বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

নাটোরে হাই-টেক পার্কে আড়াই হাজার তরুণ প্রশিক্ষণ নিতে পারবে

নাটোরের সিংড়া উপজেলার শেরকোল এলাকায় ৫ দশমিক ২০ একর জমির ওপর ১৫৪ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যয়ে হাই-টেক পার্ক নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে আড়াই হাজার তরুণ-তরুণীর প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।
গতকাল বুধবার দুপুরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ হাই-টেক পার্ক নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। ২০২০ সালের জুন মাসের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে।
প্রতিমন্ত্রী জানান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ জেলা পর্যায়ে আইটি/হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় সারা দেশে সিংড়ার মতো ১২টি জেলায় সাততলা বিশিষ্ট মাল্টিনেটেড হাই-টেক ভবন নির্মাণ করবে। এসব পার্কে থাকছে তিন তলা বিশিষ্ট ক্যানটিন ও এমফিথিয়েটার এবং তিন তলা বিশিষ্ট ডরমিটরি ভবন।
ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে প্রতিমন্ত্রী সিংড়া দমদমা পাইলট স্কুল ও কলেজ মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, আধুনিক প্রযুক্তির সম্প্রসারণ ও এর সঙ্গে অপার সম্ভাবনাময় যুব শক্তির সংযোগ ঘটিয়ে খুব সহজেই দেশের সমৃদ্ধি অর্জন করা সম্ভব। আমরা ২০২১ সালে স্বাধীনতার স্বর্ণ জয়ন্তীতে মধ্যম আয়ের প্রযুক্তি নির্ভর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার অভীষ্ট লক্ষ্যে কাজ করছি।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো ও দমদমা পাইলট স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ আনোয়ারুল ইসলাম আনু। সভাপতিত্ব করেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস। অনুষ্ঠানে কলেজের আইটি ভবনের সম্প্রসারিত তৃতীয় ও চতুর্থ তলার উদ্বোধন এবং নতুন চার তলা ভবন নির্মাণকাজেরও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন প্রতিমন্ত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar