বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন

সংস্কারে জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়ে: পুতিন

সংস্কার করার অর্থনৈতিক প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তবে তা ভালোভাবে নেয় না কেউ। এতে জনপ্রিয়তা শাঁই করে নিচের দিকে ধাই করে। সম্প্রতি এক টিভি অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

হালে পুতিনের জনপ্রিয়তায় ব্যাপক ভাটা পড়েছে। তাই এবার পুতিনের গুনগান প্রচার করতে ক্রেমলিন-নিয়ন্ত্রিত টেলিভিশন চ্যানেল নতুন সাপ্তাহিক শো আয়োজন করেছে।

রাশিয়া পাবলিক ওপিনিয়ন রিসার্চ সেন্টারের এক জরিপে দেখা গেছে, গত মে মাসে পুতিনের জনপ্রিয়তা ছিল ৮০ শতাংশ। আর গত মাসে তা কমে দাঁড়ায় ৬৪ শতাংশে। ইউক্রেন থেকে ক্রিমিয়াকে দখল করে পুতিনের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী হওয়ার কয়েক মাস আগে ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে তাঁর জনপ্রিয়তা একবার নিচে নেমে এসেছিল বলে এএফপি জানায়।

গত জুনে পেনশনের বয়স পুরুষদের ক্রমান্বয়ে ৬০ থেকে ৬৫ এবং নারীদের ৫৫ থেকে ৬৩ করার পরিকল্পনা করে পুতিন সরকার। এ নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক তৈরি হয়। এমনকি কয়েক সপ্তাহ ধরে শীর্ষ খবরের বিষয় হয়ে ওঠে এটি। ক্ষোভ প্রকাশ করতে রাস্তায় নেমে আসে আমজনতা।

তবে গত সপ্তাহে পুতিন টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে বলেন, পরিকল্পনার কিছুটা সংস্কার করা হয়েছে। সেখানে তিনি নারীদের পেনশনের বয়স আট বছরের পরিবর্তে পাঁচ বছর বাড়ানোর কথা বলেন।

পুতিন বলেছেন, এই সংস্কার আর্থিক প্রয়োজনীয়তার খাতিরেই।

কিন্তু একে ভালোভাবে নেওয়া হয়নি এবং এতে পুতিনের জনপ্রিয়তা হ্রাস পায়।

বিবিসির খবরে বলা হয়, বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়ন অভিযোগ করে, বয়স বাড়ানোর কারণে অনেকে হয়তো এই বয়স পর্যন্ত বাঁচবেনই না। তাই তাঁরা পেনশনের সুবিধাটা ভোগ করতে পারবেন না।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী রাশিয়ার পুরুষদের গড় আয়ু ৬৬ ও নারীদের ৭৭ বছর।

সাইবেরিয়ার শহর ওমস্কে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে পুতিন। রাশিয়া, ২৮ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সসাইবেরিয়ার শহর ওমস্কে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে পুতিন। রাশিয়া, ২৮ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সপুতিনের জয়গান প্রচার করতে তৈরি এ অনুষ্ঠানের নাম ‘মস্কো, ক্রেমলিন, পুতিন’। রোশিয়া ওয়ান নামের চ্যানেলে গত রোববার প্রথম পর্ব প্রচার করা হয়। সেখানে দীর্ঘদিনের এ শাসককে সাইবেরিয়ায় মাশরুম তুলতে এবং খনিশ্রমিক ও স্কুলশিশুদের সঙ্গে বৈঠক করতে দেখা যায়। প্রেসিডেন্ট এমনিতেই রাষ্ট্রীয় নিউজ বুলেটিনগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করেন। কিন্তু রোশিয়া ওয়ানের ঘণ্টাব্যাপী এই অনুষ্ঠান হলো নতুন রূপে পুতিনের কর্মকাণ্ড প্রচার করা।

পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ গতকাল সোমবার বলেন, এটি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন কোম্পানি ভিজেটিআরকের প্রকল্প, ক্রেমলিনের নয়।

‘প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে তথ্য ও তাঁর কর্মপরিকল্পনা কোনো ধরনের বিকৃতি ছাড়া সঠিকভাবে প্রচার করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পুতিনের এ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই।’

পেসকভ প্রথম পর্বে অংশ নেন। তাঁর সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন ক্রেমলিনপন্থী উপস্থাপক ভ্লাদিমির সোলোভইয়েভ। সেখানে পেসকভ পুতিনের ব্যক্তি ও কর্মজীবনে বিভিন্ন অর্জনের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি দর্শকদের উদ্দেশে বলেন, ‘পুতিন যে শুধু শিশুদের পছন্দ করেন তা নয়, তিনি সবাইকে পছন্দ করেন। তিনিই খুবই মানবিক।

সরকারের একজন কর্মকর্তা এই শোতে দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ভবিষ্যৎ প্রজন্মের দায়িত্ব নিয়েছেন পুতিন।’

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar