ২

শাহজাহান আলী মনন, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে পিকআপের ধাক্কায় রহমত তুল্লা (৬৫) ও তুরাগ (২) নামে দুই জন নিহত হয়েছে। নিহতরা সম্পর্কে দাদা-নাতি। ২৬ জুন বুধবার সকাল ৮ টার দিকে সৈয়দপুর- নীলফামারী সড়কের ওয়াপদা নতুন হাটে ওই দূর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় জনতা চালক ও হেলপার সহ পিকআপটিকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ্দ করেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার সময় নয়া হাটের বাসিন্দা পিডিবির অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী রহমত তুল্ল্যা নাতি তুরাগকে নিয়ে সড়কের পাশ দিয়ে হাটছিলেন। এ সময় নীলফামারীগামী খালি পিকআপটি দাদা-নাতিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতার হাতে আটক হয়। ঘটনাস্থলে মারা যায় রহমত তুল্ল্যা এবং গুরুতর আহত শিশু তুরাগ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায়। এদিকে এঘটনার পর পরই নতুনহাট এলাকার লোকজন পিকআপটি আটক করে। এসময় উত্তেজিত জনতা পিকআপের চালক ও হেলপারকে বেদম মারপিট করে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে তাদের আটক করে পিকআপটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে। আটক চালক সৈয়দপুর পৌর এলাকার কয়া গোলাহাট সরকার পাড়ার মঞ্জুর আলীর ছেলে মোঃ রিমন (১৭) এবং হেলপার একই এলাকার মোঃ সাবেদ আলীর ছেলে মোঃ আবু রায়হান (১৬)। এ ঘটনায় ওয়াপদা নতুনহাট এলাকাবাসী সৈয়দপুর-নীলফামারী সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) অশোক কুমার পালের আশ^াসের প্রেক্ষিতে অবরোধ তুলে নেয়। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চালকের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেনি আটক পিকআপ ভ্যানের চালক রিমন। উল্লেখ্য, সৈয়দপুর শহরের এই ওয়াপদা নতুন হাট এলাকায় গত এক মাসে প্রায় ৫টি সড়ক দূঘটনা ঘটেছে। এর ৩টি মোট ৫ জন নিহত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar