বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন

রামগঞ্জ উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে সন্মেলনের তারিখ ঘোষনা করলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ

রামগঞ্জ প্রতিনিধি
#########
দীর্ঘ দিন ধরে সন্মেলন না হওয়াতে ঝিমিয়ে পড়েছে তৃনমূলের রাজনীতি। ত্যাগী নেতা কর্মীদের মূল্যায়নের অভাব। দল টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় তারপরেও স্থানীয় জনগনের সরকার কিংবা আওয়ামীলীগের প্রতি বিমুখ আচারন। সব কিছু মিলিয়ে দীর্ঘদিন ধরে না হওয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সন্মেলনের তারিখ ঘোষণা করিলেন রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ।

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় ১০ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে লক্ষ্মীপুর ০১ রামগঞ্জ সংসদীয় আসন গঠিত। দীর্ঘদিন ধরে এই উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সন্মেলন হয়নাই। কোন কোন ইউনিয়নে ৮/৯ বছর যাবত সন্মেলন না হওয়াতে নতুন নেতৃত্ব যেমন সৃষ্টি হয়নি তেমনী দলীয় রাজনীতির প্রতিও নেতাকর্মীদের একটা অনিহা সৃষ্টি হয়েছিল।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায়। সেই সুযোগে বিএনপি,জামাত থেকে অনেকই এই ইউনিয়নগুলোর সরকার দলীয় নেতাদের হাত ধরে এখন আওয়ামীলীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে চলিতেছে।
এলাকায় অনেকেই নিজের বলয় সৃষ্টির জন্য বিএনপি জামাতের লোকদেরকে নিজের পক্ষে দলে ঢুকিয়েছে। দলের ত্যাগী নির্যাতিতদের মূল্যায় না করে হামলা মামলায় জর্জরিত করে রাখা হয়েছে।

অবশেষে আজ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম সুমনের ফেসবুক আইডি থেকে ৫টি ইউনিয়নে সন্মেলনের আলাদা আলাদা চিঠি প্রচার করা হয়। সন্মেলন সফল করার জন্য ইউনিয়ন সভাপতি সাধারণ সম্পাদক বরাবর চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।১২জুন থেকে সন্মেলন শুরু হওয়ার তারিখ ঘোষণা হলেও অনিবার্য কারণ বশত তা পরিবর্তন করে নতুন তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সন্মানীত সভাপতি এ্যাডভোকেট সফিক মাহমুদ পিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযুদ্ধা আ,ক,ম রুহুল আমিন সাক্ষরিত চিঠিতে
আগামী ২৩/৬/২০২১ – ৭নং দরবেশ ইউনিয়ন,
২৪ই জুন ১০ নং ভাটরা ইউনিয়ন, ২৬ই জুন ৫নং চন্ডিপুর ইউনিয়ন, ২৭ই জুন ৬নং লামচর ইউনিয়ন ও ২৮ই জুন ৮নং করপাড়া ইউনিয়ন সহ মোট ৫টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সন্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

দীর্ঘদিন পরে সন্মেলনের তারিখ ঘোষনা হওয়াতে উপজেলার সর্বত্রই নেতাকর্মীদের মাঝে আনন্দ দেখা যাচ্ছে। সোস্যালমিডিয়াতেও প্রচার প্রচারণা হচ্ছে। ত্যাগী নির্যাতিতরা ইতিমধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগকে সন্মেলনর তারিখ ঘোষণা করায় অভিনন্দন জানিয়েছে। তৃণমূলের এসব নেতাকর্মী মনে করে এই সন্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্বের সৃষ্টি হইবে।ত্যাগী নির্যাতিতদের মূল্যায়ন করা হইবে। বিতাড়িত করা হইবে হাইব্রিড অনুপ্রবেশকারীদের।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar