মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৭ অপরাহ্ন

রামুর সেই দীর্ঘমানব জিন্নাত পেল এক টুকরো জমি ও দোকানঘর

মোঃ ইউনুছ, নাইক্ষংছড়ি(বান্দরবান)প্রতিনিধি : নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার পার্শ্ববর্তী রামু গর্জনিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামের বাসিন্দা ও দেশের দীর্ঘমানব জিন্নাত আলীর আয়-রোজগারের ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। তাঁকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গর্জনিয়া বাজারে ০.০০৩৮ একর জমি বরাদ্দ দিয়ে বন্দোবস্তি করে দেওয়া হয়েছে। সেই জমির ওপর নির্মিত দোকানঘর মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১১টায় উদ্বোধন করেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো.কামাল হোসেন। এসময় দোকানঘরের পাশাপাশি এক টুকরো জমির ডিসিআর ও দোকানের সামগ্রী জিন্নাত আলীকে হস্তান্তর করে জেলা প্রশাসক। এ সময় তিনি দোকানের প্রথম ক্রেতা হিসাবে দুটি টিস্যুর প্যাকেট ক্রয় করেন। জেলা প্রশাসক বলেন- 'জিন্নাত আলী এতদঅঞ্চলের সম্পদ। তাঁকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জমিসহ দোকানঘর দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী তাঁকে তাঁর আদলে বসতবাড়িও নির্মাণ করে দেওয়া হবে।' অনুষ্ঠানে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুৎফুর রহমান, সহকারি কমিশনার (ভূমি) চাই থোয়াইহলা চৌধুরী, গর্জনিয়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদ, গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু মো.ইসমাইল নোমান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে জিন্নাত আলীর দোকানঘর উদ্বোধনস্থলে ছিল উৎসুক জনতার ঢল। নাইক্ষ্যংছড়ির কর্মরত সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিভিন্ন গণমাধ্যমে অসুস্থ দীর্ঘমানব জিন্নাত আলীর খবর প্রচারিত হওয়ার পর স্থানীয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল গত বছরের ২৪ অক্টোবর জিন্নাত আলীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে স্বাক্ষাত করান। এরপর থেকেই তাঁর ভাগ্য খুলে যায়। ইউএনও লুৎফুর রহমান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জিন্নাতের চিকিৎসার দায়িত্বের পাশাপাশি বসতঘর ও দোকানঘর নির্মাণ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন । বেলা ১২ টায় জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ হল রূমে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি,সাংবাদিক জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে উন্নয়ন ও আইনশৃংখলা বিষয়ক সভায় যোগ দেন। প্রসঙ্গত : কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়ার বড়বিল গ্রামের বাসিন্দা দরিদ্র বাবা আমীর হামজার এক মেয়ে, তিন ছেলের মধ্যে জিন্নাত তৃতীয়। অন্য সবার মতো স্বাভাবিক ছিল জিন্নাতের গড়ন। কিন্তু ওর বয়স যখন ১২ বছর, সে সময় থেকেই দ্রুত উচ্চতা বাড়তে থাকে। প্রতিবছর দুই থেকে তিন ইঞ্চি করে আকৃতি বাড়তে থাকে। ১০ বছরের মধ্যে প্রায় চার ফুট উচ্চতা বেড়ে জিন্নাত এখন ৮ ফুট ২ ইঞ্চির এক মানব।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar