ঢাকা ০৮:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নবীনগরে ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনে চোখের পলকে বাস্তুহারা ৩০ পরিবার, ইউএনওর সহায়তা- নিয়ামতপুরে ইউনিয়ন ছাত্র লীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত। হারিয়ে যাওয়া ল্যাপটপ, নগদ ৫০ হাজার টাকা (সিএমপি) চকবাজার থানার পুলিশের সহায়তায় ফিরে পেয়ে আবেগ আপ্লুত, ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী ফরহাদ, আনোয়ারার প্রান্তে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল দেখতে পর্যটকের ভিড় দেখা হলনা হাট পথেই মৃত্যু বেপারীর বিশিষ্ট সাংবাদিক মো. সাইফুল ইসলাম রণি’র ৩৮ তম জন্মদিন আজ ইউএসটিসি ছাত্রদলের ৫ সদস্যের আহবায়ক কমিটির ৩ সদস্যের পদত্যাগ। পবিপ্রবিতে নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনায় উৎপাদিত তেলাপিয়া ও পাঙ্গাস মাছের নিলাম অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন লক্ষ্মীপুরে পুলিশের নায়েক থেকে সহকারী উপ পরিদর্শক হলেন ৬ জন

টাকার জন্য ভারতকে হুমকি দিল আইসিসি

স্পোর্টস ডেস্ক :  ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছে ক্ষতিপূরণ বাবদ ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দাবি করেছে আইসিসি। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬০ কোটি রুপি। যা আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থার কোষাগারে জমা দিতে বিসিসিআইকে। এই শর্ত না মানলে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না ভারত।

আইসিসি জানিয়েছে, ১৬১ কোটি টাকা দিতে হবে বিসিসিআইকে। নাহলে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ হাতছাড়া করবে ভারত।

আইসিসির তরফে জানানো হয়েছে, ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসেছিল। সেই টুর্নামেন্টের জন্য আইসিসিকে বিপুল অঙ্কের কর দিতে হয়েছিল। দেশটির রাজ্য সরকার বা কেন্দ্র, কোনো তরফেই কর ছাড় মেলেনি। তাই এর ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিসিসিআইকে ১৬১ কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আইসিসি।

শুধু তাই নয়, চলতি বছরের মধ্যেই এই অর্থ দিতে হবে ভারতীয় বোর্ডকে। নাহলে ২০২৩ বিশ্বকাপ আয়োজনের অনুমতি পাবে না তারা। নির্ধারিত সময়ে ক্ষতিপূরণ দিতে না পারলে চলতি আর্থিক বর্ষে বিসিসিআইয়ের যে আয়, সেখান থেকেই অর্থ কেটে নেওয়া হবে।

২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং তার দু’বছর পর ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করার কথা ভারতের। কিন্তু আইসিসির এমন নির্দেশে টুর্নামেন্ট আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। গত অক্টোবরে আইসিসির যে বৈঠক হয়েছিল তার সারমর্ম চেয়েছে বিসিসিআই। কারণ তারা দেখতে চায়, বোর্ডের তরফে কোথায় কর ছাড়ের কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা এমন কিছুই দিতে পারেনি।

বোর্ডের এক সদস্য বলেছেন, আইসিসি এমন কোনো নথি শেয়ার করবে না, কারণ তাদের কাছে এমন কিছুই নেই। ওরা শুধুই ভারতের থেকে টাকা হাতাতে চায়। শশাঙ্ক মনোহর সবসময়ই বিসিসিআইকে টার্গেট করতে চান। যে খাওয়ায়, তার হাত কামড়ানোই এখন ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

নবীনগরে ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনে চোখের পলকে বাস্তুহারা ৩০ পরিবার, ইউএনওর সহায়তা-

টাকার জন্য ভারতকে হুমকি দিল আইসিসি

আপডেট টাইম ০৩:০৬:১১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক :  ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছে ক্ষতিপূরণ বাবদ ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দাবি করেছে আইসিসি। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৬০ কোটি রুপি। যা আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থার কোষাগারে জমা দিতে বিসিসিআইকে। এই শর্ত না মানলে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না ভারত।

আইসিসি জানিয়েছে, ১৬১ কোটি টাকা দিতে হবে বিসিসিআইকে। নাহলে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ হাতছাড়া করবে ভারত।

আইসিসির তরফে জানানো হয়েছে, ২০১৬ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসেছিল। সেই টুর্নামেন্টের জন্য আইসিসিকে বিপুল অঙ্কের কর দিতে হয়েছিল। দেশটির রাজ্য সরকার বা কেন্দ্র, কোনো তরফেই কর ছাড় মেলেনি। তাই এর ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিসিসিআইকে ১৬১ কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আইসিসি।

শুধু তাই নয়, চলতি বছরের মধ্যেই এই অর্থ দিতে হবে ভারতীয় বোর্ডকে। নাহলে ২০২৩ বিশ্বকাপ আয়োজনের অনুমতি পাবে না তারা। নির্ধারিত সময়ে ক্ষতিপূরণ দিতে না পারলে চলতি আর্থিক বর্ষে বিসিসিআইয়ের যে আয়, সেখান থেকেই অর্থ কেটে নেওয়া হবে।

২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং তার দু’বছর পর ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করার কথা ভারতের। কিন্তু আইসিসির এমন নির্দেশে টুর্নামেন্ট আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। গত অক্টোবরে আইসিসির যে বৈঠক হয়েছিল তার সারমর্ম চেয়েছে বিসিসিআই। কারণ তারা দেখতে চায়, বোর্ডের তরফে কোথায় কর ছাড়ের কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা এমন কিছুই দিতে পারেনি।

বোর্ডের এক সদস্য বলেছেন, আইসিসি এমন কোনো নথি শেয়ার করবে না, কারণ তাদের কাছে এমন কিছুই নেই। ওরা শুধুই ভারতের থেকে টাকা হাতাতে চায়। শশাঙ্ক মনোহর সবসময়ই বিসিসিআইকে টার্গেট করতে চান। যে খাওয়ায়, তার হাত কামড়ানোই এখন ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে।