ঢাকা ০৫:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন রেকর্ড গড়ল শাহরুখের ‘পাঠান’ বিদেশেও অপ্রতিরোধ্য সীমান্তে হত্যা এবং মাদকদ্রব্যসহ সকল চোরাচালান বন্ধের দাবিতে সমাবেশ ও কাঁটাতার মিছিল মসজিদে নামাজের মধ্যদিয়ে মুসল্লিদের মাঝে হৃদ্যতা বাড়ে : আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দিন শখ থেকে উদ্যোক্তা, কোয়েল পাখির ডিম বিক্রি করে মাসে আয় আড়াই লাখ। নড়াইল-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুফতি শহিদুল ইসলামের ইন্তেকাল বাউফলে সরকারি চাল বাজারজাত করার সময় বাবা-ছেলে আটক। থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের যথাযথ আইনি সহায়তা প্রদান করুন: আইজিপি জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলে বাংলাদেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারেঃ” আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি” কলাপাড়ার মহিপুরে ৫০ মণ জাটকাসহ ট্রলার জব্দ।

কয়রায় শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

ওবায়দুল কবির সম্রাট: ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সকল প্রকার সামাজিক অবক্ষয়ের হাত থেকে  রক্ষা করার লক্ষ্য নিয়ে কয়রায় ৮ টি শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের মাঝে খেলার  সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। কে এন এইচ -জার্মানী’র  সহযোগীতায় ফেইথ ইন এ্যাকশন (এম সি আর -আই সি ডি) প্রকল্পের আয়োজনে এই সামগ্রী বিতরন করা হয়।বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সকাল ১০ টায় কয়রা সদরের এম সি আর -আই সি ডি প্রকল্প অফিস মিটিং রুমে ক্লাবের সদস্যদের মাঝে বিরতন করা হয়।প্রকল্প ম্যানেজার যাবক টিটু পিনারু’র সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কয়রা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাস। আরো উপস্থিত ছিলেন ফেইন ইন এ্যাকশন এর প্রজেক্ট অফিসার নোয়েল রানা সাহা, ফারহানা জাহান, হিসাব রক্ষক সুবর্ণা টুভু, কৃষি অফিসার উত্তম কুমার কর প্রমুখ। এ সময় অতিথিরা ফেইন ইন এ্যাকশন কার্যক্রমের  প্রশংসা করে বলেন, শিশুরা ফুলের মতো,তাদেরকে আমাদের ফুটতে দিতে হবে।এক জন শিশুকে সঠিক ভাবে বিকাশিত হওয়ার জন্য ক্লাব পর্যায়ে যে ক্রীড়া সামগ্রী  বিতরন করা হয়েছে তা অন্তত্য প্রশংনীয় উদ্যেগ। খেলাধুলার মাধ্যমে একজন শিশু ও  কিশোর-কিশোরী শারীরিক ও মানসিক ভাবে ভালো থাকবে। এর ফলে মাদক ও বাল্য বিয়ের হাত থেকে এদেরকে রক্ষা করা যাবে। এর মাধ্যমেই আমরা আগামী দিনে সুস্থ সবল জাতি পাবো।
ক্রীড়া সামগ্রী  নিতে আসা শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের ৪টা ইউনিয়ন থেকে আসা সীমা,রাকিব,আম্বিয়া, হাসিবসহ আরো অনেকেই জানান, আমরা ক্লাবে নিয়মিত বাল্য বিয়ে, যৌতুক,নারী নিার্যাতন,শিশুর অধিকার সহ নানা বিশষ নিয়ে আলোচনা করলেও আমাদের খেলাধুলা করার জন্য তেমন কোন কিছু ছিলো না।  আজ যে খেলার সমাগ্রী হিসাবে বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে এতে করে আমরা আনন্দিত। আমরা আশাকরি এতে করে আমাদের শারীরিক বিকাশে অনেক ভূমিকা রাখবে।
Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন

কয়রায় শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

আপডেট টাইম ১০:৪৮:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ অগাস্ট ২০২০
ওবায়দুল কবির সম্রাট: ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সকল প্রকার সামাজিক অবক্ষয়ের হাত থেকে  রক্ষা করার লক্ষ্য নিয়ে কয়রায় ৮ টি শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের মাঝে খেলার  সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। কে এন এইচ -জার্মানী’র  সহযোগীতায় ফেইথ ইন এ্যাকশন (এম সি আর -আই সি ডি) প্রকল্পের আয়োজনে এই সামগ্রী বিতরন করা হয়।বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) সকাল ১০ টায় কয়রা সদরের এম সি আর -আই সি ডি প্রকল্প অফিস মিটিং রুমে ক্লাবের সদস্যদের মাঝে বিরতন করা হয়।প্রকল্প ম্যানেজার যাবক টিটু পিনারু’র সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কয়রা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাস। আরো উপস্থিত ছিলেন ফেইন ইন এ্যাকশন এর প্রজেক্ট অফিসার নোয়েল রানা সাহা, ফারহানা জাহান, হিসাব রক্ষক সুবর্ণা টুভু, কৃষি অফিসার উত্তম কুমার কর প্রমুখ। এ সময় অতিথিরা ফেইন ইন এ্যাকশন কার্যক্রমের  প্রশংসা করে বলেন, শিশুরা ফুলের মতো,তাদেরকে আমাদের ফুটতে দিতে হবে।এক জন শিশুকে সঠিক ভাবে বিকাশিত হওয়ার জন্য ক্লাব পর্যায়ে যে ক্রীড়া সামগ্রী  বিতরন করা হয়েছে তা অন্তত্য প্রশংনীয় উদ্যেগ। খেলাধুলার মাধ্যমে একজন শিশু ও  কিশোর-কিশোরী শারীরিক ও মানসিক ভাবে ভালো থাকবে। এর ফলে মাদক ও বাল্য বিয়ের হাত থেকে এদেরকে রক্ষা করা যাবে। এর মাধ্যমেই আমরা আগামী দিনে সুস্থ সবল জাতি পাবো।
ক্রীড়া সামগ্রী  নিতে আসা শিশু ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের ৪টা ইউনিয়ন থেকে আসা সীমা,রাকিব,আম্বিয়া, হাসিবসহ আরো অনেকেই জানান, আমরা ক্লাবে নিয়মিত বাল্য বিয়ে, যৌতুক,নারী নিার্যাতন,শিশুর অধিকার সহ নানা বিশষ নিয়ে আলোচনা করলেও আমাদের খেলাধুলা করার জন্য তেমন কোন কিছু ছিলো না।  আজ যে খেলার সমাগ্রী হিসাবে বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে এতে করে আমরা আনন্দিত। আমরা আশাকরি এতে করে আমাদের শারীরিক বিকাশে অনেক ভূমিকা রাখবে।