শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন

শাহরাস্তিতে লক্ষাধিক টাকার খাল দখলের পায়তারা

রাফিউ হাসানঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেখানে খাল, নদী ও ডোবা ভরাট বন্ধে নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে নির্দেশনাকে অমান্য করে চাঁদপুরের শাহরাস্তির পৌরসভা সংলগ্ন সরকারী খালের জমি দখল নিয়ে চলছে প্রতিযোগীতা।

লক্ষাধিক টাকার সরকারি এই খালটি স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র নানান কৌশলে হাতিয়ে নিলে স্থানীয় ভূমি প্রশাসন কঠোর ভূমিকা পালন করলেও অজানা কারণে দখলকারীরা তা দখলের পায়তারা করেই চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রভাবশালী দখলদার চক্র খালের পাশে মাটি এনে খালটিতে নির্বিচারে ফেলছেন। যা পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থাকে বাধাগ্রস্থ করছে। এর ফলে পানি পচে কালচে রং ধারণ করেছে এবং দুর্গন্ধযুক্ত হয়ে মশার উপদ্রব বৃদ্ধিসহ পানিবাহিত রোগবালাই বাড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। তাই খালটি সংস্কারে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণসহ দখল মুক্ত করার দাবি জানান স্থানীয়রা।

খালের দখল ও দূষণের বিষয়ে পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের বসবাসকারী মো. হাবিব প্রতিবেদককে বলেন,  এ খাল দিয়ে বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা স্থানীয় হাট কিংবা বাজারগুলোতে কৃষি পণ্য বিক্রি করতে আসতো। আজ সেই খাল মৃত প্রায়। খাল দখলকারীদের কবলে আজ এই খাল হারিয়ে ফেলছে তার নব্যতা।

৮ নং ওয়ার্ডে বসবাসকারী কলেজ শিক্ষার্থী শুভ বলেন, খালে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও দখলদারদের হাত থেকে জমি দখল মুক্ত না করলে, এলাকার খালটি দ্রুত হারিয়ে যাবে। বর্তমানে সেচের কাজ ও ঘরগৃহস্থালীর কাজে স্থানীয় কৃষকরা বিপাকে আছেন। সরকারি উদ্যোগে দ্রুত খালের জমি দখল মুক্ত করে খালটি খনন করা উচিত। তা না হলে লক্ষাধিক টাকার এ খালটি কতিপয় ভূমিদস্যুরা দখল করে ফেলবে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, খালটি পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের ৩৭৪ নং নিজমেহার মৌজায় অবস্থিত খতিয়ান নং ১ ও ১/১ এর আওতাভুক্ত বিএস দাগ নং যথাক্রমে ৬৬৪৭ ও ৬৬৪৫ এর আওতায় সরকারি খাল হিসেবে লিপিবদ্ধ রয়েছে।  আবু তাহের নামক গংরা মাটি ফেলে খাল দখলের পায়তারা করছেন। খালটি দখলের জন্য তারা রাতের আধাঁরে অনেকটা লুকিয়ে মাটি ভরাট করছে। এমনভাবে মাটি ভরাটের ফলে আগামী কয়েক বছর পর হয়তো খালটির অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাবে না।

ইতিমধ্যে পৌর এলাকার ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবু তাহের, পিতা- মৃত জিন্নত আলী, পৌরসভা সংলগ্ন খালের প্রায় ৪ শতাংশ জায়গা একাই দখলে নিয়েছেন বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে আবু তাহেরের সাথে কথা বলতে চাইলে প্রতিবেদকের সাথে কথা বলতে অপারগতা জানান।

পৌর মেয়র আব্দুল লতিফ খাল দখলকারী আবু তাহের গংদের মাটি ভরাট না করার আহবান জানালেও আবু তাহের তা কর্ণপাত করেন নি। তিনি দিব্যি রাতের অন্ধকারে মাটি ফেলে তা দখল করছেন। তাহলে এই খাল দখলকারী লোকদের খুঁটির জোড় কোথায়? প্রশাসনের নির্দেশকে অমান্য করে বহাল তবিয়তে আবু তাহের গংরা মাটি ভরাট করেই চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar