ঢাকা ০৪:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
জীবনযাত্রার মানউন্নয়নে ইন্দুরকানীর প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সেন্টার চালু কুমিল্লার দেবিদ্বার থানার পুলিশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারের অভিযোগ কুমিল্লার মুরাদনগরে চাঞ্চল্যকর সজিব হত্যার এক নাম্বার আসামি সাকিব আটক। চাক্তাই-খাতুনগঞ্জের চিহ্নিত চাঁদাবাজ ইউনুছ কেরানিকে গ্রেফতারের দাবিতে ট্রাক পরিবহণ শ্রমিকদের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম ছেংগারচর পৌর প্রশাসকের সাথে ব্যবসায়ী ও বণিক সমিতির সাথে মতবিনিময় মতলব উত্তরের রাঢ়ীকান্দি দারুচ্ছুন্নাত দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত দেশীয় শিল্প নিয়ে চক্রান্তের প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জে বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ বসুন্ধরা ডিজিটাল এ নতুন নাটক “মিডল ক্লাস লাভ স্টোরি” পটুয়াখালীতে হাসপাতালের শত শত খাবার স্যালাইন ডাষ্টবিনে,কুড়িয়ে নিলো আম জনতা। অটিস্টিক শিশুদের ডায়েট নিয়ে পুষ্টিবিদ সামিরা সুকৃতি “

ভারতে মানবাধিকারকর্মীদের গৃহবন্দিত্বের মেয়াদ বাড়ল

ভারতের কবি ভারভারা রাও, আইনজীবী সুধা ভরদ্বাজ, সাংবাদিক গৌতম নওলাখাসহ পাঁচ মানবাধিকারকর্মীর গৃহবন্দিত্বের মেয়াদ আরও বাড়ল। আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্ট জানান, ১৭ সেপ্টেম্বর এই মামলার শুনানি হবে। তত দিন পর্যন্ত মানবাধিকারকর্মীদের মহারাষ্ট্র পুলিশ তাদের হেফাজতে নিতে পারবে না। নিজেদের বাড়িতে যেমন তাঁরা গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছেন, তেমনই থাকবেন।

গত বছরের ১ জানুয়ারি মহারাষ্ট্রের ভীম-কোরেগাঁওয়ে দলিতদের সঙ্গে উচ্চবর্ণের যে সংঘর্ষ হয়েছিল, তার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ২৮ আগস্ট মহারাষ্ট্র পুলিশ এই পাঁচ মানবাধিকারকর্মীকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারির প্রতিবাদে ও ধৃত ব্যক্তিদের মুক্তির দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ রোমিলা থাপারসহ আরও অনেকে। সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদন গ্রাহ্য করে ধৃত ব্যক্তিদের গৃহবন্দী রাখার নির্দেশ দেন। মহারাষ্ট্র পুলিশ যেভাবে ধৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো প্রকাশ্যে জানিয়ে দেয়, আগের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট তারও সমালোচনা করেছিলেন। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি এ এম খানবিলকর ও বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় মহারাষ্ট্র পুলিশকে তিরস্কার করে বলেছিলেন, ভিন্নমত পোষণ ও বিক্ষোভ প্রদর্শন গণতন্ত্রের অঙ্গ। গণতন্ত্র যদি হয় প্রেশার কুকার, বিক্ষোভ তা হলে তার সেফটি ভালভ।
মহারাষ্ট্র পুলিশের দাবি, ধৃত ব্যক্তিরা নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। সুপ্রিম কোর্টকে তারা জানায়, ধৃত ব্যক্তিদের কাছ থেকে পাওয়া ল্যাপটপ, কম্পিউটার, পেন ড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড থেকে বোঝা যায়, তাঁরা শুধু মাওবাদী সংগঠনের সঙ্গেই সরাসরি যুক্ত নন, দেশে বড়সড় গোলমাল বাধানোই তাঁদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা তাঁদের লক্ষ্য। অতএব তদন্তের স্বার্থে তাঁদের পুলিশ হেফাজতে দেওয়া হোক।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জীবনযাত্রার মানউন্নয়নে ইন্দুরকানীর প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সেন্টার চালু

ভারতে মানবাধিকারকর্মীদের গৃহবন্দিত্বের মেয়াদ বাড়ল

আপডেট টাইম ১২:১৮:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভারতের কবি ভারভারা রাও, আইনজীবী সুধা ভরদ্বাজ, সাংবাদিক গৌতম নওলাখাসহ পাঁচ মানবাধিকারকর্মীর গৃহবন্দিত্বের মেয়াদ আরও বাড়ল। আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্ট জানান, ১৭ সেপ্টেম্বর এই মামলার শুনানি হবে। তত দিন পর্যন্ত মানবাধিকারকর্মীদের মহারাষ্ট্র পুলিশ তাদের হেফাজতে নিতে পারবে না। নিজেদের বাড়িতে যেমন তাঁরা গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছেন, তেমনই থাকবেন।

গত বছরের ১ জানুয়ারি মহারাষ্ট্রের ভীম-কোরেগাঁওয়ে দলিতদের সঙ্গে উচ্চবর্ণের যে সংঘর্ষ হয়েছিল, তার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ২৮ আগস্ট মহারাষ্ট্র পুলিশ এই পাঁচ মানবাধিকারকর্মীকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারির প্রতিবাদে ও ধৃত ব্যক্তিদের মুক্তির দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ রোমিলা থাপারসহ আরও অনেকে। সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদন গ্রাহ্য করে ধৃত ব্যক্তিদের গৃহবন্দী রাখার নির্দেশ দেন। মহারাষ্ট্র পুলিশ যেভাবে ধৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো প্রকাশ্যে জানিয়ে দেয়, আগের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট তারও সমালোচনা করেছিলেন। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি এ এম খানবিলকর ও বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় মহারাষ্ট্র পুলিশকে তিরস্কার করে বলেছিলেন, ভিন্নমত পোষণ ও বিক্ষোভ প্রদর্শন গণতন্ত্রের অঙ্গ। গণতন্ত্র যদি হয় প্রেশার কুকার, বিক্ষোভ তা হলে তার সেফটি ভালভ।
মহারাষ্ট্র পুলিশের দাবি, ধৃত ব্যক্তিরা নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। সুপ্রিম কোর্টকে তারা জানায়, ধৃত ব্যক্তিদের কাছ থেকে পাওয়া ল্যাপটপ, কম্পিউটার, পেন ড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড থেকে বোঝা যায়, তাঁরা শুধু মাওবাদী সংগঠনের সঙ্গেই সরাসরি যুক্ত নন, দেশে বড়সড় গোলমাল বাধানোই তাঁদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা তাঁদের লক্ষ্য। অতএব তদন্তের স্বার্থে তাঁদের পুলিশ হেফাজতে দেওয়া হোক।