ঢাকা ০৩:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কুষ্টিয়ায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালন প্রতিবন্ধীকতাকে জয় করে অনেকেই সফলতা লাভ করেছেন ……ডিসি মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সম্ভাবনাময় পর্যটন স্পট চর হেয়ার ও সোনারচর। ২ জন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন টঙ্গী পূর্ব এবং পশ্চিম থানা । সম্মেলনের নামে আওয়ামী লীগকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই,,,,,,, ফারুক খান।। বিএনপি- জামায়াতের নৈরাজ্য ঠেকাতে প্রস্তুত আছি- আসিফ আহম্মেদ আনিস মালদ্বীপে আলোকিত চাঁদপুর সংগঠনের সংবর্ধনায় কাজী হাবিবুর রহমান লাঠি খেলা উৎসব ২০২২ উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলন পুলিশের মবিলাইজেশন কন্টিনজেন্টের বার্ষিক মহড়ার উদ্বোধন কমলগঞ্জে দোকানে চুরি, ১১ চোরাই মোবাইলসহ গ্রেফতার ১ বাকেরগঞ্জে পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেপ্তার-৩

পশ্চিমবঙ্গে বাস-লরির সংঘর্ষে নিহত ৮

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ভারতের পশ্চিমবঙ্গে চন্দ্রকোণার খেঁজুরডাঙা এলাকায় বাস ও লরির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৮ জন। বেশ কয়েকজন আহতও হয়েছেন। তবে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

একই ঘটনা আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, প্রায়ই ওই রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটে। তারপরেও প্রশাসনের তরফ থেকে কোনও ব্যবস্থাই নেওয়া হচ্ছে না।

স্থানীয় পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সকালে খেঁজুরডাঙার দিকে যাচ্ছিল একটি বাস। সেই সময়ই উল্টোদিক থেকে আসা একটি লরির সঙ্গে বাসটির সংঘর্ষ ঘটে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায় বাসটি। এতে বাসের ভেতরে থাকা যাত্রীরা আহত হয়েছে। দুর্ঘটনার সময় বাসটিতে কমপক্ষে ৩০ জন যাত্রী ছিল।

প্রাথমিক তদন্তে বলা হচ্ছে, বাসের গতি বেশি থাকায় এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। তবে কারও কারও দাবি, কুয়াশার কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

কুষ্টিয়ায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালন প্রতিবন্ধীকতাকে জয় করে অনেকেই সফলতা লাভ করেছেন ……ডিসি মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম

পশ্চিমবঙ্গে বাস-লরির সংঘর্ষে নিহত ৮

আপডেট টাইম ০৫:৫০:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ভারতের পশ্চিমবঙ্গে চন্দ্রকোণার খেঁজুরডাঙা এলাকায় বাস ও লরির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৮ জন। বেশ কয়েকজন আহতও হয়েছেন। তবে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

একই ঘটনা আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, প্রায়ই ওই রাস্তায় দুর্ঘটনা ঘটে। তারপরেও প্রশাসনের তরফ থেকে কোনও ব্যবস্থাই নেওয়া হচ্ছে না।

স্থানীয় পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সকালে খেঁজুরডাঙার দিকে যাচ্ছিল একটি বাস। সেই সময়ই উল্টোদিক থেকে আসা একটি লরির সঙ্গে বাসটির সংঘর্ষ ঘটে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায় বাসটি। এতে বাসের ভেতরে থাকা যাত্রীরা আহত হয়েছে। দুর্ঘটনার সময় বাসটিতে কমপক্ষে ৩০ জন যাত্রী ছিল।

প্রাথমিক তদন্তে বলা হচ্ছে, বাসের গতি বেশি থাকায় এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। তবে কারও কারও দাবি, কুয়াশার কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।