মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১০:০৮ অপরাহ্ন

নাশকতা মামলার আসামী হিং¯্র জামানের শাস্তি চান নির্র্যাতিতা গৃহবধূ রুমা

স্টাফ রিপোর্টার: হিং¯্র-নেশাখোর মাদক ব্যবসায়ী স্বামীর বিরুদ্ধে সুবিচার পেতে প্রশাসনসহ সর্র্ব মহলের কাছে অনুুরোধ জানিয়েছেন নির্র্যাতিতা গৃহবধূ ২সন্তানের জননী আইরিন সুলতানা রুমা। অসহায় এ গৃহবধু বিচারের জন্য বিভিন্ন দফতর ও বিভিন্ন জনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ালেও আদালত ব্যাতিত সবখান থেকেই নিরাশ হয়েছেন। পরিশেষে উপায়ন্তর না পেয়ে সাংবাদিকদের স্মরণাপন্ন হন তিনি। গৃহবধূ রুমা সাংবাদিকদেরকে জানান,বিগত ১১বছর আগে তাকে ব্ল্যাকমেইলিং করে বিয়ে করেন কামতাল এলাকার মোহাম্¥দ আলীর ছেলে নুরুজ্জামান মোল্লা ওরফে জামান। বিয়ের ১১বছরে তাদের সংসারে দুটি ফুটফুটে সন্তান জন্ম নেয়। বিয়ের পর থেকেই রুমার উপর নির্যাতনের স্টীমরোলার চালায় জামান। প্রতিদিন ২থেকে ৩বোতল ফেন্সিডিল না হলে তার চলেনা। ঘরে বসেই সে মাদক ব্যবসা চালাতো। পুলিশের কিছু অসাধূূ সদস্যদের পরোক্ষ মদদে দীর্র্ঘ দিন ধরেই সে নির্বিগ্নে এ ব্যবসা চালিয়ে আসছে। এ বিষয়ে কিছু বলতে গেলে নির্যাতনের মাত্রা আরো বেড়ে যেতে যে কারণে ভয়ে প্রতিবাদের সাহস পেতামনা। বন্দরের পুরস্কার ঘোষিত মাদক ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন ওরফে সেলুকে নিয়ে প্রতিদিনই সে মাদক পাচার করতো। এছাড়া সে বন্দর থানা যুবদলের সহ-সভাপতি। তার বিরুদ্ধে গত বছরের ১০ অক্টোবর বন্দর থানায় দায়েরকৃত নাশকতা মামলা এবং নারী ও শিশু নির্যাতন হত্যাষ্টো ও প্রতারণাসহ অসংখ্য মামলা রয়েছে। ইদানীং সে আমার বিরুদ্ধে পত্রিকা,অনলাইন ও ফেসবুকে অপপ্রচার চালাচ্ছে। যাতে কিনা আমাকে সমাজে হেয় করা হচ্ছে। আমি এ বিষয়ে প্রশাসনের তদন্তপূর্বক হস্তক্ষেপ কামনা করছি। অসহায় গৃহবধূর সম্পত্তির উপর ভূমিদস্যূ আলমের কু-নজর স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে স্বামী পরিত্যক্ত গৃহবধূর সম্পত্তি দখলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে ভূমিদস্যূ আলম গং। ভূমিদস্যূতার এ ঘটনাটি ঘটে থানার কুশিয়ারা এলাকায়। এ ব্যাপারে সুবিচার পেতে নিরীহ ৩সন্তানের জননী ফালানী বেগম বাদী হয়ে শনিবার দুুপুরে বন্দর থানায়একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, নবীগঞ্জ এলাকার মৃত আজগর আলীর ছেলে আলম দীর্ঘ দিন ধরে গৃহবধূ ফালানী বেগমের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এর ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল ১০টায় আলম গং ফের দখল করতে গেলে ফালানী বেগম ও তার কলেজ পড়–য়া মেয়ে বাধা দিলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গৃহবধূ ও তার মেয়েকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে। মা-মেয়ে প্রতিবাদ করলে আলম গং তাদেরকে হত্যার হুমকি দেয়। এ ব্যাপারে আদালতে গৃৃহবধূর দায়েরকৃত মামলাও বিচারাধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar