ঢাকা ০১:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
১৩১ বছরেও ময়লা ফেলার স্থান ঠিক করতে পারেনি পৌরসভা। লোহাগড়ায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে বিয়ে, স্ত্রীর মর্যাদা দাবী করায় নির্যাতন অতপর: থানায় মামলা নবীনগর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২৩ অনুষ্ঠিত কুমিল্লার মুরাদনগরে গরিব দুঃস্থদের মাঝে কম্বল তুলে দেন, ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মংলা সমুদ্র বন্দরে পৌঁছেছে রাশিয়ার দুটি জাহাজ আনোয়ারায় ডাকাত গ্রেফতার নড়াইলে স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে কলেজ অধ্যক্ষের অফিসে এক নারী লোহাগড়ায় মায়ের পরকিয়ায় ভালো নেই শিশু আরিয়ান শ্যামপুরের কহিনুর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন।

নবাবগঞ্জের কৃষকেরা চিনাবাদাম বাদাম চাষে আগ্রহী

হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :   সহজে চাষযোগ্য, উৎপাদিত ফসলের খরচ কম, অধিকলাভ পাওয়ায় দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার ৯নং কুশদহ ইউনিয়নের গিলাঝুকি কুষ্টিয়াপাড়া গ্রামের কৃষকরা ঝুকছেন চিনাবাদাম চাষে।

সরেজমিনে গেলে কৃষকরা জানান- তাদের এলাকার কৃষি জমি অম্লীন শ্রেণীর মাটি হওয়ায় একই জমিতে ধান ও বাদাম চাষ হয়। আমন মৌসুমে তারা আমন ধানের পাশপাশি কিছু জমিতে বীজ বাদাম ও ইরিবোরো মৌসুমে শুধু মাত্র বাদামের চাষ করা হয়। উৎপাদিত সু¯^াধু ৩/৪ দানার বাদাম গ্রাম থেকেই বিক্রি হয়। ঐ এলাকার বাদাম রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানী হয় বলে কৃষকরা জানায়।

কুষ্টিয়া পাড়া গ্রামের কৃষক বাবর আলীর পুত্র আঃ রশিদ জানান, চিনা বাদামের জন্য কুশদহ ইউনিয়নের মাটি উপযোগী হওয়ায় মৌসুমে বিঘাপ্রতি প্রায় ১০ মন পর্যন্ত বাদাম উৎপন্ন হয়। মৌসুমে বাদাম ১৮শ টাকা ২৫শ টাকায় দাম পাওয়া যায়। সেখানে প্রতি বিঘায় প্রায় ৫ হাজার টাকা খরচ হয়। ফলে ভাল লাভ হওয়ায় বাদাম চাষে আগ্রহী উঠছে এলাকার কৃষকরা।

একই গ্রামের মালু শেখের পুত্র হাবলু শেখ জানায়, শুধু মাত্র কৃষি অফিসের পরামর্শে কোন প্রশি¶ন ছাড়াই তিনি কয়েক বছর যাবত বাদাম চাষ করছেন। বাদাম চাষে এলাকার কৃষকদের উন্নত প্রশি¶ন প্রদান করা হলে বাদামের উৎপাদন আরও বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশা করছেন।
উপজেলা কৃষি অফিসার আবু রেজা আসাদুজ্জামান জানান, উপজেলায় প্রায় ৭ হেক্টর জমিতে বাদাম চাষ হচ্ছে। কুশদহ ইউনিয়নের বাদাম চাষীর সংখ্যা বেশি। তাদের বাদাম চাষের সফলতায় আশেপাশের ইউনিয়নগুলিতেও বাদাম চাষে আগ্রহী হচ্ছে কৃষকরা। কৃষি অফিস থেকে বাদাম চাষীদের প্রয়োজনীয় সহায়তা করা হচ্ছে এবং সহায়তা অব্যহত থাকবে।

আব্দুল আজিজ
০১৭৯৩৫৫৫৭২৭
২৯.১১.১৮

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

১৩১ বছরেও ময়লা ফেলার স্থান ঠিক করতে পারেনি পৌরসভা।

নবাবগঞ্জের কৃষকেরা চিনাবাদাম বাদাম চাষে আগ্রহী

আপডেট টাইম ০৭:২৫:৫০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৮

হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :   সহজে চাষযোগ্য, উৎপাদিত ফসলের খরচ কম, অধিকলাভ পাওয়ায় দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার ৯নং কুশদহ ইউনিয়নের গিলাঝুকি কুষ্টিয়াপাড়া গ্রামের কৃষকরা ঝুকছেন চিনাবাদাম চাষে।

সরেজমিনে গেলে কৃষকরা জানান- তাদের এলাকার কৃষি জমি অম্লীন শ্রেণীর মাটি হওয়ায় একই জমিতে ধান ও বাদাম চাষ হয়। আমন মৌসুমে তারা আমন ধানের পাশপাশি কিছু জমিতে বীজ বাদাম ও ইরিবোরো মৌসুমে শুধু মাত্র বাদামের চাষ করা হয়। উৎপাদিত সু¯^াধু ৩/৪ দানার বাদাম গ্রাম থেকেই বিক্রি হয়। ঐ এলাকার বাদাম রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানী হয় বলে কৃষকরা জানায়।

কুষ্টিয়া পাড়া গ্রামের কৃষক বাবর আলীর পুত্র আঃ রশিদ জানান, চিনা বাদামের জন্য কুশদহ ইউনিয়নের মাটি উপযোগী হওয়ায় মৌসুমে বিঘাপ্রতি প্রায় ১০ মন পর্যন্ত বাদাম উৎপন্ন হয়। মৌসুমে বাদাম ১৮শ টাকা ২৫শ টাকায় দাম পাওয়া যায়। সেখানে প্রতি বিঘায় প্রায় ৫ হাজার টাকা খরচ হয়। ফলে ভাল লাভ হওয়ায় বাদাম চাষে আগ্রহী উঠছে এলাকার কৃষকরা।

একই গ্রামের মালু শেখের পুত্র হাবলু শেখ জানায়, শুধু মাত্র কৃষি অফিসের পরামর্শে কোন প্রশি¶ন ছাড়াই তিনি কয়েক বছর যাবত বাদাম চাষ করছেন। বাদাম চাষে এলাকার কৃষকদের উন্নত প্রশি¶ন প্রদান করা হলে বাদামের উৎপাদন আরও বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশা করছেন।
উপজেলা কৃষি অফিসার আবু রেজা আসাদুজ্জামান জানান, উপজেলায় প্রায় ৭ হেক্টর জমিতে বাদাম চাষ হচ্ছে। কুশদহ ইউনিয়নের বাদাম চাষীর সংখ্যা বেশি। তাদের বাদাম চাষের সফলতায় আশেপাশের ইউনিয়নগুলিতেও বাদাম চাষে আগ্রহী হচ্ছে কৃষকরা। কৃষি অফিস থেকে বাদাম চাষীদের প্রয়োজনীয় সহায়তা করা হচ্ছে এবং সহায়তা অব্যহত থাকবে।

আব্দুল আজিজ
০১৭৯৩৫৫৫৭২৭
২৯.১১.১৮