ঢাকা ০৮:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কুমিল্লার বুড়িচংয়ে কলেজ ছাত্রী যৌন হয়রানির প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ। গজারিয়া উপজেলা পরিষদ এর মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। টাঙ্গাইলে সৃষ্টি শিক্ষার্থী শিহাব হত্যা মামলায় ৪ আসামির আত্মসমর্পণ, জামিন নামঞ্জুর তেলের মূল্য বৃদ্ধি লোড শেডিং ও দ্রব্যমূল্যর উর্দ্ধগতির প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। খাগড়াছড়ির গুইমারায় শান্তিপরিবহন ও কাভারভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে- নিহত ১ কুষ্টিয়া কুমারখালীর উত্তর মিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক মনিরুল থাকেন প্রবাসে, চাকরি করেন বাংলাদেশে। অষ্টগ্রামের হোসাইনী প্রেমিকগন প্রায় ১৬০ বছর ধরে কারবালার শোক পালন করে আসছে। কুমিল্লার মুরাদনগরে ১৩ জন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বিদায় সংবর্ধনা। বেতাগীর অগ্নিদগ্ধ সেই ইউপি সদস্য শামিম আর নেই! সিলেটে বাড়ছে পানিবাহিত রোগ

দেশে এই প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’ স্থাপন

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  দেশে এই প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’সহ জেব্রা ক্রসিংয়ের উদ্বোধন করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মোহাম্মদপুরের টাউন হলের পাশে অবস্থিত এসএফএক্স গ্রিন হেরাল্ড ইন্টারন্যাল স্কুলের সামনে প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’সহ জেব্রা ক্রসিং উদ্বোধন করা হয়।

আরো পড়ুন:  আবরার হত্যা: অমিত সাহার জামিন নামঞ্জুর

এ সময় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, স্কুলের সামনে ক্যামেরা লাগানো রয়েছে। পুশ বাটন লাইটের সিগন্যাল যারা মানবে না, আইনের আওতায় এনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

মেয়র বলেন, প্রত্যেকটা কাজের পেছনে একটা উদ্দেশ্য থাকে। লাইট বসানোর উদ্দেশ্য হচ্ছে, আমরা নিরাপদ সড়ক চাই, আমরা নিরাপদ একটি শহর চাই। আমরা সবার জন্য নিরাপদ বাংলাদেশ চাই।

তিনি বলেন, এই লাইট লাগানোর আইডিয়াটা প্রধানমন্ত্রীর। তিনি আমাকে পুশ বাটন ও জেব্রা ক্রসিংয়ের কথা বলেছেন। আমরা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে এটাকে বাস্তবায়ন করছি।

নাগরিকদের বিভিন্ন বদ অভ্যাসের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, আমরা লক্ষ করি অনেকেই গাড়ির গ্লাসটা নামিয়ে রাস্তার ওপরেই ময়লা ফেলে দেয়। যেকোনো জায়গায় আমরা যেকোনো ধরনের ময়লা ইচ্ছামতো ফেলি। অথচ এই আমরাই বিদেশে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলিনা। আমাদের এই মানসিকতার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মেয়র বলেন, শিক্ষক এবং বাবা-মা আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় আশীর্বাদ। আমি যখন ছোট ছিলাম, তখন শিক্ষকরা বকা দিলে মন খারাপ হয়ে যেত। জীবনের এই পর্যায়ে এসে বুঝেছি, তাদের বকা দেওয়াটা আমাদের ভালোর জন্যই। সুতরাং শিক্ষকদের এবং পিতা-মাতাকে অবশ্যই সম্মান করতে হবে। কারণ তারা চায় আমরা একজন ভালো এবং আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠি।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে কলেজ ছাত্রী যৌন হয়রানির প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ।

দেশে এই প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’ স্থাপন

আপডেট টাইম ০৫:২৩:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  দেশে এই প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’সহ জেব্রা ক্রসিংয়ের উদ্বোধন করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মোহাম্মদপুরের টাউন হলের পাশে অবস্থিত এসএফএক্স গ্রিন হেরাল্ড ইন্টারন্যাল স্কুলের সামনে প্রথম ‘পুশ বাটন টাইম কাউন্ট-ডাউন সিগনাল’সহ জেব্রা ক্রসিং উদ্বোধন করা হয়।

আরো পড়ুন:  আবরার হত্যা: অমিত সাহার জামিন নামঞ্জুর

এ সময় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, স্কুলের সামনে ক্যামেরা লাগানো রয়েছে। পুশ বাটন লাইটের সিগন্যাল যারা মানবে না, আইনের আওতায় এনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

মেয়র বলেন, প্রত্যেকটা কাজের পেছনে একটা উদ্দেশ্য থাকে। লাইট বসানোর উদ্দেশ্য হচ্ছে, আমরা নিরাপদ সড়ক চাই, আমরা নিরাপদ একটি শহর চাই। আমরা সবার জন্য নিরাপদ বাংলাদেশ চাই।

তিনি বলেন, এই লাইট লাগানোর আইডিয়াটা প্রধানমন্ত্রীর। তিনি আমাকে পুশ বাটন ও জেব্রা ক্রসিংয়ের কথা বলেছেন। আমরা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে এটাকে বাস্তবায়ন করছি।

নাগরিকদের বিভিন্ন বদ অভ্যাসের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, আমরা লক্ষ করি অনেকেই গাড়ির গ্লাসটা নামিয়ে রাস্তার ওপরেই ময়লা ফেলে দেয়। যেকোনো জায়গায় আমরা যেকোনো ধরনের ময়লা ইচ্ছামতো ফেলি। অথচ এই আমরাই বিদেশে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলিনা। আমাদের এই মানসিকতার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মেয়র বলেন, শিক্ষক এবং বাবা-মা আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় আশীর্বাদ। আমি যখন ছোট ছিলাম, তখন শিক্ষকরা বকা দিলে মন খারাপ হয়ে যেত। জীবনের এই পর্যায়ে এসে বুঝেছি, তাদের বকা দেওয়াটা আমাদের ভালোর জন্যই। সুতরাং শিক্ষকদের এবং পিতা-মাতাকে অবশ্যই সম্মান করতে হবে। কারণ তারা চায় আমরা একজন ভালো এবং আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠি।