ঢাকা ০১:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
১৩১ বছরেও ময়লা ফেলার স্থান ঠিক করতে পারেনি পৌরসভা। লোহাগড়ায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে বিয়ে, স্ত্রীর মর্যাদা দাবী করায় নির্যাতন অতপর: থানায় মামলা নবীনগর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২৩ অনুষ্ঠিত কুমিল্লার মুরাদনগরে গরিব দুঃস্থদের মাঝে কম্বল তুলে দেন, ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মংলা সমুদ্র বন্দরে পৌঁছেছে রাশিয়ার দুটি জাহাজ আনোয়ারায় ডাকাত গ্রেফতার নড়াইলে স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে কলেজ অধ্যক্ষের অফিসে এক নারী লোহাগড়ায় মায়ের পরকিয়ায় ভালো নেই শিশু আরিয়ান শ্যামপুরের কহিনুর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন।

‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ ডাকাত নিহত

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি :  কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশ ও মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ফরিদ আলম ওরফে ডাকাত আলম (৪০) নিহত হয়েছেন। আজ রবিবার ভোরে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ নেঙ্গুরবিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।  আহতরা হলেন, এসআই ওহিদ, কনস্টেবল রুবেল শর্মা ও সেকান্দার।

ওসি প্রদীপ কুমার দাস বলেন, ডাকাত আলমের বাড়ি দক্ষিণ নেঙ্গুরবিল গ্রামে। তার বিরুদ্ধে দুইটি ইয়াবা, দুইটি অস্ত্রসহ ছয়টি মামলা রয়েছে। তিনি তালিকাভুক্ত শীর্ষ ডাকাত ও মাদক ব্যবসায়ী এবং রোহিঙ্গা ডাকাত আবুল হাকিমের সহযোগী।  ঘটনাস্থল থেকে ১টি বন্দুক, ৫ রাউন্ড গুলি ও ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।  লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

১৩১ বছরেও ময়লা ফেলার স্থান ঠিক করতে পারেনি পৌরসভা।

‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ ডাকাত নিহত

আপডেট টাইম ০৪:০২:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি :  কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশ ও মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ফরিদ আলম ওরফে ডাকাত আলম (৪০) নিহত হয়েছেন। আজ রবিবার ভোরে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ নেঙ্গুরবিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।  আহতরা হলেন, এসআই ওহিদ, কনস্টেবল রুবেল শর্মা ও সেকান্দার।

ওসি প্রদীপ কুমার দাস বলেন, ডাকাত আলমের বাড়ি দক্ষিণ নেঙ্গুরবিল গ্রামে। তার বিরুদ্ধে দুইটি ইয়াবা, দুইটি অস্ত্রসহ ছয়টি মামলা রয়েছে। তিনি তালিকাভুক্ত শীর্ষ ডাকাত ও মাদক ব্যবসায়ী এবং রোহিঙ্গা ডাকাত আবুল হাকিমের সহযোগী।  ঘটনাস্থল থেকে ১টি বন্দুক, ৫ রাউন্ড গুলি ও ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।  লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।