ঢাকা ১২:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
স্বর্ণ ব্যবসায়ে ২৬ বছরে যা হয়নি তা মাত্র ৬ মাসে সম্ভব হয়েছে ঋণ খেলাপি মামলায় জেল আমান গ্রুপের চেয়ারম্যান ও পরিচালক আসামি গ্রেফতারকালে কবজি বিচ্ছিন্ন হওয়া পুলিশ সদস্যের শয্যাপাশে আইজিপি সোনারগাঁয়ে একজন সফল ব্যবসায়ী ও দানবীর সমাজ সেবক হাজী শাকিল রানা। বাঁশখালীতে একুশে হসপিটালে পরিচালকদের মতবিনিময় সভা ও অফিস উদ্ভোদন। টাঙ্গাইলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে জেলা পুলিশের প্রশাসনিক সভা অনুষ্ঠিত মতলব উত্তরে কৃষকদের নিয়ে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ ,প্রভাবশালীদের ধামাচাপার চেষ্টা চলছে। ফটিকছড়িতে সড়ক দুর্ঘটনায় সি এন জি চালক নিহত

‘নাগরিক সেবায়’ ভূমিকা রাখছে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসকের ফেসবুক আইডি

পলাশ, সাতক্ষীরা :   ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০০৯ সাল থেকে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার। সরকারের এ লক্ষ পূরণে কাজ করে যাচ্ছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে কীভাবে সরকারি সেবাসমূহ মানুষের কাছে আরও দ্রুত এবং সহজেই পৌঁছে দেওয়া যায়, তার জন্য নেওয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ। এ লক্ষে এখন পর্যন্ত গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপেরে মধ্যে অন্যতম হলো সরকারী কর্মকর্তা এবং সরকারি প্রতিষ্ঠান সমুহ ফেসবুক ব্যবহারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ। সরকারি কর্মকর্তা এবং প্রতিষ্ঠানের ফেসবুক ব্যবহার নিয়ে অনেক আগেই একটি নির্দেশনা জারি করেছে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ। মন্ত্রীপরিষদের জারিকৃত নির্দেশনার ফলে সাতক্ষীরার সর্বস্তরের জনগণের দাড় গোড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে নাগরিক সেবা প্রদানের এক ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন (উঈ)। ফেসবুকের মাধ্যমে তথ্য সেবা জনগণের দোড় গোড়ায় পৌছে দেওয়ার লক্ষে (উঈ ঝধঃশযরৎধ) নামে একটি ফেসবুক একাউন্ট খোলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন। এতে জনগণ তাদের নানা সমস্যা, সংকট, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বেআইনি জুয়া, বখাটেদের তথ্য, বাল্যবিবাহ সহ বিভিন্ন বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ জানতে পারেন। গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এস,এম মোস্তফা কামাল সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে তার প্রচেষ্টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে অতীতের চেয়ে বেশি সুফল পেতে শুরু করেছে বলে মনে করেন সাতক্ষীরাবাসী।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশসক হিসেবে এস,এম মোস্তফা কামাল ৯ই অক্টোবর দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযদ্ধে নিহত সাতক্ষীরার সকল শহীদদের প্রতি পুষ্পঞ্জলি অর্পণ করার মধ্য দিয়ে তিনি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর-মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সমাজের সকল শ্রেণি পেশার মানুষের সাথে আলোচনার মধ্যে দিয়ে সাতক্ষীরার বিভিন্ন উন্নয়ন ও স্বাক্ষরতা নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। সাতক্ষীরাবাসীর সমস্যা সমাধান করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুককে প্রধান দিয়ে সম্প্রতি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের অফিসিয়াল ফেসবুক আইডি (উঈ ঝধঃশযৎরধ) থেকে জানান, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা বাসীর সেবায় সর্বদা নিয়োজিত থাকবে। সাতক্ষীরা বাসীর সকল সম্ভবনা, সমস্যা, অভিযোগ ও সাতক্ষীরাকে আরো উন্নতকরণে সকলের মতামত চেয়ে যেকোন সময় যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করেন। এরপর থেকেই সাতক্ষীরার সর্বস্তরের জনগণ তাদের সকল সমস্যা সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকের মাধ্যমে ট্যাগ পোস্ট, কমেন্ট ও বার্তা আকারে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক কে অবহিত করে সুফল পেতে শুরু করেছেন। সমপ্রতি ফেসবুক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাস্তা ও ফুটপাতের উপর ইট, বালু, কাঠ, পাথর রাখার অপরাধে সাতক্ষীরা শহরের হাটের মোড়, মুন্সিপাড়া, সুলতানপুর সহ বিভিন্ন জায়গায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এছাড়াও ফেসবুকে জনসাধারণে অভিযোগের কারণে জনস্বার্থে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার কথা বিবেচনা করে সাতক্ষীরা গুড়পুকুর মেলা বন্ধ, সাতক্ষীরা শহর সহ সাতক্ষীরার গুরুত্বপূর্ণ সকল সড়কের পাশে সেখানে যানবাহন পার্কিং করে যানজট সৃষ্টি করলে তাৎক্ষণিকভাবে মোবাইল কোর্ট বসিয়ে নিয়মানুয়ায়ী শাস্তি দেওয়া হবে। শহরের হোটেলগুলোতে দেহ ব্যবসা বন্ধ, অভিযুক্ত ইট-ভাটার কালো ধোঁয়াসহ সাতক্ষীরার সকল সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল এই উদ্দোগ নেন।

জেলা প্রশাসন অফিস সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক হিসেবে এস,এম মোস্তফা কামাল দায়িত্ব গ্রহণ করার পরপরই সাতক্ষীরাবাসীর সকল সমস্যা, সম্ভাবনা ও অভিযোগসহ সরকারি বিভিন্ন সেবা গ্রহণে একজন নাগরিকের মূল্যবান সময় সাশ্রয় এবং যে কোনো জটিলতা ছাড়াই সেবা নিশ্চিতকরণে ফেসবুকের ব্যবহারকে ‘নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী চর্চায়’ একটি সহায়ক শক্তি হিসেবে নেন। সাতক্ষরিা জেলা প্রশাসকের ব্যবহৃত আইডিকে ‘নাগরিক সেবায়’ গ্রহণের ফলে ফেসবুকে প্রত্যেক নাগরিকের দেওয়া মাতমত, সমস্যা ও অভিযোগকে প্রাধ্যন্য দিয়ে একটা খসড়া তৈরি করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল। খসড়ায় থাকা বিভন্ন অভিযোগ ও সমস্যাকে পর্যালোচনা করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ ও সাতক্ষীরার উন্নয়নের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সাতক্ষীরাবাসীর দেওয়া বিভিন্ন মতামতের উপর গুরুত্ব দেন তিনি। আর এর সুফল পাচ্ছে সাধারণ মানুষ। তারা খুব সহজেই তাদের সমস্যার কথা ফেসবুকের মাধ্যমে জেলা প্রশাসককে জানাতে পারছে। ফেরবুকে জেলা প্রশাসক সক্রিয় থাকয় প্রশাসনের সাথে সাধারণ মানুষের সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। জেলা প্রশাসকের এস,এম মোস্তফা কামাল যাতে এ উদ্যোগ অব্যাহত রাখেন তার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন সবাই।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল বলেন, সাতক্ষীরার জনগণের মূল্যবান সময় সাশ্রয় এবং যে কোনো জটিলতা ছাড়াই সেবা নিশ্চিতকরণে ফেসবুকের ব্যবহারকে ‘নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী চর্চায়’ একটি সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজে লাগাচ্ছি। জেলা প্রশাসকের গৃহীত নতুন নতুন পরিকল্পনার কথা ফেসবুকের মাধমে সাধারণ মানুষকে জানাচ্ছি। সাধারণ মানুষও আমাদের সামাজিক কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে। সরকারের জারিকৃত নির্দেশনা মেনে সাতক্ষীরার উন্নয়নে জেলা প্রশাসনের ফেসবুক আইডিড (উঈ ঝধঃশযৎরধ) কে ব্যবহার করার এদ্যগ গ্রহণ করি এবং সাতক্ষীরাকে একটি পরিচ্ছন্ন জেলা হিসেবে সাতক্ষীরাবাসীকে উপহার দিবো। ২০৪১-এ উন্নত বাংলাদেশ গঠনে এস,ডি,জি এবং ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক (উঈ ঝধঃশযৎরধ) কে ইতিবাচকভাবে ব্যবহারের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা গ্রহণ করতে যাচ্ছেন।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

স্বর্ণ ব্যবসায়ে ২৬ বছরে যা হয়নি তা মাত্র ৬ মাসে সম্ভব হয়েছে

‘নাগরিক সেবায়’ ভূমিকা রাখছে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসকের ফেসবুক আইডি

আপডেট টাইম ১১:০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৮

পলাশ, সাতক্ষীরা :   ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০০৯ সাল থেকে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার। সরকারের এ লক্ষ পূরণে কাজ করে যাচ্ছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে কীভাবে সরকারি সেবাসমূহ মানুষের কাছে আরও দ্রুত এবং সহজেই পৌঁছে দেওয়া যায়, তার জন্য নেওয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ। এ লক্ষে এখন পর্যন্ত গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপেরে মধ্যে অন্যতম হলো সরকারী কর্মকর্তা এবং সরকারি প্রতিষ্ঠান সমুহ ফেসবুক ব্যবহারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ। সরকারি কর্মকর্তা এবং প্রতিষ্ঠানের ফেসবুক ব্যবহার নিয়ে অনেক আগেই একটি নির্দেশনা জারি করেছে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ। মন্ত্রীপরিষদের জারিকৃত নির্দেশনার ফলে সাতক্ষীরার সর্বস্তরের জনগণের দাড় গোড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে নাগরিক সেবা প্রদানের এক ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন (উঈ)। ফেসবুকের মাধ্যমে তথ্য সেবা জনগণের দোড় গোড়ায় পৌছে দেওয়ার লক্ষে (উঈ ঝধঃশযরৎধ) নামে একটি ফেসবুক একাউন্ট খোলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন। এতে জনগণ তাদের নানা সমস্যা, সংকট, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বেআইনি জুয়া, বখাটেদের তথ্য, বাল্যবিবাহ সহ বিভিন্ন বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ জানতে পারেন। গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এস,এম মোস্তফা কামাল সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে তার প্রচেষ্টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে অতীতের চেয়ে বেশি সুফল পেতে শুরু করেছে বলে মনে করেন সাতক্ষীরাবাসী।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশসক হিসেবে এস,এম মোস্তফা কামাল ৯ই অক্টোবর দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযদ্ধে নিহত সাতক্ষীরার সকল শহীদদের প্রতি পুষ্পঞ্জলি অর্পণ করার মধ্য দিয়ে তিনি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর-মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সমাজের সকল শ্রেণি পেশার মানুষের সাথে আলোচনার মধ্যে দিয়ে সাতক্ষীরার বিভিন্ন উন্নয়ন ও স্বাক্ষরতা নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। সাতক্ষীরাবাসীর সমস্যা সমাধান করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুককে প্রধান দিয়ে সম্প্রতি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের অফিসিয়াল ফেসবুক আইডি (উঈ ঝধঃশযৎরধ) থেকে জানান, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা বাসীর সেবায় সর্বদা নিয়োজিত থাকবে। সাতক্ষীরা বাসীর সকল সম্ভবনা, সমস্যা, অভিযোগ ও সাতক্ষীরাকে আরো উন্নতকরণে সকলের মতামত চেয়ে যেকোন সময় যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করেন। এরপর থেকেই সাতক্ষীরার সর্বস্তরের জনগণ তাদের সকল সমস্যা সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকের মাধ্যমে ট্যাগ পোস্ট, কমেন্ট ও বার্তা আকারে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক কে অবহিত করে সুফল পেতে শুরু করেছেন। সমপ্রতি ফেসবুক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাস্তা ও ফুটপাতের উপর ইট, বালু, কাঠ, পাথর রাখার অপরাধে সাতক্ষীরা শহরের হাটের মোড়, মুন্সিপাড়া, সুলতানপুর সহ বিভিন্ন জায়গায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এছাড়াও ফেসবুকে জনসাধারণে অভিযোগের কারণে জনস্বার্থে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার কথা বিবেচনা করে সাতক্ষীরা গুড়পুকুর মেলা বন্ধ, সাতক্ষীরা শহর সহ সাতক্ষীরার গুরুত্বপূর্ণ সকল সড়কের পাশে সেখানে যানবাহন পার্কিং করে যানজট সৃষ্টি করলে তাৎক্ষণিকভাবে মোবাইল কোর্ট বসিয়ে নিয়মানুয়ায়ী শাস্তি দেওয়া হবে। শহরের হোটেলগুলোতে দেহ ব্যবসা বন্ধ, অভিযুক্ত ইট-ভাটার কালো ধোঁয়াসহ সাতক্ষীরার সকল সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল এই উদ্দোগ নেন।

জেলা প্রশাসন অফিস সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক হিসেবে এস,এম মোস্তফা কামাল দায়িত্ব গ্রহণ করার পরপরই সাতক্ষীরাবাসীর সকল সমস্যা, সম্ভাবনা ও অভিযোগসহ সরকারি বিভিন্ন সেবা গ্রহণে একজন নাগরিকের মূল্যবান সময় সাশ্রয় এবং যে কোনো জটিলতা ছাড়াই সেবা নিশ্চিতকরণে ফেসবুকের ব্যবহারকে ‘নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী চর্চায়’ একটি সহায়ক শক্তি হিসেবে নেন। সাতক্ষরিা জেলা প্রশাসকের ব্যবহৃত আইডিকে ‘নাগরিক সেবায়’ গ্রহণের ফলে ফেসবুকে প্রত্যেক নাগরিকের দেওয়া মাতমত, সমস্যা ও অভিযোগকে প্রাধ্যন্য দিয়ে একটা খসড়া তৈরি করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল। খসড়ায় থাকা বিভন্ন অভিযোগ ও সমস্যাকে পর্যালোচনা করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ ও সাতক্ষীরার উন্নয়নের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সাতক্ষীরাবাসীর দেওয়া বিভিন্ন মতামতের উপর গুরুত্ব দেন তিনি। আর এর সুফল পাচ্ছে সাধারণ মানুষ। তারা খুব সহজেই তাদের সমস্যার কথা ফেসবুকের মাধ্যমে জেলা প্রশাসককে জানাতে পারছে। ফেরবুকে জেলা প্রশাসক সক্রিয় থাকয় প্রশাসনের সাথে সাধারণ মানুষের সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। জেলা প্রশাসকের এস,এম মোস্তফা কামাল যাতে এ উদ্যোগ অব্যাহত রাখেন তার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন সবাই।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস,এম মোস্তফা কামাল বলেন, সাতক্ষীরার জনগণের মূল্যবান সময় সাশ্রয় এবং যে কোনো জটিলতা ছাড়াই সেবা নিশ্চিতকরণে ফেসবুকের ব্যবহারকে ‘নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী চর্চায়’ একটি সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজে লাগাচ্ছি। জেলা প্রশাসকের গৃহীত নতুন নতুন পরিকল্পনার কথা ফেসবুকের মাধমে সাধারণ মানুষকে জানাচ্ছি। সাধারণ মানুষও আমাদের সামাজিক কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে। সরকারের জারিকৃত নির্দেশনা মেনে সাতক্ষীরার উন্নয়নে জেলা প্রশাসনের ফেসবুক আইডিড (উঈ ঝধঃশযৎরধ) কে ব্যবহার করার এদ্যগ গ্রহণ করি এবং সাতক্ষীরাকে একটি পরিচ্ছন্ন জেলা হিসেবে সাতক্ষীরাবাসীকে উপহার দিবো। ২০৪১-এ উন্নত বাংলাদেশ গঠনে এস,ডি,জি এবং ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক (উঈ ঝধঃশযৎরধ) কে ইতিবাচকভাবে ব্যবহারের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা গ্রহণ করতে যাচ্ছেন।