শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:০২ পূর্বাহ্ন

নৌকার বিজয়ী প্রার্থীকে এলাকা ছাড়ার হুমকি*বিদ্রোহী চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে হামলায় আহত-৩

মনির খাঁন স্টাফ রিপোর্টার।

কুমিল্লার হোমনা উপজেলার চান্দেরচর ইউনিয়নে নৌকার বিজয়ী প্রার্থী মোজাম্মেল হককে দ্রুত এলাকা ছাড়ার হুমকি দিয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী এবং বর্তমান প্রভাবশালী চেয়ারম্যান আবুল বাশার মোল্লাসহ সমর্থকরা।
সদ্য সমাপ্ত তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে প্রভাবশালী ওই চেয়ারম্যান ভোটে জয়ী হতে না পেরে বিজয়ী প্রার্থী মোজাম্মেলকে এ হুমকি প্রদান করেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।
এদিকে ২৮ নভেম্বর রোববার নির্বাচন চলাকালে ওই ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর কামাল স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল বাশার মোল্লার নেতৃত্বে ৪০/৫০ জন নৌকা সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। এতে বেশ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়। তাদের মধ্যে আমিরুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন ও সিরাজুল ইসলামের অবস্থা আশঙ্কা জনক বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় সামছুল হক ওরফে অরুন মেম্বার বাদী হয়ে মঙ্গলবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

চান্দেরচর ইউপির সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক অভিযোগ করে বলেন, আমাকে নির্বাচনে পরাজিত করতে তথা নৌকার ভরাডুবি ঘটাতে এই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল বাশার মোল্লা আনারস প্রতিকে এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সরকার ঘোড়া প্রতিকে নির্বাচন করেছেন। কিন্তু প্রশাসনের শক্ত অবস্থানের কারণে তারা কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার কিংবা ভোট কারচুপি করতে পারেনি। এতে ক্ষুব্দ হয়ে প্রভাবশালী আবুল বাশার মোল্লা এবং তার সমর্থকরা আমাকে এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য হুমকি ধমকি প্রদান করছে।
অন্যথায় তারা আগামী এক মাসের মধ্যে আমাকে প্রানে মেরে ফেলবে বলেও হুমকি প্রদান করে। আমি বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করেছি। তিনি বলেন, আমি সন্ত্রাস, দাঙ্গাবাজী করি না এবং এসবে বিশ্বাসী না, তাই চান্দেরচরের সাধারন জনগন আমাকে ভালবেসে ভোট দিয়ে তাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছে। কিন্তু প্রভাবশালী বাশার চেয়ারম্যান গংরা তা মেনে নিতে পারছে না। এ নিয়ে আমাকে হুমকি ধমকিসহ আমার কর্মী সমর্থকদেরকে দফায় দফায় হামলা মারধর করে যাচ্ছে।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান আবুল বাশার মোল্লা বলেন, এসব আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার। কোথায় ঝগড়া মারামারি হয়েছে আমি জানি না, কিন্তু তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে। আমি মোজাম্মেল হককে কোন হুমকি ধমকি দেইনি।

এ বিষয়ে হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, নির্বাচনের দিন চান্দেরচর ইউনিয়নে মারামারির ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি, আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
তারিখ :- ৩০-১১-২১ ইং

নিউজটি শেয়ার করুন



সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar