রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

ল্যাপটপ ট্যাবের চাহিদা দিন দিন আরো বাড়বে : মোস্তাফা জব্বার

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, দেশে চার কোটি শিক্ষার্থী রয়েছে। তাদের সবার ল্যাপটপের প্রয়োজন হবে। যত ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়বে, তত ল্যাপটপ ট্যাবের চাহিদাও দিন দিন বাড়বে।
আজ বৃহস্পতিবার বিকেল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ল্যাপটপ মেলার উদ্বোধন কালে তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, এক সময় বাংলাদেশ প্রযুক্তিতে পিছিয়ে থাকলেও এখন অনেক এগিয়ে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এবং দেশে ৮.৫ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী।এ ছাড়া যত ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়বে, তত ল্যাপটপ ট্যাবের চাহিদাও দিন দিন বাড়বে। তিনি বলেন, কম্পিউটার, ল্যাপটপ বলতেই এক সময় সবাই বুঝতো বিশেষ কিছু। কারণ বিশেষ মানুষরা এগুলো ব্যবহার করত। কিন্তু বর্তমানে ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, ট্যাব হয়েছে সবার বন্ধু। কাজের জায়গা বিভিন্ন ডিভাইসের প্রয়োজনীয়তা বেড়েছে। বেড়েছে ল্যাপটপ, ডেস্কটপ এবং ট্যাবের গুরুত্ব।
জব্বার বলেন, ল্যাপটপ মেলা শুধু কেনাবেচার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, এটি এক্সপেরিয়েন্স জোন হিসেবেও ব্যবহার হয়। এই মেলার কারণে যে সচেতনতা তৈরি হচ্ছে, সেগুলো নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। কেননা আগে ল্যাপটপ বিক্রি তেমন ছিল না, এখন রুপান্তর ব্যাপকভাবে হয়েছে।
ল্যাপটপের এই মেলা অব্যাহত রাখতে হবে উল্লেখ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ল্যাপটপের বর্তমান চাহিদা বিবেচনা করলে এ দেশের বাজার এখন ডিভাইস প্রস্তুতকারী কোম্পানি গুলোর কাছে লোভনীয়। ইতিমধ্যে অনেক বিদেশী কোম্পানি দেশে ল্যাপটপ সংযোজনের চিন্তাভাবনা করছে। আর দেশের দ’ুটি কোম্পানি ল্যাপটপ প্রস্তুতও করছে।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের চ্যানেল সেলস কানসালটেন্ট সাকিব হাসান, আসুস বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মো. আল ফুয়াদ, ডেল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার আতিকুর রহমান, এইচপি বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার ইমরুল হোসেইন ভূঁইয়া, লেনোভো বাংলাদেশের ম্যানেজার সেলস রাশেদ কবির, গ্লে¬াবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল ফাত্তাহ ও এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান উপস্থিত ছিলেন।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) শুরু হয়েছে তিনদিনের ‘এফোরটেক সামার ল্যাপটপ ফেয়ার ২০১৮’। এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি দেশের ২০তম ল্যাপটপ প্রদর্শনী। ল্যাপটপও ট্যাবলেট নিয়ে দেশের সবচেয়ে বড় এই প্রদর্শনী ও বিকিকিনির আয়োজনটি শনিবার পর্যন্ত চলবে। এ ছাড়া প্রতিদিন মেলা চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।
]এবারের আয়োজনে ১টি টাইটেল স্পন্সর প্যাভিলিয়ন, ৫টি স্পন্সর প্যাভিলিয়ন, ১৪টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ২৭স্টলে দেশ বিদেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করবে।
এ ছাড়া প্রদর্শনীতে পাওয়া যাচ্ছে ট্যাবলেট ক¤িপউটার, ইন্টারনেট সিকিউরিটি পণ্য ও ল্যাপটপের আনুষাঙ্গিক গ্যাজেট। বিশেষ ছাড়, উপহারের পাশাপাশি মেলায় বেশ কয়েকটি নতুন মডেলের ল্যাপটপের মোড়কও উšে§াচন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar