ঢাকা ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভালুকায় আমন ক্ষেতে পাতাপোড়া ও ছত্রাক আক্রমন

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :  ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পাতাপোড়া ও ছত্রাক রোগ দেখা দেয়ায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পরেছে। ক্ষেতের ধান হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। কৃষকরা বলতে পারছেননা কি কারনে ধানের এ অবস্থা হচ্ছে। অনেকেই ডিলারদের দোকান হতে কীটনাশক কিনে এনে দিচ্ছেন আক্রান্ত ক্ষেতে। হবিরবাড়ী ইউনিয়নের বারশ্রী গ্রামে গেলে কৃষক আবুল হোসেনের ছেলে মফিজ উদ্দীন, সীডষ্টোর বাজারের ডিলারের দোকান থেকে কীটনাশক এনে ক্ষেতে দিয়েছেন কোন ফল হয়নি। একই গ্রামের আফতাব উদ্দীন মকবুল হোসেন, নূরুল ইসলাম, আশ্রব আলী, আব্দুর রশীদের সহ অসংখ্য চাষীর ক্ষেতের সবুজ ধান গাছ হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। আবার চোখে পরে কিছু কিছু ছত্রাক আক্রান্ত ক্ষেতে ধান গাছ মরে শুকিয়ে যাচ্ছে। মল্লিকবাড়ী ইউনিয়নের ধামশুর গ্রামে গিয়ে দেখাযায় আমন ক্ষেতের দুরবস্থা। একুব আলী ফকিরের ছেলে নুর মোহাম্মদের ধান সব টুকই হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। ওই গ্রামের মানিক মিয়া জানান তিনি স্বর্ণলতা ও ব্রী-ধান-৪৯ জাত আমন আবাদ করেছেন, তার ক্ষেতেও এসব রোগ দেখা দিয়েছে। ধামশুর গ্রামের প্রায় সব গুলি আমন ক্ষেতের একই অবস্থা।

উপজেলার, কাঠালী, খারুয়ালী, বনগাঁও, হাতিবের, মেদুয়ারী, বনকূয়া, কাতলামারী,নারাঙ্গী,পাঁচগাও, উথুরা,মরচি, চামিয়াদী, পানিভান্ডা, ভান্ডাব, ভয়টাপাড়া, নয়নপুর, তামাট, কাচিনা, পাড়াগাঁও, গৌরিপুর, তালাব, রাজৈ, স্বজনগাঁও, নারাঙ্গী, টাসকাপাড়া সহ বিভিন্ন গ্রামে শত শত একর আমন ক্ষেত ছত্রাক ও পাতাপোড়ায় আক্রান্ত হয়েছে। উপজেলা কৃষি বিভাগের তথ্য মতে চলতি মৌসুমে ভালুকায় ১৯ হাজার ৫৮৫ হেক্টর জমিতে আমন আবাদের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদের সাথে মোবাইল ফোনে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান কোন কোন এলাকায় ধান সামান্য হলুদ হয়েছে তবে ব্যাপক আকারের কোন খবর তার জানা নেই, তারা খোজ নিবেন। ভালুকা উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার সব গ্রামের আনাচে কানাচে আমন ধানের আবাদ হয়েছে। চাষীদের দাবী সরেজমিনে এসে তাদের ক্ষেতের সমস্যা গুলি চিহ্নিত করে স্থায়ী সমাধানের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

ভালুকায় আমন ক্ষেতে পাতাপোড়া ও ছত্রাক আক্রমন

আপডেট টাইম ০১:০৯:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :  ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পাতাপোড়া ও ছত্রাক রোগ দেখা দেয়ায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পরেছে। ক্ষেতের ধান হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। কৃষকরা বলতে পারছেননা কি কারনে ধানের এ অবস্থা হচ্ছে। অনেকেই ডিলারদের দোকান হতে কীটনাশক কিনে এনে দিচ্ছেন আক্রান্ত ক্ষেতে। হবিরবাড়ী ইউনিয়নের বারশ্রী গ্রামে গেলে কৃষক আবুল হোসেনের ছেলে মফিজ উদ্দীন, সীডষ্টোর বাজারের ডিলারের দোকান থেকে কীটনাশক এনে ক্ষেতে দিয়েছেন কোন ফল হয়নি। একই গ্রামের আফতাব উদ্দীন মকবুল হোসেন, নূরুল ইসলাম, আশ্রব আলী, আব্দুর রশীদের সহ অসংখ্য চাষীর ক্ষেতের সবুজ ধান গাছ হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। আবার চোখে পরে কিছু কিছু ছত্রাক আক্রান্ত ক্ষেতে ধান গাছ মরে শুকিয়ে যাচ্ছে। মল্লিকবাড়ী ইউনিয়নের ধামশুর গ্রামে গিয়ে দেখাযায় আমন ক্ষেতের দুরবস্থা। একুব আলী ফকিরের ছেলে নুর মোহাম্মদের ধান সব টুকই হলুদ হয়ে মরে যাচ্ছে। ওই গ্রামের মানিক মিয়া জানান তিনি স্বর্ণলতা ও ব্রী-ধান-৪৯ জাত আমন আবাদ করেছেন, তার ক্ষেতেও এসব রোগ দেখা দিয়েছে। ধামশুর গ্রামের প্রায় সব গুলি আমন ক্ষেতের একই অবস্থা।

উপজেলার, কাঠালী, খারুয়ালী, বনগাঁও, হাতিবের, মেদুয়ারী, বনকূয়া, কাতলামারী,নারাঙ্গী,পাঁচগাও, উথুরা,মরচি, চামিয়াদী, পানিভান্ডা, ভান্ডাব, ভয়টাপাড়া, নয়নপুর, তামাট, কাচিনা, পাড়াগাঁও, গৌরিপুর, তালাব, রাজৈ, স্বজনগাঁও, নারাঙ্গী, টাসকাপাড়া সহ বিভিন্ন গ্রামে শত শত একর আমন ক্ষেত ছত্রাক ও পাতাপোড়ায় আক্রান্ত হয়েছে। উপজেলা কৃষি বিভাগের তথ্য মতে চলতি মৌসুমে ভালুকায় ১৯ হাজার ৫৮৫ হেক্টর জমিতে আমন আবাদের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদের সাথে মোবাইল ফোনে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান কোন কোন এলাকায় ধান সামান্য হলুদ হয়েছে তবে ব্যাপক আকারের কোন খবর তার জানা নেই, তারা খোজ নিবেন। ভালুকা উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার সব গ্রামের আনাচে কানাচে আমন ধানের আবাদ হয়েছে। চাষীদের দাবী সরেজমিনে এসে তাদের ক্ষেতের সমস্যা গুলি চিহ্নিত করে স্থায়ী সমাধানের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।