রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন

ডেঙ্গুতে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় রওশন আরা নামে আরেক নারীর মৃত্যু

মোহাম্মদ রফিক, কুুষ্টিয়া :   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার ঠাকুর দৌলত পুরে রওশন আরা খাতুন (৫৫) নামের এক গৃহবধূ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।  নিহত রওশন আরা কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার ঠাকুর দৌলতপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের স্ত্রী। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম ফেরদৌস জানিয়েছেন, গত ৮ সেপ্টেম্বর রোববার কুষ্টিয়ায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন রওশন আরা। পরে তাঁকে কুষ্টিয়ার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত মঙ্গলবার তাঁকে কুষ্টিয়া থেকে রামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু রওশন আরার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে গত বৃহস্পতিবার সকালে তাঁকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে মৃত্যু হয় রওশন আরার।
ডা. সাইফুল ইসলাম আরো জানান, এ নিয়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।
রওশন আরার পরিবারের সদস্যরা জানান,  এর আগে রওশন আরা তাঁর বাড়ি থেকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। গত বৃহস্পতিবার অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহীতে স্থানান্তর করা হয়েছিল। কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের ডেঙ্গু ওয়ার্ডের সমন্বয়কারী জ্যেষ্ঠ মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এ এস এম মুসা কবির বলেন,
ভর্তির পর থেকেই রওশন আরার শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। এরপর তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। রাজশাহীতে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।
এ পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেলায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৯০০ ছাড়িয়েছে। এর আগে দৌলতপুর উপজেলার শ্যামনগর গ্রামের জোসনা খাতুন (৫৫) ও ভেড়ামারার কাজীহাটা গ্রামের মিনা খাতুন (২১) নামের দুই গৃহবধূ ডেঙ্গুতে মারা গেছেন।
নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar