ঢাকা ০৩:০২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পবিপ্রবিতে ‘‘চ্যালেঞ্জ এন্ড অপরচুনিটিজ অফ এগ্রিকালচার ইন কোস্টাল এরিয়া অব বাংলাদেশ’’ বিষয়ক ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত কুলাউড়ায় বন্যার্তদের এক লক্ষ টাকা দিলো ব্যাচ ২০০২-০৪। নেএকোনায় , চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এর উদ্যোগে বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ বিতরণ। দালাল বাজার ফাতেমা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জে চলছে পোনা মাছ ধরা ও বিক্রির মহোৎসব দেখার যেন কেউ নেই। মতলব উত্তরে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠান উদযাপন টাঙ্গাইলে সড়ক দূর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মৃত্যু সোনারগাঁয়ে ভুমি কর্মকর্তার যোগসাজসে সরকারী জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ নড়াইলে বালু বোঝাই ট্রলিগাড়ির চাপায় মাদ্রাসা ছাত্র নিহত কুমিল্লার বাঙ্গরা বাজার থানায় ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণে চেষ্টা, গ্রেফতার এক

ফেসবুকের হাত না ধরলে গণমাধ্যমকে পথে বসতে হবে!

‘ডিজিটাল স্বৈরশাসক’ ফেসবুকের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ফেসবুকের হাত না ধরলে গণমাধ্যমকে রুগ্‌ণ দশায় পড়তে হবে বলে হুমকি দিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির নিউজ পার্টনারশিপ বিভাগের বৈশ্বিক প্রধান ক্যাম্পবেল ব্রাউন। অস্ট্রেলিয়ার একদল মিডিয়া নির্বাহীর সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ হুমকি দেন।

ক্যাম্পবেল সংবাদপত্রের নির্বাহীদের বলেছেন, ফেসবুক তাঁদের ব্যবসাকে শেষ করে দেবে। তাঁদের জায়গা হবে অনাথাশ্রমে।

ফেসবুকের নিজস্ব কোনো কনটেন্ট নেই। ফেসবুক অনেক দেশে কোনো কর দেয় না। অথচ ফেসবুক আর গুগল মিলে অনলাইন বিজ্ঞাপন বাজারের বিশাল একটি অংশ কুক্ষিগত করে রেখেছে।

ক্যাম্পবেল ব্রাউন বলেন, ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ খবর প্রকাশকদের কোনো গুরুত্ব দেন না।

দ্য অস্ট্রেলিয়ান তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, ব্রাউনের সঙ্গে চার ঘণ্টার বেশি রুদ্ধদার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ফেসবুক কর্মকর্তার ওই হুমকির বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমে আলোচনা শুরু হলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ একটি পৃথক বিবৃতি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ওই কর্মকর্তার বক্তব্য গণমাধ্যম ঠিক প্রেক্ষাপটে তুলে ধরেনি। তিনি বলেন, ‘আমরা সাংবাদিকতা পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করব। কয়েক বছরের মধ্যে বিপরীত দৃশ্য দেখা যাবে। আপনাদের রুগ্‌ণ ব্যবসায় আমরা হাত ধরছি।’

অবশ্য ওই বৈঠকে উপস্থিত চারজন সূত্র মন্তব্য করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ভুয়া খবর ঠেকাতে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে সমালোচনার মুখে পড়েছে। এখন তারা বলছে, ভুয়া খবর ঠেকানো তাদের দায়িত্ব নয়।

ব্রাউন বলেন, ‘আমরা জানি, আমাদের অনেক কিছু করার আছে। ফেসবুকে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে, আমাদের টিম বিশ্বের অনেক প্রকাশক ও প্রতিবেদকের সঙ্গে কাজ করছে এবং সাংবাদিকতা সফল ও পুনরুজ্জীবিত করতে আমাদের প্ল্যাটফর্ম ও এর বাইরে কাজ করছে। টেকসই ব্যবসার মডেল তৈরিতে নতুন করে লক্ষ্য নির্ধারণ ও সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’ তথ্যসূত্র: দ্য হুইগ ডটকম।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

পবিপ্রবিতে ‘‘চ্যালেঞ্জ এন্ড অপরচুনিটিজ অফ এগ্রিকালচার ইন কোস্টাল এরিয়া অব বাংলাদেশ’’ বিষয়ক ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত

ফেসবুকের হাত না ধরলে গণমাধ্যমকে পথে বসতে হবে!

আপডেট টাইম ০৫:১২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮

‘ডিজিটাল স্বৈরশাসক’ ফেসবুকের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ফেসবুকের হাত না ধরলে গণমাধ্যমকে রুগ্‌ণ দশায় পড়তে হবে বলে হুমকি দিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির নিউজ পার্টনারশিপ বিভাগের বৈশ্বিক প্রধান ক্যাম্পবেল ব্রাউন। অস্ট্রেলিয়ার একদল মিডিয়া নির্বাহীর সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ হুমকি দেন।

ক্যাম্পবেল সংবাদপত্রের নির্বাহীদের বলেছেন, ফেসবুক তাঁদের ব্যবসাকে শেষ করে দেবে। তাঁদের জায়গা হবে অনাথাশ্রমে।

ফেসবুকের নিজস্ব কোনো কনটেন্ট নেই। ফেসবুক অনেক দেশে কোনো কর দেয় না। অথচ ফেসবুক আর গুগল মিলে অনলাইন বিজ্ঞাপন বাজারের বিশাল একটি অংশ কুক্ষিগত করে রেখেছে।

ক্যাম্পবেল ব্রাউন বলেন, ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ খবর প্রকাশকদের কোনো গুরুত্ব দেন না।

দ্য অস্ট্রেলিয়ান তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, ব্রাউনের সঙ্গে চার ঘণ্টার বেশি রুদ্ধদার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ফেসবুক কর্মকর্তার ওই হুমকির বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমে আলোচনা শুরু হলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ একটি পৃথক বিবৃতি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ওই কর্মকর্তার বক্তব্য গণমাধ্যম ঠিক প্রেক্ষাপটে তুলে ধরেনি। তিনি বলেন, ‘আমরা সাংবাদিকতা পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করব। কয়েক বছরের মধ্যে বিপরীত দৃশ্য দেখা যাবে। আপনাদের রুগ্‌ণ ব্যবসায় আমরা হাত ধরছি।’

অবশ্য ওই বৈঠকে উপস্থিত চারজন সূত্র মন্তব্য করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ভুয়া খবর ঠেকাতে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে সমালোচনার মুখে পড়েছে। এখন তারা বলছে, ভুয়া খবর ঠেকানো তাদের দায়িত্ব নয়।

ব্রাউন বলেন, ‘আমরা জানি, আমাদের অনেক কিছু করার আছে। ফেসবুকে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে, আমাদের টিম বিশ্বের অনেক প্রকাশক ও প্রতিবেদকের সঙ্গে কাজ করছে এবং সাংবাদিকতা সফল ও পুনরুজ্জীবিত করতে আমাদের প্ল্যাটফর্ম ও এর বাইরে কাজ করছে। টেকসই ব্যবসার মডেল তৈরিতে নতুন করে লক্ষ্য নির্ধারণ ও সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’ তথ্যসূত্র: দ্য হুইগ ডটকম।