রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ১১:৪৯ অপরাহ্ন

রোহিতদের নিয়ে রসিকতা, হংকং বলছে দেখিয়ে দিলাম

হংকং কী ধাক্কাটাই না দিয়েছে!

না, দলটা জেতেনি। কিন্তু হংকং বুঝিয়ে দিয়েছে, তাঁরা ওয়ানডে মর্যাদা ফিরে পাওয়ার যোগ্য। কাল এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে জিততে জিততে হারের পর সেই ইঙ্গিতই দিলেন হংকং অধিনায়ক অংশুমান রাঠ,‘আমরা কী করতে পারি তা বিশ্বের কাছে প্রমাণ করেছি। ভারতকে আমরা প্রায় বাগে পেয়ে গিয়েছিলাম। আমাদের সত্যিই ম্যাচটা জেতা উচিত ছিল।’

অংশুমানের হতাশা বুঝি বেশিরভাগ ক্রিকেটপ্রেমীর মনের কথা। আইসিসির পুঁচকে সহযোগী দেশের কাছে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় দলের হার—এমন অবিশ্বাস্য ব্যাপার তো প্রতিদিন দেখা যায় না। কাল এই অবিশ্বাস্য ঘটনা জন্ম দেওয়ার সুবাস ছড়িয়েও পারেনি হংকং। ভারতের ২৮৫ রান তাড়া করতে নেমে তাঁরা হেরেছে মাত্র ২৬ রানে। এই ফলে অবশ্য হংকংয়ের লড়াইয়ের সঠিক চিত্র পুরোপুরি বোঝা যাবে না। প্রায় তিন শ রান তাড়া করতে নেমে হংকংয়ের প্রথম উইকেট পরেছে ৩৫তম ওভারে! স্কোরবোর্ডে দলটির রান ততক্ষণে ১৭৪। ভারতের তারকাখচিত বোলিং লাইনআপের বিপক্ষে সহযোগী দেশের এমন ব্যাটিং—ভাবা যায়!

আগে থেকে ভাবতে পারা যায় না বলেই ক্ষমা চেয়েছেন আকাশ চোপড়া। কে ভেবেছিল দোর্দন্ডপ্রতাপশালী ভারতের বিপক্ষে হংকং এমন লড়াই করবে! ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান ও বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্লেষক চোপড়া তাই হংকংয়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে টুইট করেছেন, ‘তোমাদের সংকল্পকে খাটো করে দেখার জন্য ক্ষমা চাচ্ছি। ভাল শিক্ষা হয়েছে। ভবিষ্যত পথ সুগম হোক।’

হংকংয়ের ওপেনিং জুটি ভারতের রান তাড়া করতে কতটা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিল সেটি বোঝাচ্ছে পরিসংখ্যান। ১৭৪ রানের জুটি গড়ার পথে তাঁরা ভেঙেছেন হংকংয়ের ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের রেকর্ড। এ দুজনের বিপক্ষে ভারতের বোলিং লাইন কতটা নখদন্তহীন ছিল সেটিও বুঝিয়ে দিচ্ছে পরিসংখ্যান—দলটি তাঁদের ৪৪ বছরে ওয়ানডে ইতিহাসে এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো ম্যাচের প্রথম ৩৩ ওভারের মধ্যে কোনো উইকেট ফেলতে পারেনি।

টুইটারে তাই ভারতের বোলারদের ধুয়ে দিয়েছেন ভারতেরই ক্রিকেটপ্রেমীরা। গৌরব শেঠী নামের এক ক্রিকেটভক্ত ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রীকে খোঁচা মেরে টুইট করেছেন, ‘অপেক্ষা করছি শাস্ত্রী কখন বলবেন, ভারতের এই দলটা ১৯৮৩ সালের পর সেরা।’ আরেকজনের রসিকতা, ‘আজ রাতে হংকংয়ের প্রথম উইকেট যে নেবে তাঁকে ৫০ লাখ রুপি পুরষ্কার দেবে বিসিসিআই।’ শাস্ত্রীকে খোঁচা মেরে আরেক ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীর টুইট, ‘১৯৮৩ সালের পর এটাই ভারতের সেরা দল। ভারতের বাইরে হংকংয়ের মতো দলের বিপক্ষে দল যা অর্জন করেছে তা অসামান্য।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar