বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ অস্বীকার নেইমারদের

চ্যাম্পিয়নস লিগে রেড স্টার বেলগ্রেড-পিএসজি ম্যাচটি পাতানো ছিল বলে সন্দেহ করছে উয়েফা। ফরাসি কর্তৃপক্ষ এ নিয়ে তদন্তও শুরু করেছে। এদিকে ক্লাব দুটি ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করেছে।

প্যারিস ৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে রেড স্টারকে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল পিএসজি। হ্যাটট্রিক করেছিলেন নেইমার। ফরাসি সংবাদমাধ্যম ‘লেকিপ’ জানিয়েছে, এই ম্যাচটি পাতানো ছিল—এমন সন্দেহে তদন্ত শুরু করেছেন ফ্রান্সের সরকারি কৌঁসুলিরা। খেলা মাঠে গড়ানোর কিছুদিন আগে উয়েফা গোপন সূত্রে খবর পায়, সার্বিয়ান ক্লাবটির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা এই ম্যাচ ঘিরে মোটা অঙ্কের বাজি ধরেছেন। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সেই ব্যক্তি নিজ দলের ৫ গোল ব্যবধানে হারের পক্ষে প্রায় ৫ মিলিয়ন পাউন্ড বাজি ধরেছিলেন।

সার্বিয়ান ক্লাবটির সেই কর্মকর্তার বাজি ধরার খবরটি উয়েফার কানে আসার পর ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি আর দেরি করেনি। স্বয়ং উয়েফা সভাপতি আলেক্সান্ডার সেফেরিন ব্যাপারটি জানান ফ্রান্সের জাতীয় আর্থিক কৌঁসুলিকে। এরই ধারাবাহিকতায় সেই ম্যাচের তদন্ত শুরু করেছে ফরাসি পুলিশ। সংবাদমাধ্যমে এই খবর চাউর হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে দুটি ক্লাব। নেইমারের ক্লাব পিএসজি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে রেড স্টারের সঙ্গে ম্যাচটি পাতানো ছিল—লেকিপের এমন খবরে হতভম্ব প্যারিস সেন্ট জার্মেই। এই অভিযোগের সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ—কোনোভাবেই জড়িত নয় ক্লাব। ফরাসি আর্থিক কৌঁসুলিরাও এ নিয়ে ক্লাবকে কোনো জিজ্ঞাসাবাদ করেননি। খেলার মূলনীতির প্রতি ক্লাব সব সময়ই শ্রদ্ধাশীল।’

রেড স্টার তাঁদের বিবৃতিতে বলেছে, ‘ম্যাচ পাতানো নিয়ে লেকিপের প্রতিবেদনকে প্রত্যাখ্যান করছে রেড স্টার। এই প্রতিবেদন ক্লাবের সুনামের ক্ষতি করতে পারে। আর তাই আমরা চাই উয়েফা এই অভিযোগের তদন্ত করুক।’

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar