ঢাকা ০৪:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
এইচ এস সি পরীক্ষায় এবার ছেলেদের তুলনায় মেয়েরাই জিপিএ-৫ পেয়েছে বেশি প্রশিক্ষণকালীন দূর্ঘটনায় ক্যাডেট সালমানের মৃত্যু। নগরীতে ১০ লাখ মানুষের জন্য ৬টি গণশৌচাগার উপকূলজুড়ে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব অকল্পনীয় : তথ্যমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ অফিসার্স ফোরামের নতুন কমিটি ঘোষণা চট্টগ্রাম চেতনার পুর্নজাগরন একুশে বইমেলার আয়োজন: মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী গজারিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন ঘিরে আমিরুল ইসলাম কে নিয়ে তৃনমুলে উৎসাহ উদ্দীপনা পটুয়াখালীতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত। নড়াইলে প্রতিবন্ধী শিশুদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত এই শীতে গুড় বিক্রি করে সফল উদ্যোক্তা নারী মিষ্টি আপা খ্যাত রাজশাহীর মেয়ে দিলারা জেসমিন

‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের’ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ এখানে দেশের রেল খাতের নতুন দিগন্ত উন্মোচনে যুগান্তকারী ‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন।
প্রধানমন্ত্রী সেতুর মাওয়া প্রান্তে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে ‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ আওতায় ঢাকা ও যশোরের মধ্যে রেল সংযোগের যুগান্তকারী এই নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।
রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক রেল সংযোগ প্রকল্পের মডেল সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন।
মন্ত্রীবর্গ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, সেনাবাহিনী প্রধান, সিনিয়র আওয়ামী লীগ নেতা, পদ্মাসেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, উর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক র্কমকর্তাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
দেশের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও উন্নয়নের পাশাপাশি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৫ আগস্টের হত্যাযজ্ঞে শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
রেলওয়ে মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এই প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে পদ্মা বহুমুখী সেতু দিয়ে জাজিরা ও শিবচর হয়ে মাওয়া ও ভাঙার মধ্যে রেল সংযোগ স্থাপিত হবে।
এর মাধ্যমে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, নড়াইল ও যশোরের মধ্যে সংযোগ স্থাপিত হবে।
চীন সরকার মনোনিত নির্মাতা প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লি. চীন জিটুজি ব্যবস্থায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এ খাতে চীনের এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে ২৬৬৭ দশমিক ৯৪ মিলিয়ন ডলারের একটি ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২৩ কিলোমিটার এলিভেটেড রেলপথ নির্মিত হবে। এতে একাধিক এলিভেটরসহ দুটি প্লাটফর্ম, একটি মেইন লাইন ও দুটি লুপ লাইন নির্মাণ করা হবে।
দেশের আস্থার প্রতীক বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বুয়েট) এই প্রকল্পে পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

এইচ এস সি পরীক্ষায় এবার ছেলেদের তুলনায় মেয়েরাই জিপিএ-৫ পেয়েছে বেশি

‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের’ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

আপডেট টাইম ০৯:১০:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ এখানে দেশের রেল খাতের নতুন দিগন্ত উন্মোচনে যুগান্তকারী ‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ উদ্বোধন করেছেন।
প্রধানমন্ত্রী সেতুর মাওয়া প্রান্তে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে ‘পদ্মাসেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের’ আওতায় ঢাকা ও যশোরের মধ্যে রেল সংযোগের যুগান্তকারী এই নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।
রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক রেল সংযোগ প্রকল্পের মডেল সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন।
মন্ত্রীবর্গ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, সেনাবাহিনী প্রধান, সিনিয়র আওয়ামী লীগ নেতা, পদ্মাসেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, উর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক র্কমকর্তাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
দেশের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও উন্নয়নের পাশাপাশি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৫ আগস্টের হত্যাযজ্ঞে শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
রেলওয়ে মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এই প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে পদ্মা বহুমুখী সেতু দিয়ে জাজিরা ও শিবচর হয়ে মাওয়া ও ভাঙার মধ্যে রেল সংযোগ স্থাপিত হবে।
এর মাধ্যমে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, নড়াইল ও যশোরের মধ্যে সংযোগ স্থাপিত হবে।
চীন সরকার মনোনিত নির্মাতা প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লি. চীন জিটুজি ব্যবস্থায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এ খাতে চীনের এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে ২৬৬৭ দশমিক ৯৪ মিলিয়ন ডলারের একটি ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২৩ কিলোমিটার এলিভেটেড রেলপথ নির্মিত হবে। এতে একাধিক এলিভেটরসহ দুটি প্লাটফর্ম, একটি মেইন লাইন ও দুটি লুপ লাইন নির্মাণ করা হবে।
দেশের আস্থার প্রতীক বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বুয়েট) এই প্রকল্পে পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে।