শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

ধান সহ কৃষি ফসলের লাভজনক দামের দাবিতে কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগ্রাম পরিষদের স্মারকলিপি পেশ

শাহজাহান আলী মনন, নীলফামাী জেলা প্রতিনিধি : কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগ্রাম পরিষদ রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা খাদ্য কর্মকর্তার মাধ্যমে কৃষি মন্ত্রী বরাবর স্মারক লিপি পেশ করা হয়েছে। ২৯ এপ্রিল সোমবার সকালে এ কর্মসূচী পালন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষক সমিতির আফজালুর রহমান, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের, আনোয়ার হোসেন বাবলু, বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির সচীন চন্দ্র দাস, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের, আব্দুল কুদ্দুস। নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নতির পিছনে কৃষি একটি অন্যতম খাত। বাংলাদেশের মোট শ্রমশক্তির ৪২.৭ ভাগ কৃষি খাতে নিয়োজিত। একক খাত হিসেবে কৃষির অবদান এখনও বেশি। অথচ বর্তমান-অতীতের সরকারের সময়ে কৃষিখাত উপেক্ষিত হয়ে আসছে। তার ফলাফল হিসেবে গত অর্থবছরে জাতীয় বাজেটে কৃষিখাতে বরাদ্দ ছিল ৬.১০ ভাগ, চলতি বছরে তা কমে ৫.৫৬ ভাগে নেমেছে। একদিকে ফসল উৎপাদন করতে কৃষি উপকরণের দাম ক্রমান্বয়ে বাড়ছে, অপরদিকে উৎপাদিত শস্য বিক্রি করে উৎপাদন খরচও উঠে আসে না। ফলে কৃষক একবার কিনতে ঠকে, আবার বেচতে ঠকে। সরকার ১ মণ (৪০ কেজি) ধানের মূল্য নির্ধারণ করেছে ১০৪০/- টাকা, অথচ কৃষকের কাছ থেকে ধান না কিনে মিল-মালিকদের কাছ থেকে স্থানীয় খাদ্য কর্মকর্তা ধান না কিনে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে কিনবে। নেতৃবৃন্দ, সকল ইউনিয়নে সরকারি ক্রয়কেন্দ্র খুলে সরকারি রেটে সরকারি কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয় করা সহ ৪ দফা দাবিতে স্মারকলিপি পেশ করে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar