রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন

দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন শেখ হাসিনা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। যারা স্বঘোষিত খুনি তাদেরকে বিচারের সম্মুখীন করেছেন। কোনও লোকই আইনের ঊর্ধ্বে নয়, শেখ হাসিনা সেটা প্রতিষ্ঠা করেছেন।গতকাল রোববার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটির উদ্যোগে জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

আরো পড়ুন: বড় দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইটে ছাদে গান-বাজনা নিষিদ্ধ

তিনি বলেন, ১৯৮১ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন আওয়ামী লীগের হাল ধরেন তখন তা অগোছালো অবস্থায় ছিল। শেখ হাসিনা দায়িত্ব নিয়ে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করেছেন। বর্তমানে তিনি সফল রাষ্ট্রনায়ক, তার জন্য আওয়ামী লীগ আজ ধন্য বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আব্দুল মোমেন বলেন, এদেশে বিচার ছিল না। যারা বঙ্গবন্ধুর খুনি, রাজাকার তাদের কোনওদিন বিচার হবে এটা কেউ কল্পনা করেনি। তিনি (শেখ হাসিনা) বাংলাদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। যারা স্বঘোষিত খুনি তাদেরকে বিচারের সম্মুখীন করেছেন। কোনও লোকই আইনের ঊর্ধ্বে নয়, শেখ হাসিনা সেটা প্রতিষ্ঠা করেছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছিল। শেখ হাসিনা দেশে ফেরার সঙ্গে সঙ্গে  মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান তিনি দিয়েছেন। শেখ হাসিনা দেশে না আসলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা স্বপ্ন আমরা অর্জন করতে পারতাম না। এখন আমরা মোটামুটিভাবে বলতে পারি স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়েছে। এজন্য শেখ হাসিনাকে আমি ম্যাজিকওম্যান বলি। তার কারণেই দেশ অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে।

বিএলএফ মুজিব বাহিনীর যুদ্ধকালীন কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু, যুগ্ম মহাসচিব শরিফ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন পাহাড়ী বীর প্রতীক, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ, মুক্তিযোদ্ধা এম এ রশিদ, সাবেক সচিব মুক্তিযোদ্ধা কে, এম মোজাম্মেল হক, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম, আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান এর কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. হুমায়ুন কবির, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম নয়ন, ঢাকা মহানগরের সভাপতি নুরুজ্জামান ভূট্টু প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar