রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

বিদায় ২০১৮, স্বাগত ২০১৯

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  পুরনো বছরের সকল জরা-জীর্ণতাকে পেছনে ফেলে পশ্চিম আকাশে মিলে গেল বছরের শেষ সূর্য। এরই সঙ্গে শুরু হলো নতুনের আবাহন। কুয়াশাচ্ছন্ন শীতের সন্ধ্যা থেকেই শুরু হয়েছে বিশ্বজুড়ে নতুন বছরকে বরণের আয়োজন। নগরীর পাড়া-মহল্লায় এখন হৈ-হুল্লোড়, উৎসবের আলোক রঙ।

এদিকে এবারের ‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ উদযাপনে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও বাড়তি আনন্দে ভাসবে গোটা দেশ। ইংরেজি নতুন বছর হওয়ায় তুলনামূলক নগরেই আনন্দের রেশটা বেশি।

ঘড়ির কাঁটায় রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের আগেই নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে মেতেছে গোটা বিশ্ব। বাংলাদেশের তরুণ-যুবকেরা মেতেছে উৎসবে। থার্টি ফার্স্ট উদযাপনে কড়াকড়ি থাকলেও বাধা মানতে নারাজ নগরবাসী।

সন্ধ্যার পর থেকে থেমে থেমে পটকা-আতশবাজি কুয়াশাচ্ছন্ন ঢাকার আকাশকে করে তুলেছে মোহনীয়। আর তার আগেই ভার্চুয়াল জগৎ ছাড়াও কার্ড, মোবাইলে এসএমএসে শুভেচ্ছা বিনিময়ে প্রিয়জনদের কাছে নতুন বছরের বার্তা পাঠাচ্ছেন সবাই।

২০১৯ সাল বাংলাদেশের মানুষের জন্য কিছুটা আলাদা। কারণ ২০১৮ এর একেবারে শেষ দিকে হয়ে গেল দেশটির একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনের বেসরকারি ফল পাওয়া গেছে ৩১ ডিসেম্বর। অর্থাৎ নতুন বছরের প্রথম মাসেই সরকার গঠন করবে নতুন সরকার।

বছরের শেষ দিনগুলো নির্বাচনী উত্তাপে পার করেছে বাংলাদেশ। থার্টি ফার্স্ট নাইটের আগ মুহূর্তে ৩০ ডিসেম্বর হয়ে গেল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই ভোটে জয়ী হয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ।

আর এর মধ্য দিয়েই নতুন ভিশনে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। যা দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে একটি নতুন অধ্যায়ও বটে।

নতুন বছর উপলক্ষে আলাদা বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তারা ইংরেজি নতুন বছর উপলক্ষে দেশবাসী, প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar