ঢাকা ০৬:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন রেকর্ড গড়ল শাহরুখের ‘পাঠান’ বিদেশেও অপ্রতিরোধ্য সীমান্তে হত্যা এবং মাদকদ্রব্যসহ সকল চোরাচালান বন্ধের দাবিতে সমাবেশ ও কাঁটাতার মিছিল মসজিদে নামাজের মধ্যদিয়ে মুসল্লিদের মাঝে হৃদ্যতা বাড়ে : আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দিন শখ থেকে উদ্যোক্তা, কোয়েল পাখির ডিম বিক্রি করে মাসে আয় আড়াই লাখ। নড়াইল-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুফতি শহিদুল ইসলামের ইন্তেকাল বাউফলে সরকারি চাল বাজারজাত করার সময় বাবা-ছেলে আটক। থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের যথাযথ আইনি সহায়তা প্রদান করুন: আইজিপি জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলে বাংলাদেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারেঃ” আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি” কলাপাড়ার মহিপুরে ৫০ মণ জাটকাসহ ট্রলার জব্দ।

ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিট: ফের পরীক্ষায় বসতে হবে উত্তীর্ণদের

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের নতুন করে পরীক্ষা দিতে হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ এবং ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে সমালোচনার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির বৈঠক শেষে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ ওঠে। পরীক্ষা শুরুর ৪৩ মিনিট আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উত্তরসহ হাতে লেখা প্রশ্নপত্র পান শিক্ষার্থীরা। এই হাতে লেখা প্রশ্নের সঙ্গে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার হুবহু মিল পাওয়া যায়।
১৪টি পৃথক কাগজে হাতে লেখা প্রশ্ন সাংবাদিকদের কাছে আসলে তারা সেগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক সোহেল রানাকে দেখান। কিন্তু সে সময় তিনি পদক্ষেপ নেননি। পরে ভর্তিচ্ছুরা পরীক্ষা দিয়ে বের হলে ওই হাতে লেখা প্রশ্নের সঙ্গে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রশ্ন মিল পেলে প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী এটি ডিজিটাল জালিয়াতি বলে উল্লেখ করেন। এরপর প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত সন্দেহে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তদন্তের পর প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়টি স্বীকার করে নিলেও ১৬ অক্টোবর ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যায় ‘ঘ’ ইউনিটের প্রথম ১০০ জনের তালিকায় থাকা অন্তত ৭০ জন ভর্তিচ্ছু অন্য ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হতে পারেননি।
এরপর ফল বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসংগঠনগুলোও নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে সরব হয়ে ওঠে।
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন

ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিট: ফের পরীক্ষায় বসতে হবে উত্তীর্ণদের

আপডেট টাইম ১১:৩৪:৩১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের নতুন করে পরীক্ষা দিতে হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ এবং ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে সমালোচনার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির বৈঠক শেষে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ ওঠে। পরীক্ষা শুরুর ৪৩ মিনিট আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উত্তরসহ হাতে লেখা প্রশ্নপত্র পান শিক্ষার্থীরা। এই হাতে লেখা প্রশ্নের সঙ্গে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার হুবহু মিল পাওয়া যায়।
১৪টি পৃথক কাগজে হাতে লেখা প্রশ্ন সাংবাদিকদের কাছে আসলে তারা সেগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক সোহেল রানাকে দেখান। কিন্তু সে সময় তিনি পদক্ষেপ নেননি। পরে ভর্তিচ্ছুরা পরীক্ষা দিয়ে বের হলে ওই হাতে লেখা প্রশ্নের সঙ্গে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রশ্ন মিল পেলে প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী এটি ডিজিটাল জালিয়াতি বলে উল্লেখ করেন। এরপর প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত সন্দেহে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তদন্তের পর প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়টি স্বীকার করে নিলেও ১৬ অক্টোবর ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যায় ‘ঘ’ ইউনিটের প্রথম ১০০ জনের তালিকায় থাকা অন্তত ৭০ জন ভর্তিচ্ছু অন্য ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ হতে পারেননি।
এরপর ফল বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসংগঠনগুলোও নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে সরব হয়ে ওঠে।