রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন

নোয়াখালীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল আত্মসাৎ করার অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :  নোয়াখালীতে সরকারের ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’র ১০ টাকা কেজি দরের চাল হতদরিদ্রদের না দিয়ে ডিলাররা আত্মসাৎ করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। জেলার সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মার্কেটে নিয়োগপ্রাপ্ত ডিলার সিরাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে চাল আত্মসাৎ এর অভিযোগ এনে সুধারাম থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’র কার্ডধারী (কার্ড নং-১৩১৬) হতদরিদ্র মুহাম্মদ মফিজ উল্যা। হতদরিদ্র মুহাম্মদ মফিজ উল্যা অভিযোগ করে বলেন সরকারের ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’র ১০ টাকা কেজি দরের চাল পেতে তিনি ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে কার্ডধারী হিসেবে অন্তভূক্ত হন। ওই মাসেই তিনি ডিলারের কাছ থেকে এই চাল সংগ্রহ করেন। এরপর ডিলার সিরাজ উদ্দিন নানা অযুহাত দেখিয়ে তাকে আর চাল প্রদান করেননি। তিনি বলেন ডিলার সিরাজ উদ্দিন হতদরিদ্র কার্ডধারী ব্যক্তিদের চাল না দিয়ে ওই চাল আত্মসাৎ করে মুদি দোকানদারদের কাছে বিক্রি করে দেন। এতে স্থানীয় বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠি সরকারের এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে শান্তিরহাট বাজার সংলগ্ন সিরাজ মাঝির খালাত ভাই মো. করিম এর বাড়িতে ওই সরকারি চালের ৫৮ বস্তা চাল স্থানীয়রা ঘেরাও করে রাখে। পরে স্থানীয় প্রভাবশালীরা লোকজনকে ধাওয়া করে চালগুলো সরিয়ে নেয়। আন্ডারচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী হায়দার বকসি জানান চাল আত্মসাৎ এর বিষয়টি স্থানীয়রা তাকে জানানোর পর তিনি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করেছেন তিনি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুল ইসলাম সরদার জানান চাল আত্মসাৎকারী ওই ডিলারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এ.কে.এম আবু সাঈদ চৌধুরীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সুধারাম থানার ওসি আনোয়ার হোসেন চাল আত্মসাৎ এর অভিযোগে ডিলার সিরাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar