রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২০ অপরাহ্ন

শহীদ মিনারে আইয়ুব বাচ্চুকে শেষ শ্রদ্ধা

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক:   জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ স্কয়ার হাসপাতাল থেকে শহীদ মিনারে নেয়া হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার একটু পর লাশবাহী গাড়িটি হাসপাতাল থেকে শহীদ মিনারের উদ্দেশে রওয়ানা হয়।
আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার ও ঘনিষ্ঠজন সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সেখানে রাখা হবে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ। এরপর সেখান থেকে মরদেহ নেয়া হবে জাতীয় ঈদগাহ মাঠে। সেখানে বাদ জুমআ প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার চট্টগ্রামে মায়ের কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে।
এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে নিজের বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাঁকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সকাল ১০টায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, আইয়ুব বাচ্চুকে হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।
১৯৭৮ সালে সঙ্গীতজীবন শুরু করেন আইয়ুব বাচ্চু। আইয়ুব বাচ্চু একাধারে গায়ক, লিড গিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার, প্লেব্যাক শিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক ছিলেন। সোলসের হয়ে ব্যান্ড সঙ্গীতে পা রাখার পর ১৯৯০ সালে নিজের ব্যান্ড দল প্রতিষ্ঠা করেন আইয়ুব বাচ্চু। ব্যান্ডের নাম রাখেন ‘লিটল রিভার ব্যান্ড’। পরবর্তীতে এর নাম বদলে রাখা হয় ‘লাভ রান্‌স ব্লাইন্ড’।

মূলত রক ঘরানার কন্ঠের অধিকারী হলেও আধুনিক গান, ক্লাসিকাল সঙ্গীত এবং লোকগীতি দিয়েও শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন আইয়ুব বাচ্চু। তার কণ্ঠে গাওয়া উল্লেখযোগ্য গানগুলোর মধ্যে রয়েছে, ’চলো বদলে যাই’, ‘রূপালি গিটার’ ‘কষ্ট পেতে ভালোবাসি’ ‘ঘুম ভাঙ্গা শহরে’, ‘হকার’ ‘অবাক হৃদয়’ ‘আমিও মানুষ’ ‘কষ্ট কাকে বলে’, ‘সুখ’, ‘মন চাইলে মন পাবে’সহ অসংখ্য গান।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar