ঢাকা ০৯:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নবীনগরে ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনে চোখের পলকে বাস্তুহারা ৩০ পরিবার, ইউএনওর সহায়তা- নিয়ামতপুরে ইউনিয়ন ছাত্র লীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত। হারিয়ে যাওয়া ল্যাপটপ, নগদ ৫০ হাজার টাকা (সিএমপি) চকবাজার থানার পুলিশের সহায়তায় ফিরে পেয়ে আবেগ আপ্লুত, ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী ফরহাদ, আনোয়ারার প্রান্তে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল দেখতে পর্যটকের ভিড় দেখা হলনা হাট পথেই মৃত্যু বেপারীর বিশিষ্ট সাংবাদিক মো. সাইফুল ইসলাম রণি’র ৩৮ তম জন্মদিন আজ ইউএসটিসি ছাত্রদলের ৫ সদস্যের আহবায়ক কমিটির ৩ সদস্যের পদত্যাগ। পবিপ্রবিতে নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনায় উৎপাদিত তেলাপিয়া ও পাঙ্গাস মাছের নিলাম অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন লক্ষ্মীপুরে পুলিশের নায়েক থেকে সহকারী উপ পরিদর্শক হলেন ৬ জন

পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে মিঠুনের ছেলের বিয়ে

শেষ পর্যন্ত বলিউড তারকা মিঠুন চক্রবর্তী আর যোগিতা বালির বড় ছেলে মিমোর বিয়ে হলো মাদালসা শর্মার সঙ্গে। তবে এবার আগে থেকে তাঁদের বিয়ের ব্যাপারে কোনো ঘোষণা দেওয়া হয়নি। অনেকটা গোপনেই আজ মঙ্গলবার দীর্ঘদিনের বান্ধবী মাদালসার সঙ্গেই সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন মিমো। এরপর টুইটারে তাঁদের বিয়ের ছবি পোস্ট করা হয়।

মিমো আর মাদালসা শর্মার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল গত শনিবার রাতে, ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের নীলগিরি জেলার উটির বিলাসবহুল এক হোটেলে। আর সেই হোটেলের মালিক মিঠুন চক্রবর্তী নিজেই। এখানেই আয়োজন করা হয় মিমোর বিয়ের অনুষ্ঠান। নির্ধারিত সময়ে হোটেলে চলে আসে বরপক্ষ আর কনেপক্ষ। কিন্তু বিয়েটা আর হয়নি। পুলিশ এসে হানা দেয় হোটেলে। এরপর কনেকে নিয়ে হোটেল থেকে চলে যায় কনেপক্ষ। তখন সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়, মিমোর বিয়ে ভেঙে গেছে।

এখন জানা গেছে, সেদিন বিয়ে মোটেও ভেঙে যায়নি। রেজিস্ট্রি হয়ে গিয়েছিল। বিয়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠানও পালন হয়েছে। আর আজ বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই পরিবার থেকেই অতিথিদের তালিকা ছোট করা হয়। আজ বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুই পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ ও ঘনিষ্ঠজনেরা। আর এই বিয়ের ব্যাপারে পুলিশ কিছুই জানতে পারেনি।

শনিবার বিয়ে সম্পন্ন করার জন্য সেদিন সকালে দিল্লি হাইকোর্ট থেকে মিমো আর তাঁর মা যোগিতা বালি জামিন নেন। এর আগে বোম্বে হাইকোর্টে মিমোর জামিনের আবেদন করা হয়। কিন্তু বোম্বে হাইকোর্ট এই জামিনের আবেদন দিল্লি হাইকোর্টে করার আদেশ দেন।

৭ জুলাই যে মিমো চক্রবর্তীর বিয়ে হবে, তা আগেই চূড়ান্ত করা হয়। কিন্তু এর আগেই ঘটে যায় দুঃখজনক ঘটনা। মিমোর সাবেক প্রেমিকা তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। এই নারীর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মিমো তাঁকে ধর্ষণ করেছেন। ২০১৫ সাল থেকে মিমোর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মিমো চক্রবর্তীর পুরো নাম মহাক্ষয় চক্রবর্তী।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নবীনগরে ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনে চোখের পলকে বাস্তুহারা ৩০ পরিবার, ইউএনওর সহায়তা-

পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে মিঠুনের ছেলের বিয়ে

আপডেট টাইম ০১:১৩:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ জুলাই ২০১৮

শেষ পর্যন্ত বলিউড তারকা মিঠুন চক্রবর্তী আর যোগিতা বালির বড় ছেলে মিমোর বিয়ে হলো মাদালসা শর্মার সঙ্গে। তবে এবার আগে থেকে তাঁদের বিয়ের ব্যাপারে কোনো ঘোষণা দেওয়া হয়নি। অনেকটা গোপনেই আজ মঙ্গলবার দীর্ঘদিনের বান্ধবী মাদালসার সঙ্গেই সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন মিমো। এরপর টুইটারে তাঁদের বিয়ের ছবি পোস্ট করা হয়।

মিমো আর মাদালসা শর্মার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল গত শনিবার রাতে, ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের নীলগিরি জেলার উটির বিলাসবহুল এক হোটেলে। আর সেই হোটেলের মালিক মিঠুন চক্রবর্তী নিজেই। এখানেই আয়োজন করা হয় মিমোর বিয়ের অনুষ্ঠান। নির্ধারিত সময়ে হোটেলে চলে আসে বরপক্ষ আর কনেপক্ষ। কিন্তু বিয়েটা আর হয়নি। পুলিশ এসে হানা দেয় হোটেলে। এরপর কনেকে নিয়ে হোটেল থেকে চলে যায় কনেপক্ষ। তখন সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়, মিমোর বিয়ে ভেঙে গেছে।

এখন জানা গেছে, সেদিন বিয়ে মোটেও ভেঙে যায়নি। রেজিস্ট্রি হয়ে গিয়েছিল। বিয়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠানও পালন হয়েছে। আর আজ বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই পরিবার থেকেই অতিথিদের তালিকা ছোট করা হয়। আজ বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুই পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ ও ঘনিষ্ঠজনেরা। আর এই বিয়ের ব্যাপারে পুলিশ কিছুই জানতে পারেনি।

শনিবার বিয়ে সম্পন্ন করার জন্য সেদিন সকালে দিল্লি হাইকোর্ট থেকে মিমো আর তাঁর মা যোগিতা বালি জামিন নেন। এর আগে বোম্বে হাইকোর্টে মিমোর জামিনের আবেদন করা হয়। কিন্তু বোম্বে হাইকোর্ট এই জামিনের আবেদন দিল্লি হাইকোর্টে করার আদেশ দেন।

৭ জুলাই যে মিমো চক্রবর্তীর বিয়ে হবে, তা আগেই চূড়ান্ত করা হয়। কিন্তু এর আগেই ঘটে যায় দুঃখজনক ঘটনা। মিমোর সাবেক প্রেমিকা তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। এই নারীর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মিমো তাঁকে ধর্ষণ করেছেন। ২০১৫ সাল থেকে মিমোর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মিমো চক্রবর্তীর পুরো নাম মহাক্ষয় চক্রবর্তী।