রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

রাজনীতি ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদান রেখে চলেছেন হরিনারায়নপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস

মোহাম্মদ রফিক, কুষ্টিয়াঃ   প্রকৃতির নিয়মনুযায়ী মানুষ সমাজ বদ্ধভাবে বসবাস করতে পছন্দ করে। অার তাই মানুষ একে অপরের সহযোগিতা ছাড়া চলতে পারেনা। কথায় আছে, মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য এই কথাটির সত্যটা প্রমাণ করেছেন হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি পদ প্রার্থী আব্দুল বারী বিশ্বাস।
আসছে ২২ অক্টোবর ২০১৯-ইং  হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলন। এবারে সম্মেলন উপলক্ষে এই ইউনিয়ন বেশ কিছু সভাপতি প্রার্থী হিসেবে প্রতিদন্ধীতা করবেন বলে বেশ জোরে সোরে নাম শোনা যাচ্ছে। এদের মধ্যে অন্যতম মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস। তিনি বেশ জোরালো ভাবেই মাঠ ঘুরছেন।  তিনি একদিকে একজন বিশিষ্ট সমাজ সেবক অন্যদিকে রাজনৈতিক ব্যক্তি হিসেবে বর্তমান কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইবি থানা হরিনারায়নপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
এছাড়াও মোঃ  আব্দুল বারী বিশ্বাস  হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইতি পূর্বে ৩ বার চেয়ারম্যান প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন । মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস শৈশব, কৈশোর  এবং যুবক বয়সে অত্র এলাকায় একজন জনপ্রিয় ফুটবলার ছিলেন । ঐ সময় মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস ব্যক্তি গত ভাবে কিশোর এবং যুবকদের জন্য ফুটবল দল গঠন করে এবং প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ প্রদান করতে থাকেন। বর্তমান এই দলের সাংগঠনিক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। তিনি কুুষ্টিয়া সদর উপজেলার  হরিনারায়নপুর বাজার প্রাণ কেন্দ্রে অগ্রদূত ক্লাব প্রতিষ্ঠা করে এবং ২০ বছর ধরে এই ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে।
১৯৭৫ সালে দি কুুষ্টিয়া কো-অপারেটিভ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইউনিয়ন লিমিটেড এর নির্বাচিত ডাইরেক্টর পদ লাভ করে ৫ বছর যাবৎ এর দায়িত্ব পালন করেছে। মোঃ  আব্দুল বারী বিশ্বাস  দীর্ঘদিন যাবৎ তাঁর নিজ গ্রাম শিবপুর পুরাতন জামে মসজিদের সভাপতি ছিলেন। বর্তমান শিবপুর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ও বর্তমান শিবপুর-বেড়বাড়াদী যৌথ কবরস্থান কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। শিবপুর দোয়ারকাদাস আগরওয়ালা মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে দুই বার কলেজের বিদ্যুৎসাহী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে। শিশু ও নারী মুক্তি সংস্থার জেলা কমিটির সদস্য হিসেবে ৫ বছর, হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর লোক-মোর্চা কমিটির প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছে মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস ।
২০০৮ সালে হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদের  বৃক্ষ রোপন কমিটির সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশ মানবাধিকার সংস্থা কুুষ্টিয়া জেলা কমিটির বর্তমান সদস্য। হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদের বাংলাদেশ কমিউনিটি পুলিশ কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামীলীগ রাজনীতি করার কারণে ইতিপূর্বে  দুইবার কারোভোগ ও পুলিশ নির্যাতনের শিকার হয়। হরিনারায়নপুর ইউনিয়নের রাজনৈতিক ও সামাজিক জীবন থেকে তিনি বেশিরভাগ সময় অবহেলিতো মানুষের কথা ভেবে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নিজ এলাকার অনেক মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়িয়েছেন মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস । শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কুল -কলেজ, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মসজিদ, মাদ্রাসা থেকে শুরু করে সব জায়গায় দান করে গেছেন অর্থ। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নের স্বার্থে এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস ।
এ বিষয়ে মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাসের সাথে কথা হলে তিনি এ প্রতিবেদক-কে বলেন, আমার ছোট বেলা থেকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে ভালো লাগে, সবসময় চেষ্টা করি মানুষের পাশে দাঁড়াতে। এছাড়াও তিনি আরও বলেন, সমাজের প্রত্যেক মানুষ যদি আজ ভেদাভেদ ভুলে একত্রে বসবাস করতো তাহলে সমাজে কোন হিংসা বিদ্বেষ থাকতো না।
তিনি আরও বলেন, ২২ অক্টোবর এই ইউনিয়নে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেই ক্ষেত্রে আমি সবার সার্বিক সহযোগীতা কামনা করছি। কারণ হিসেবে তিনি  বলেন, আমি বঙ্গ-বন্ধুর রাজনীতি করি। তাঁর স্বপ্নকে বুকে ধারণ করে আমি পথ চলি। আমি ১৯৬৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করি এবং ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় অবদান রাখি। এরপর বঙ্গ-বন্ধুর আহবানে সাড়া দিয়ে আমার মামাতো ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা  মোঃ ময়েন উদ্দিন মোল্লা ভারতে ট্রেনিং নিতে যায় কিন্তু আমি হঠাৎ শারীরিক ভাবে গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়ি ফলে ভারতে ট্রেনিং নিতে যেতে পারিনি ফলে মুক্তিযোদ্ধের সময় স্থানীয়  মুক্তিযোদ্ধাদের  প্রত্যক্ষভাবে সাহায্য সহযোগীতা করি এবং মুক্তিযোদ্ধাদেরকে আমাদের বাড়ী থেকে খাবার সরবরাহ ও প্রত্যক্ষভাবে সহযোগীতায় জড়িত থাকার কারণে আমার বাবাকে, চোট চাচাকে এবং আমার ফুপাতো ভাইকে বিত্তিপাড়া পাকিস্তানি সেনা ক্যাম্পে ডেকে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য -সহযোগীতা অব্যহত থাকায় রাজাকাররা আমাদের বাড়ীতে আক্রমণ চালায় এবং সংসারের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রবাদি লুট করে নিয়ে যাবার সময় বাড়ীতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে যায়। মোঃ আব্দুল বারী বিশ্বাস বর্তমানে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইবি থানার হরিনারায়নপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড শিবপুর গ্রামের একজন স্থায়ী  বাসিন্দা। তাঁর পিতার  মৃত: জোনাব আলী বিশ্বাস । তিনি পারিবারিক জীবনে স্ত্রী মোছাঃ মহব্বতুন-ন্নেছা শিবপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষিকা। দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে মোঃ জাহাঙ্গীর বিশ্বাস (বিপু) বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী,ছোট ছেলে মোঃ শামছুল বিশ্বাস একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে এবং বড় ছেলের স্ত্রী আফরোজা খাতুন বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে চাকুরীরত আছে।
নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar