ঢাকা ০১:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ঝড়ে লন্ডভন্ড নড়াইলের একটি মাদ্রাসা কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মজয়ন্তী উদযাপন কুসিক নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন যারা সিলেটের বন‍্যার্তদের পাশে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানা আকস্মিক পরিদর্শনে পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার গজারিয়ায় মাদক, সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ,প্রতিরোধে বিট পুলিশের সভা অনুষ্ঠিত। নওগাঁর নিয়ামতপুরে শ্রীমন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুমিল্লায় ট্রেনের চাকা লাইনচ্যুত হয়ে তিন রুটে চলাচল বন্ধ। সরে দাঁড়ালো বিদ্রোহী,সাতকানিয়ার এওচিয়ায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আবু ছালেহ

মালিতে সশস্ত্র হামলায় নিহত ৩৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :   আফ্রিকার দেশ মালির মধ্যাঞ্চলে ফুলানি সম্প্রদায়ের একটি গ্রামে সশস্ত্র লোকদের হামলায় ৩৭ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে কুলোগন এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

পশু শিকার ও চরানোর জমি নিয়ে বিরোধের জেরে গ্রামটিতে হামলা চালানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দেশটিতে প্রতিদ্বন্দ্বী সম্প্রদায়ের মধ্যে এটি সর্বশেষ সংঘর্ষের ঘটনা। সরকার একথা জানায়।

সরকারি এক বিবৃতিতে বলা হয়, সশস্ত্র ব্যক্তিরা দোজো জাতির শিকারীদের মতো পোশাক পরে মোপতি অঞ্চলের বাঙ্কাসের কাছের কোউলোগোন গ্রামে এ হামলা চালায়।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এই হামলায় ৩৭ জন নিহত হয়েছে। এদের সকলেই বেসামরিক লোক। এছাড়া এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। হামলাকারীরা অনেক বাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে।

ফুলানি সম্প্রদায়ের আলায়ে ইয়াত্তারা বলেন, আমাগেদর গ্রামের প্রধান মুসা দিয়াল্লো এই হামলায় নিহত হয়েছেন। এছাড়াও এতে তার পরিবারের এক বৃদ্ধা ও এক বালিকা নিহত হয়েছে।

ফুলানীরা ডোগোনদের জমিতে তাদের পশু চরাতে যাওয়ায় উভয়পক্ষের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। পানি ও জমি নিয়েই এই বিরোধের সৃষ্টি হয় বলে জানা গেছে। এর আগে যেখানে জাতিগত সহিংসতার কারণে গত বছর শত শত মানুষ মারা যায়

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

ঝড়ে লন্ডভন্ড নড়াইলের একটি মাদ্রাসা

মালিতে সশস্ত্র হামলায় নিহত ৩৭

আপডেট টাইম ০৫:২০:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ জানুয়ারী ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :   আফ্রিকার দেশ মালির মধ্যাঞ্চলে ফুলানি সম্প্রদায়ের একটি গ্রামে সশস্ত্র লোকদের হামলায় ৩৭ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে কুলোগন এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

পশু শিকার ও চরানোর জমি নিয়ে বিরোধের জেরে গ্রামটিতে হামলা চালানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দেশটিতে প্রতিদ্বন্দ্বী সম্প্রদায়ের মধ্যে এটি সর্বশেষ সংঘর্ষের ঘটনা। সরকার একথা জানায়।

সরকারি এক বিবৃতিতে বলা হয়, সশস্ত্র ব্যক্তিরা দোজো জাতির শিকারীদের মতো পোশাক পরে মোপতি অঞ্চলের বাঙ্কাসের কাছের কোউলোগোন গ্রামে এ হামলা চালায়।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এই হামলায় ৩৭ জন নিহত হয়েছে। এদের সকলেই বেসামরিক লোক। এছাড়া এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। হামলাকারীরা অনেক বাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে।

ফুলানি সম্প্রদায়ের আলায়ে ইয়াত্তারা বলেন, আমাগেদর গ্রামের প্রধান মুসা দিয়াল্লো এই হামলায় নিহত হয়েছেন। এছাড়াও এতে তার পরিবারের এক বৃদ্ধা ও এক বালিকা নিহত হয়েছে।

ফুলানীরা ডোগোনদের জমিতে তাদের পশু চরাতে যাওয়ায় উভয়পক্ষের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। পানি ও জমি নিয়েই এই বিরোধের সৃষ্টি হয় বলে জানা গেছে। এর আগে যেখানে জাতিগত সহিংসতার কারণে গত বছর শত শত মানুষ মারা যায়