ঢাকা ০৮:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কুমিল্লার বুড়িচংয়ে কলেজ ছাত্রী যৌন হয়রানির প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ। গজারিয়া উপজেলা পরিষদ এর মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। টাঙ্গাইলে সৃষ্টি শিক্ষার্থী শিহাব হত্যা মামলায় ৪ আসামির আত্মসমর্পণ, জামিন নামঞ্জুর তেলের মূল্য বৃদ্ধি লোড শেডিং ও দ্রব্যমূল্যর উর্দ্ধগতির প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। খাগড়াছড়ির গুইমারায় শান্তিপরিবহন ও কাভারভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে- নিহত ১ কুষ্টিয়া কুমারখালীর উত্তর মিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক মনিরুল থাকেন প্রবাসে, চাকরি করেন বাংলাদেশে। অষ্টগ্রামের হোসাইনী প্রেমিকগন প্রায় ১৬০ বছর ধরে কারবালার শোক পালন করে আসছে। কুমিল্লার মুরাদনগরে ১৩ জন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বিদায় সংবর্ধনা। বেতাগীর অগ্নিদগ্ধ সেই ইউপি সদস্য শামিম আর নেই! সিলেটে বাড়ছে পানিবাহিত রোগ

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে কুষ্টিয়ায় কেএনবি এ্যাগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ’র ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

মোহাম্মদ রফিক, কুুষ্টিয়া :. কুুষ্টিয়ায় জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে দেশের অন্যতম ফিড তৈরীর প্রতিষ্ঠান কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।
১১ জানুয়ারি (শনিবার) বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়ার বটতৈলে কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ কারাখানা চত্তরে জাতীয় ও প্রতিষ্ঠানের পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন কেএনবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান নাসির ও অন্যতম পরিচালক চামেলি জামান।
এরপর কেক কেটে কেএনবির ৮ম জন্মদিন পালন করা হয়। কেক কাটা শেষে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান নাসিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদের উপ-পরিচালক একে এম আতাউর রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের এডি সিরাজুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি তাইজাল আলী খান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফীন। কুষ্টিয়ায় কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ এর ৮ম বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ কামরুজ্জামান নাসির প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের উদ্দেশে বলেন, আমার একার পক্ষে এতো বড় একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা সম্ভব নয়, আজ আপনারা আমার পাশে আছেন বলেই এই অগ্রযাত্রা ধরে রাখতে পেরেছি। এর দাবীদার আমি একা নই এর দাবীদার কেএনবি পরিবারের সকলেই। আমি আপনাদের উদ্দেশে বলতে চাই কোম্পানীর যে অগ্রযাত্রা আছে সেই অগ্রযাত্রা ধরে রাখা আমার একার একার পক্ষে সম্ভব নয় আপনারা যেভাবে আছেন এর চাইতেও আরও বেগবান করার জন্য আপনাদের আরও কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। আপনারা আমার সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে যে কাজ করে যাচ্ছেন আমি যতদিন এই কোম্পানী চালিয়ে যাব আপনারা আমার সাথে থাকবেন। এই কোম্পানী ইতিমধ্যে আইএসও সার্টিফাইড অর্জন করেছে। আমাদের এই প্রতিষ্ঠান দেশের মধ্যে সর্বপ্রথম ভাসমান মাইক্রোফিড উৎপাদন কারী প্রতিষ্ঠান, আমাদের উৎপাদন দেখে দেশের বড় বড় কিছু কোম্পানী এখন ভাসমান মাইক্রোফিড উৎপাদন করে যাচ্ছেন। এটা উৎপাদনে আমরা একটি বড় ধরনের ঝুঁকি নিয়েছিলাম এর সফলতা শুধু আমার একার নয় এই প্রতিষ্ঠানের টেকনিক্যাল টিমের সকল সদস্যরা এর অংশীদার। তিনি আরও বলেন, আমার এই প্রতিষ্ঠানের অগ্রযাত্রা আমার একার পক্ষে সম্ভব নয় আপনারা সকলেই এর অংশীদার আপনারা আরও আরও কৌশলী হন আগামীতে এই প্রতিষ্ঠান দেশের প্রথম স্থানে আনার জন্য সর্বাত্তক চেষ্টা চালিয়ে যাবেন।
২০১২ সালে গুটি কয়েক লোকবল নিয়ে স্বল্প পরিসরে বটতৈল নামক এই স্থানে ফিড উৎপাদনের জন্য কারখানা স্থাপন করেছিলাম। অনেক বাঁধা বিপত্তি পেরিয়ে আজকের এই প্রতিষ্ঠানটি দেশের মধ্যে মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছে। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ১ হাজার কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কুষ্টিয়ার মানুষের জন্য আমি যেন আরও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারি, শুধু এই প্রতিষ্ঠানটি নিয়ে পড়ে নেই আমি আরও বৃহৎ পরিসরে ব্যবসায়ের প্রসার ঘটিয়ে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করার কাজ হাতে নিয়েছি। গত শনিবার সকালে কেএনবি এ্যগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ’র ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের কর্ণধর ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ কামরুজ্জামান নাসির এসব কথা বলেন। এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ সুনাম সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সুনাম ধরে রেখে একদিন দেশের গোন্ডি পেরিয়ে দেশের বাইরে কুষ্টিয়া তথা দেশের নাম উজ্জ্বল করবে। এমন প্রতিষ্ঠান রয়েছে বলে বেকারত্ব সমস্যা কুষ্টিয়ায় অনেক কম। বক্তারা আরো বলেন, কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ যত বড় হবে তত বেশি কুষ্টিয়ায় মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তাই এই প্রতিষ্ঠানকে সব ধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন বক্তারা। পরে বিকেলে দেশের খ্যাতিমান বিশিষ্ট শিল্পীদের পরিবেশনায় শুরু হয় মণোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। চলে গভীর রাত পর্যন্ত।
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে কলেজ ছাত্রী যৌন হয়রানির প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ।

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে কুষ্টিয়ায় কেএনবি এ্যাগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ’র ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

আপডেট টাইম ০১:১৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১২ জানুয়ারী ২০২০
মোহাম্মদ রফিক, কুুষ্টিয়া :. কুুষ্টিয়ায় জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে দেশের অন্যতম ফিড তৈরীর প্রতিষ্ঠান কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।
১১ জানুয়ারি (শনিবার) বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়ার বটতৈলে কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ কারাখানা চত্তরে জাতীয় ও প্রতিষ্ঠানের পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন কেএনবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান নাসির ও অন্যতম পরিচালক চামেলি জামান।
এরপর কেক কেটে কেএনবির ৮ম জন্মদিন পালন করা হয়। কেক কাটা শেষে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান নাসিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, কুষ্টিয়া পৌর মেয়র আনোয়ার আলী, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদের উপ-পরিচালক একে এম আতাউর রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের এডি সিরাজুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি তাইজাল আলী খান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফীন। কুষ্টিয়ায় কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ এর ৮ম বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ কামরুজ্জামান নাসির প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের উদ্দেশে বলেন, আমার একার পক্ষে এতো বড় একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা সম্ভব নয়, আজ আপনারা আমার পাশে আছেন বলেই এই অগ্রযাত্রা ধরে রাখতে পেরেছি। এর দাবীদার আমি একা নই এর দাবীদার কেএনবি পরিবারের সকলেই। আমি আপনাদের উদ্দেশে বলতে চাই কোম্পানীর যে অগ্রযাত্রা আছে সেই অগ্রযাত্রা ধরে রাখা আমার একার একার পক্ষে সম্ভব নয় আপনারা যেভাবে আছেন এর চাইতেও আরও বেগবান করার জন্য আপনাদের আরও কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। আপনারা আমার সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে যে কাজ করে যাচ্ছেন আমি যতদিন এই কোম্পানী চালিয়ে যাব আপনারা আমার সাথে থাকবেন। এই কোম্পানী ইতিমধ্যে আইএসও সার্টিফাইড অর্জন করেছে। আমাদের এই প্রতিষ্ঠান দেশের মধ্যে সর্বপ্রথম ভাসমান মাইক্রোফিড উৎপাদন কারী প্রতিষ্ঠান, আমাদের উৎপাদন দেখে দেশের বড় বড় কিছু কোম্পানী এখন ভাসমান মাইক্রোফিড উৎপাদন করে যাচ্ছেন। এটা উৎপাদনে আমরা একটি বড় ধরনের ঝুঁকি নিয়েছিলাম এর সফলতা শুধু আমার একার নয় এই প্রতিষ্ঠানের টেকনিক্যাল টিমের সকল সদস্যরা এর অংশীদার। তিনি আরও বলেন, আমার এই প্রতিষ্ঠানের অগ্রযাত্রা আমার একার পক্ষে সম্ভব নয় আপনারা সকলেই এর অংশীদার আপনারা আরও আরও কৌশলী হন আগামীতে এই প্রতিষ্ঠান দেশের প্রথম স্থানে আনার জন্য সর্বাত্তক চেষ্টা চালিয়ে যাবেন।
২০১২ সালে গুটি কয়েক লোকবল নিয়ে স্বল্প পরিসরে বটতৈল নামক এই স্থানে ফিড উৎপাদনের জন্য কারখানা স্থাপন করেছিলাম। অনেক বাঁধা বিপত্তি পেরিয়ে আজকের এই প্রতিষ্ঠানটি দেশের মধ্যে মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছে। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ১ হাজার কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কুষ্টিয়ার মানুষের জন্য আমি যেন আরও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারি, শুধু এই প্রতিষ্ঠানটি নিয়ে পড়ে নেই আমি আরও বৃহৎ পরিসরে ব্যবসায়ের প্রসার ঘটিয়ে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করার কাজ হাতে নিয়েছি। গত শনিবার সকালে কেএনবি এ্যগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ’র ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের কর্ণধর ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ কামরুজ্জামান নাসির এসব কথা বলেন। এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ সুনাম সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সুনাম ধরে রেখে একদিন দেশের গোন্ডি পেরিয়ে দেশের বাইরে কুষ্টিয়া তথা দেশের নাম উজ্জ্বল করবে। এমন প্রতিষ্ঠান রয়েছে বলে বেকারত্ব সমস্যা কুষ্টিয়ায় অনেক কম। বক্তারা আরো বলেন, কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ যত বড় হবে তত বেশি কুষ্টিয়ায় মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তাই এই প্রতিষ্ঠানকে সব ধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন বক্তারা। পরে বিকেলে দেশের খ্যাতিমান বিশিষ্ট শিল্পীদের পরিবেশনায় শুরু হয় মণোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। চলে গভীর রাত পর্যন্ত।