সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৯:১২ অপরাহ্ন

জাহিদ আহসান রাসেলকে শুভেচ্ছা জানালেন গাজীপুরের পুলিশ কমিশনার

এম এস আই জু‌য়েল পাঠান :  গাজীপুর-২ আসনে পর পর  চারবারের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল প্রতিমন্ত্রী হওয়ায় নিজ নির্বাচনী এলাকার টঙ্গী ও গাজীপুর সর্বত্র আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনী ফলাফলের পর থেকে শুরু হওয়া ফুল দিয়ে শুভেচ্ছার পালা চলছে প্রতিদিনই গাজীপুর ও টঙ্গী আওয়ামীলীগ কার্যালয় ও জাহিদ আহসান রাসেল এমপির বাসভবনেও। গত সাতদিন ধরে গাজীপুরে স্লোগান চলছে রাসেল কে মন্ত্রী করার দাবি।
নৌকার নেতাকর্মীদের ভালবাসায় সিক্ত হচ্ছেন রাসেল। যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল বর্তমান সরকারের নবগঠিত মন্ত্রী সভায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী হওয়ার খবরে আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উৎসবে মেতে উঠে। এ সময় দলীয় নেতাকর্মিরা একজন আরেকজনকে মিষ্টি খাইয়ে দিচ্ছে। গাজীপুর অলিতে গলিতে চলে মিষ্টি বিতরনের হিড়িক।
প্রমবারের মতো এ আসনে মন্ত্রী পাওয়ায় দলমত নির্বিশেষে সাধারন মানুষের মাঝে আনন্দ উল্লাসের শেষে নেই।রোববার বিকালে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল হক এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন মন্ত্রীপরিষদের নাম ঘোষণা করেন। মন্ত্রী পরিষদ সদস্যরা সোমবার বিকাল ৪টায় তারা শপথগ্রহণ করে পরে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহ্সান রাসেল শপথ নেওয়ার পর প্রথমে গাজীপুর মাটি ও মানুষের প্রিয় নেতা শহীদ আহ্সান উল্লা মাস্টার এমপি সমাধীতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
একাদশ জাতীয় সংসদের নবগঠিত মন্ত্রী সভার মাননীয় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জনাব আ,ক,ম, মোজাম্মেল হক এমপিসহ যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহ্সান রাসেল এর নিজ বাস ভবনে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ এর সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব ওয়াই এম বেলালুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জনাব আজাদ মিয়া এবং পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তা বৃন্দ ও টঙ্গী পুর্ব থানার ও‌সি মোঃ কামাল হো‌সেন, টঙ্গী পশ্চীম থানার ও‌সি মোঃ এমদাদুল হক, ও‌সি মোঃ ইসমাইল হো‌সেন  উপস্থিত ছিলেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের টঙ্গী দক্ষিন জোন এর ট্রাফিক ইন্সপেক্টর প্রসাশনিক কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম, টি আই, কা‌দের মোল্লা,টিআই, মশিউর রহমান,   সার্জেন্ট মো. রাসেদুল ইসলাম, সার্জেন্ট মো. রোমান সেখ,  সার্জেন্ট মান্নানসহ ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। পরে এক এক করে আওয়মী লীগ, যুবলীগ লীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ, তাতীলীগ, মহিলা আওয়মী লীগ, যুবমহিলা লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবন্দু যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহ্সান রাসেলকে ফুলের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন
জাহিদ আহসান রাসেল দশম সংসদে যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। গাজীপুরের জনপ্রিয় শ্রমিকনেতা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছেলে জাহিদ আহসান রাসেল ।বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে আহসান উল্লাহ মাস্টার খুন হলে উপ-নির্বাচনে জয়ী হন জাহিদ আহসান রাসেল। পরে ২০০৪ সালের নির্বাচনেও বিপুল ভোটে জয়ী হন তরুন রাসেল। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হন । সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী টানা ততৃীয়বারসহ চতুর্থবার এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে চমক সৃষ্টি করেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপুল ভোটে জয়ী হন জাহিদ আহসান রাসেল। প্রতিদ্বন্দ্বী সালাহউদ্দিন সরকারকে ৩ লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন তিনি। এবার জাহিদ আহসান রাসেল পেয়েছেন ৪ লাখ ১২ হাজার ১৪০ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির সালাউদ্দিন সরকার পেয়েছেন ১ লাখ ১ হাজার ৪০ ভোট।
জাহিদ আহসান রাসেলের জন্ম ১ জানুয়ারী ১৯৭৮ সালে। তার জন্মস্থান গাজীপুর জেলার পূবাইল ইউনিয়নের হায়দরাবাদ গ্রামে। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক লন্ডনে ব্যরিস্টারি পড়ার সময় তার বাবার মৃতু হয় দেশে চলে আসেন। তাকে আওয়ামী লীগ উপনির্বাচনে গাজীপুর-২ সদর আসনে প্রার্থী করা হয়। তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হন।
টঙ্গী সরকারি করেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম বলেন, গাজীপুর-২ আসনে জাহিদ আহসান রাসেল এমপি স্কুল, কলেজ, রাস্তাঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দিও, ক্রীড়াঅঙ্গন, স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। এই উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার জন্য গাজীপুর -২ আসন বাসী চতুর্থ বারের মতো রাসেলকে বিজয়ী করেছে। তিনি শেখ হাসিনার সিক্ত ও ভালোবাসা নিয়ে তিনি প্রতিমন্ত্রীর আসনে বসে গাজীপুর-২ আসন বাসীকে আরো উন্নয়ন করবে বলে আশা করছি।
নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar