ঢাকা ০৪:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কুমিল্লার দেবিদ্বার থানার পুলিশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারের অভিযোগ কুমিল্লার মুরাদনগরে চাঞ্চল্যকর সজিব হত্যার এক নাম্বার আসামি সাকিব আটক। চাক্তাই-খাতুনগঞ্জের চিহ্নিত চাঁদাবাজ ইউনুছ কেরানিকে গ্রেফতারের দাবিতে ট্রাক পরিবহণ শ্রমিকদের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম ছেংগারচর পৌর প্রশাসকের সাথে ব্যবসায়ী ও বণিক সমিতির সাথে মতবিনিময় মতলব উত্তরের রাঢ়ীকান্দি দারুচ্ছুন্নাত দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত দেশীয় শিল্প নিয়ে চক্রান্তের প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জে বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ বসুন্ধরা ডিজিটাল এ নতুন নাটক “মিডল ক্লাস লাভ স্টোরি” পটুয়াখালীতে হাসপাতালের শত শত খাবার স্যালাইন ডাষ্টবিনে,কুড়িয়ে নিলো আম জনতা। অটিস্টিক শিশুদের ডায়েট নিয়ে পুষ্টিবিদ সামিরা সুকৃতি “ সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মহামান্য শেখ খলীফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এর আত্মার মাগফেরাত কামনায় শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

ভোটগ্রহণ সামগ্রী যাচ্ছে নির্বাচনী এলাকায় আজ থেকে

ফাইল ছবি

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের প্রায় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ব্যালট বাদে এরই মধ্যে সবই প্রস্তুত হয়েছে। আজ শনিবার থেকে আঞ্চলিক পর্যায়ে পাঠানো হচ্ছে এসব ভোটগ্রহণ সামগ্রী।

প্রথম দিনে ৩২টি জেলায় এসব সামগ্রী পাঠানো হচ্ছে, রোববার যাবে বাকি জেলাগুলোয়। ইসির ক্রয় ও মুদ্রণ শাখার সহকারী সচিব সৈয়দ গোলাম রাশেদ বলেন, ব্যালট পেপার বাদে অন্য সব নির্বাচনী সামগ্রী আমরা শনিবার থেকে বিতরণ শুরু করব। সবার শেষে যাবে ব্যালট পেপার।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ভোটগ্রহণে যা যা প্রয়োজন, সব প্রস্তুত করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পরদিন ব্যালট মুদ্রণের জন্য পাঠানো হবে। ব্যালটে প্রার্থীদের নাম পৃথকভাবে উল্লেখ থাকবে। তাই এগুলো মুদ্রণে একটু সময় লাগবে। তবে ভোগ্রহণের সাত দিন আগে সেগুলো নির্বাচনী এলাকায় পাঠানো শুরু হবে।

ইসির সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মকর্তারা জানান, শনিবার সকাল থেকে রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ৩২ জেলায় ভোটের বিভিন্ন সামগ্রী পাঠানো হবে। এর মধ্যে রয়েছে প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসারসহ ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের পরিচয়পত্র, নির্দেশিকা, ফরম, প্যাকেট ইত্যাদি। এ ছাড়া স্টাম্পপ্যাড, অফিসিয়াল সিল, মার্কিং সিল, ব্রাশ সিল, লাল গালা, অমোচনীয় কালির কলম, হেসিয়ান বড় ব্যাগ, হেসিয়ান ছোট ব্যাগ, চার্জার লাইট, ক্যালকুলেটর, স্ট্যাপলার মেশিন ও স্টাপলার পিনও নির্বাচন ভবনের গোডাউন থেকে দুপুর ১টার মধ্যে পাঠানো হবে। আগামীকাল ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের ৩২ জেলায় একই সামগ্রী সরবরাহ করা হবে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, বর্তমানে তাদের কাছে পর্যাপ্ত স্বচ্ছ ব্যালটবাক্স রয়েছে। তাই নতুন করে এবার আর কেনার প্রয়োজন পড়বে না। কোনো এলাকায় প্রয়োজন হলে যেখানে বেশি আছে, সেখান থেকে সমন্বয় হবে।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লার দেবিদ্বার থানার পুলিশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারের অভিযোগ

ভোটগ্রহণ সামগ্রী যাচ্ছে নির্বাচনী এলাকায় আজ থেকে

আপডেট টাইম ০৯:৩৭:০৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৮

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক :   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের প্রায় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ব্যালট বাদে এরই মধ্যে সবই প্রস্তুত হয়েছে। আজ শনিবার থেকে আঞ্চলিক পর্যায়ে পাঠানো হচ্ছে এসব ভোটগ্রহণ সামগ্রী।

প্রথম দিনে ৩২টি জেলায় এসব সামগ্রী পাঠানো হচ্ছে, রোববার যাবে বাকি জেলাগুলোয়। ইসির ক্রয় ও মুদ্রণ শাখার সহকারী সচিব সৈয়দ গোলাম রাশেদ বলেন, ব্যালট পেপার বাদে অন্য সব নির্বাচনী সামগ্রী আমরা শনিবার থেকে বিতরণ শুরু করব। সবার শেষে যাবে ব্যালট পেপার।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ভোটগ্রহণে যা যা প্রয়োজন, সব প্রস্তুত করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পরদিন ব্যালট মুদ্রণের জন্য পাঠানো হবে। ব্যালটে প্রার্থীদের নাম পৃথকভাবে উল্লেখ থাকবে। তাই এগুলো মুদ্রণে একটু সময় লাগবে। তবে ভোগ্রহণের সাত দিন আগে সেগুলো নির্বাচনী এলাকায় পাঠানো শুরু হবে।

ইসির সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মকর্তারা জানান, শনিবার সকাল থেকে রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ৩২ জেলায় ভোটের বিভিন্ন সামগ্রী পাঠানো হবে। এর মধ্যে রয়েছে প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসারসহ ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের পরিচয়পত্র, নির্দেশিকা, ফরম, প্যাকেট ইত্যাদি। এ ছাড়া স্টাম্পপ্যাড, অফিসিয়াল সিল, মার্কিং সিল, ব্রাশ সিল, লাল গালা, অমোচনীয় কালির কলম, হেসিয়ান বড় ব্যাগ, হেসিয়ান ছোট ব্যাগ, চার্জার লাইট, ক্যালকুলেটর, স্ট্যাপলার মেশিন ও স্টাপলার পিনও নির্বাচন ভবনের গোডাউন থেকে দুপুর ১টার মধ্যে পাঠানো হবে। আগামীকাল ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের ৩২ জেলায় একই সামগ্রী সরবরাহ করা হবে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, বর্তমানে তাদের কাছে পর্যাপ্ত স্বচ্ছ ব্যালটবাক্স রয়েছে। তাই নতুন করে এবার আর কেনার প্রয়োজন পড়বে না। কোনো এলাকায় প্রয়োজন হলে যেখানে বেশি আছে, সেখান থেকে সমন্বয় হবে।