ঢাকা ০২:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ইউএসটিসি ছাত্রদলের ৫ সদস্যের আহবায়ক কমিটির ৩ সদস্যের পদত্যাগ। পবিপ্রবিতে নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনায় উৎপাদিত তেলাপিয়া ও পাঙ্গাস মাছের নিলাম অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন লক্ষ্মীপুরে পুলিশের নায়েক থেকে সহকারী উপ পরিদর্শক হলেন ৬ জন পানি, খাবার এবং ঔষধ বিতরণ করেন KSA গোল্ডেন বয় সোসাইটি বোয়ালমারীতে গরুবাহী ট্রাকের চাপায় মা-মেয়ে নিহত কাঞ্চনায় স্কুল পরিচালনা নিয়ে মন্তব্য করায় হেনস্তার অভিযোগ মাত্র ৩০ সেকেন্ড টর্নেডোতে লন্ডভন্ড পটুয়াখালীর চরপাড়া। একটি মানবিক সাহায্যের জন্য আবেদন বাঁচতে চাই ক্যান্সারে আক্রান্ত মোহাম্মদ আরমান গজারিয়ায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে ভবেরচর কলেজ রোডে সড়ক দূর্ঘটনা আহত ৫

সুডোকু নিয়ে এক বিকেল

ঘড়িতে তখনো বিকেল চারটা বাজেনি। রাজধানীর প্রথম আলো কার্যালয়ের প্রশিক্ষণকক্ষে গভীর মনোযোগ দিয়ে কাগজে কাটাকুটি করছিলেন বাপ্পি আহমেদ ও আসিফ আকবর। একটু পরই সুডোকু নিয়ে মাতামাতি শুরু হবে, সেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন দুজন। ঘড়ির কাঁটা চারটা পেরোলেই একদল তরুণ শিক্ষার্থী ও সুডোকুপ্রেমীতে ভরে যায় ঘরটা।

বাংলাদেশে দিন দিন বাড়ছে সুডোকুর জনপ্রিয়তা। এখন আমাদের দেশের দল আন্তর্জাতিক সুডোকু প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করছে। দেশের সুডোকুপ্রেমীদের নিয়ে ২৪ জুলাই প্রথম আলো কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘সুডোকু আড্ডা’। সুডোকু সলভারস বাংলাদেশ গ্রুপ এই আড্ডার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

শুধু আড্ডাই নয়, ছিল পরীক্ষাও। আড্ডা শুরু হয় দুটি সাধারণ সুডোকু সমাধানের মাধ্যমে। দ্রুত সময়ে সুডোকু সমাধান করে প্রথম পুরস্কার পান সানাজানা জেবিন। তাঁর ভাষ্যে, ‘সুডোকু হলো অঙ্কের খেলা, বুদ্ধির খেলা। এর মাধ্যমে ভালো সময় কাটে।’ আড্ডায় অংশগ্রহণকারীদের একজন ইপসিতা সাদিক বলেন, ‘দাবা, রুবিকস কিউবের মতোই সুডোকু খেললে মস্তিষ্কের ব্যায়াম হয়।’

পরীক্ষার পর দলটির কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা করেন অংশগ্রহণকারীরা। এ ছাড়া বিশ্ব সুডোকু চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ দলের সদস্যরা তাঁদের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে নেন।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ইউএসটিসি ছাত্রদলের ৫ সদস্যের আহবায়ক কমিটির ৩ সদস্যের পদত্যাগ।

সুডোকু নিয়ে এক বিকেল

আপডেট টাইম ০৬:৪৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ জুলাই ২০১৮

ঘড়িতে তখনো বিকেল চারটা বাজেনি। রাজধানীর প্রথম আলো কার্যালয়ের প্রশিক্ষণকক্ষে গভীর মনোযোগ দিয়ে কাগজে কাটাকুটি করছিলেন বাপ্পি আহমেদ ও আসিফ আকবর। একটু পরই সুডোকু নিয়ে মাতামাতি শুরু হবে, সেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন দুজন। ঘড়ির কাঁটা চারটা পেরোলেই একদল তরুণ শিক্ষার্থী ও সুডোকুপ্রেমীতে ভরে যায় ঘরটা।

বাংলাদেশে দিন দিন বাড়ছে সুডোকুর জনপ্রিয়তা। এখন আমাদের দেশের দল আন্তর্জাতিক সুডোকু প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করছে। দেশের সুডোকুপ্রেমীদের নিয়ে ২৪ জুলাই প্রথম আলো কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘সুডোকু আড্ডা’। সুডোকু সলভারস বাংলাদেশ গ্রুপ এই আড্ডার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

শুধু আড্ডাই নয়, ছিল পরীক্ষাও। আড্ডা শুরু হয় দুটি সাধারণ সুডোকু সমাধানের মাধ্যমে। দ্রুত সময়ে সুডোকু সমাধান করে প্রথম পুরস্কার পান সানাজানা জেবিন। তাঁর ভাষ্যে, ‘সুডোকু হলো অঙ্কের খেলা, বুদ্ধির খেলা। এর মাধ্যমে ভালো সময় কাটে।’ আড্ডায় অংশগ্রহণকারীদের একজন ইপসিতা সাদিক বলেন, ‘দাবা, রুবিকস কিউবের মতোই সুডোকু খেললে মস্তিষ্কের ব্যায়াম হয়।’

পরীক্ষার পর দলটির কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা করেন অংশগ্রহণকারীরা। এ ছাড়া বিশ্ব সুডোকু চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ দলের সদস্যরা তাঁদের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে নেন।