ঢাকা ০৫:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন রেকর্ড গড়ল শাহরুখের ‘পাঠান’ বিদেশেও অপ্রতিরোধ্য সীমান্তে হত্যা এবং মাদকদ্রব্যসহ সকল চোরাচালান বন্ধের দাবিতে সমাবেশ ও কাঁটাতার মিছিল মসজিদে নামাজের মধ্যদিয়ে মুসল্লিদের মাঝে হৃদ্যতা বাড়ে : আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দিন শখ থেকে উদ্যোক্তা, কোয়েল পাখির ডিম বিক্রি করে মাসে আয় আড়াই লাখ। নড়াইল-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুফতি শহিদুল ইসলামের ইন্তেকাল বাউফলে সরকারি চাল বাজারজাত করার সময় বাবা-ছেলে আটক। থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের যথাযথ আইনি সহায়তা প্রদান করুন: আইজিপি জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলে বাংলাদেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারেঃ” আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি” কলাপাড়ার মহিপুরে ৫০ মণ জাটকাসহ ট্রলার জব্দ।

মতলব উত্তরে জনস্বার্থে কাজ করতে গিয়ে ইউপি সদস্য জেলে // এলাকায় তোলপাড় // ইউপি সদস্যদের তীব্র নিদ্রা ও প্রতিবাদ//

মতলব উত্তর প্রতিনিধিঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ১০ নং ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ৪০ দিনের কর্ম সূচি কাজ বাস্তবায়ন হয়। কাজটি ঠেটালীয়া নোয়াব পুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হইতে ফতেপুর পাকা সড়ক সংলগ্ন মসজিদ পর্যন্ত সম্পাদন করা হয়। ঐ কাজের পিআইসি ৭ নং ওয়াড ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন। সম্পতি ঐ কাজটি করতে গেলে স্হানীয় যুবলীগ নেতা আবুহাসানাত গং রা এসে সরকারী কাজে বাধা প্রধান করলে জনগন  তাদের দাওয়া করে কাজ সম্পাদন করেন। কাজ শেষ হলে হাসানাত গংরা রাতের আঁধারে  গভীর রাতে বহিরাগত লোক এনে সরকারী রাস্তা কেটে ফেলে। এ ব্যপারে এলাকায় তুমুল উত্তেজনার জর উঠে এবং এলাকা বাসী ও হাসানাথ গং দের সাথে দাওয়া পাল্টা দাওয়া হয়। এ ব্যপারে গ্রাম পুলিশ হাসানাতকে জিজ্ঞেস করতে গেলে গ্রাম পুলিশকে বেদরক মারদর করে বলে জানান গ্রাম পুলিশ খোকন। গ্রাম পুলিশ খোকন জানান যে দাওয়া পাল্টা দাওয়া হয়েছে এ খানে তো কোন মহিলা ছিল না, এ খানে দেখা যায়, স্হানীয় যুবলীগ নেতা আবু হাসানাত এর ওয়াইফ নিলুহা বেগম বাদি হয়ে চাঁদপুর কোর্টে  ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন  সহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। আলমগীর গং রা ও হাসানাত গং দের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা দায়ের করেন। নিঃস্বার্থ ভাবে জনস্বার্থে কাজ করতে গিয়ে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা হয়, এবং ১০ আগষ্ট ইউপি  সদস্য আলমগীর হোসেন কোর্টে হাজিরা দিতে গেলে আদালত এ জনপ্রিয় জন প্রতিনিধিকে জাবিন না দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করেন। এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে   মানুষের মাঝে খোব চাপা খোব বিরাজ করে। এ ব্যপারে ১০ আগষ্ট বিকালে ১০ নং ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী সহ বাকী সদস্য সদস্যরা একটি প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন। সভায় চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সকল সদস্য ও চেয়ারম্যান খোব প্রকাশ করে বলেন প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা গ্রাম হবে শহর, এ আলোকে বাংলাদেশ সরকার গ্রামের মানুষের আর্তসামাজিক উন্নয়ন ও অবকাঠামো উন্নয়ন করার লক্ষে জনসাধারনের লাগব দূর করার জন্য ঐ এলায় একটি কাঁচা রাস্তা নির্মান করা হয়। জন স্বার্থে কাজ করতে গিয়ে যদি জেল হাজত খাটতে হয়, তাহা হলে চেয়ারম্যান, মেম্বারদের পদ ত্যাগ ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না। মানুষ যখন অন্যায় /অত্যাচার করে তখন জেল জরিমানা যা কিছু করার তা-ই হোক, কিন্তু একজন জন প্রতিনিধি, যেই এলাকায় জন গনের ভোটে নির্বাচিত ইউ সদস্য , তিনি ঐ এলাকার সর্বোচ্চ ব্যক্তি।    কিছু সংখ্যক অসাধু ব্যক্তি, চাপাবাজ, দালাল, যারা সকালে একটা বলে, বিকালে আরেকটা বলে ঐ সমস্ত মোনাফেকের লোকেরা প্রতি পক্ষ হাসানাতের সাথে আতাত করে একজন নির্দোশ ব্যক্তিকে, একজন  জন প্রতিনিধিকে মিথ্যা মামলা দিয়ে অপমানিত  করেছে, এ ষড়যন্ত্র কারীদের এবং  মিথ্যা মামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ সময় উপস্থিত থেকে বক্তব্যে রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমল হোসেন চৌধুরী, ইউপি মহিলা সদস্য তোলা মতি, মর্জিনা বেগম, তাহমিনা আক্তার নিপা,সাধারন ইউপি সদস্য শফিকুল আজম, গোলাম নবী খোকন,বোরহান মৌলভী, আঃ কাদের জিলানী, আঃহালিম সরকার, কাজী মোস্তাক, মনজুর আহমেদ, খোরশেদ আলম প্রমূখ।
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন

মতলব উত্তরে জনস্বার্থে কাজ করতে গিয়ে ইউপি সদস্য জেলে // এলাকায় তোলপাড় // ইউপি সদস্যদের তীব্র নিদ্রা ও প্রতিবাদ//

আপডেট টাইম ১২:১৩:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০২০
মতলব উত্তর প্রতিনিধিঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ১০ নং ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ৪০ দিনের কর্ম সূচি কাজ বাস্তবায়ন হয়। কাজটি ঠেটালীয়া নোয়াব পুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হইতে ফতেপুর পাকা সড়ক সংলগ্ন মসজিদ পর্যন্ত সম্পাদন করা হয়। ঐ কাজের পিআইসি ৭ নং ওয়াড ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন। সম্পতি ঐ কাজটি করতে গেলে স্হানীয় যুবলীগ নেতা আবুহাসানাত গং রা এসে সরকারী কাজে বাধা প্রধান করলে জনগন  তাদের দাওয়া করে কাজ সম্পাদন করেন। কাজ শেষ হলে হাসানাত গংরা রাতের আঁধারে  গভীর রাতে বহিরাগত লোক এনে সরকারী রাস্তা কেটে ফেলে। এ ব্যপারে এলাকায় তুমুল উত্তেজনার জর উঠে এবং এলাকা বাসী ও হাসানাথ গং দের সাথে দাওয়া পাল্টা দাওয়া হয়। এ ব্যপারে গ্রাম পুলিশ হাসানাতকে জিজ্ঞেস করতে গেলে গ্রাম পুলিশকে বেদরক মারদর করে বলে জানান গ্রাম পুলিশ খোকন। গ্রাম পুলিশ খোকন জানান যে দাওয়া পাল্টা দাওয়া হয়েছে এ খানে তো কোন মহিলা ছিল না, এ খানে দেখা যায়, স্হানীয় যুবলীগ নেতা আবু হাসানাত এর ওয়াইফ নিলুহা বেগম বাদি হয়ে চাঁদপুর কোর্টে  ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন  সহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। আলমগীর গং রা ও হাসানাত গং দের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা দায়ের করেন। নিঃস্বার্থ ভাবে জনস্বার্থে কাজ করতে গিয়ে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা হয়, এবং ১০ আগষ্ট ইউপি  সদস্য আলমগীর হোসেন কোর্টে হাজিরা দিতে গেলে আদালত এ জনপ্রিয় জন প্রতিনিধিকে জাবিন না দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করেন। এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে   মানুষের মাঝে খোব চাপা খোব বিরাজ করে। এ ব্যপারে ১০ আগষ্ট বিকালে ১০ নং ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী সহ বাকী সদস্য সদস্যরা একটি প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন। সভায় চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সকল সদস্য ও চেয়ারম্যান খোব প্রকাশ করে বলেন প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা গ্রাম হবে শহর, এ আলোকে বাংলাদেশ সরকার গ্রামের মানুষের আর্তসামাজিক উন্নয়ন ও অবকাঠামো উন্নয়ন করার লক্ষে জনসাধারনের লাগব দূর করার জন্য ঐ এলায় একটি কাঁচা রাস্তা নির্মান করা হয়। জন স্বার্থে কাজ করতে গিয়ে যদি জেল হাজত খাটতে হয়, তাহা হলে চেয়ারম্যান, মেম্বারদের পদ ত্যাগ ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না। মানুষ যখন অন্যায় /অত্যাচার করে তখন জেল জরিমানা যা কিছু করার তা-ই হোক, কিন্তু একজন জন প্রতিনিধি, যেই এলাকায় জন গনের ভোটে নির্বাচিত ইউ সদস্য , তিনি ঐ এলাকার সর্বোচ্চ ব্যক্তি।    কিছু সংখ্যক অসাধু ব্যক্তি, চাপাবাজ, দালাল, যারা সকালে একটা বলে, বিকালে আরেকটা বলে ঐ সমস্ত মোনাফেকের লোকেরা প্রতি পক্ষ হাসানাতের সাথে আতাত করে একজন নির্দোশ ব্যক্তিকে, একজন  জন প্রতিনিধিকে মিথ্যা মামলা দিয়ে অপমানিত  করেছে, এ ষড়যন্ত্র কারীদের এবং  মিথ্যা মামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ সময় উপস্থিত থেকে বক্তব্যে রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমল হোসেন চৌধুরী, ইউপি মহিলা সদস্য তোলা মতি, মর্জিনা বেগম, তাহমিনা আক্তার নিপা,সাধারন ইউপি সদস্য শফিকুল আজম, গোলাম নবী খোকন,বোরহান মৌলভী, আঃ কাদের জিলানী, আঃহালিম সরকার, কাজী মোস্তাক, মনজুর আহমেদ, খোরশেদ আলম প্রমূখ।