বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়ার সুগার মিলে দক্ষ শ্রমিক ছাঁটাই করে অদক্ষ শ্রমিক নিয়োগের অভিযোগ

মোঃ রাছেল রানা জেলা প্রতিনিধি: বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের আদেশ অমান্য করে কুষ্টিয়া সুগার মিলে দক্ষ শ্রমিকদের ছাঁটাই করে অদক্ষ শ্রমিকদের নিয়োগ দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কুষ্টিয়া সুগার মিলে শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২৯শে মে ২০১৯ইং। নির্বাচনে শ্রমিক ইউনিয়নের নতুন কমিটি দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকেই শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রক্রিয়া শুরু হয় বলে অভিযোগ করে শ্রমিকরা। এদিকে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের অফিস আদেশ অনুযায়ী শুণ্য পদ ছাড়া কানামনা/চুক্তিভিত্তিক/দৈনিক হাজিরা ভিত্তিক কর্মরত জনবলকে বাদ দিয়ে নতুন জনবল নিয়োগ করা যাবেনা। কিন্তু বর্তমানে সেই আদেশ অমান্য করে, ক্ষমতার জোর দেখিয়ে শ্রমিক ছাঁটাই ও নতুন শ্রমিক নিয়োগ চলছে কুষ্টিয়ার সুগারমিলে। আর এই অভিযোগ উঠেছে স্বয়ং সুগার মিল শ্রমিক ইউনিয়নের বর্তমান কমিটির দিকে। ইতিমধ্যে শ্রমিক ইউনিয়নের কমিটির সদস্যরা দীর্ঘদিন যাবৎ কর্মরত দক্ষ শ্রমিকদের বাদ দিয়ে নতুন শ্রমিক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে জানা যায়। এছাড়াও কোন নোটিশ বা আইনসিদ্ধ কোন কিছু না জানিয়েই জোর করে শ্রমিকদের হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর না করতে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। এমকি নতুন শ্রমিকদের নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন না করেই নতুন হাজিরা খাতা করে স্বাক্ষর গ্রহণ করছে ইউনিয়নের সদস্যরা। সরেজিমনে গিয়ে দেখা যায়, কুষ্টিয়ার সুগার মিলে তিন থেকে দশ বছর সময় ধরে যারা কর্মরত রয়েছে, এমন শ্রমিককেও বাদ দেওয়া হয়েছে কোন কারণ ছাড়াই। এ যেন রামরাজত্ব চলছে কুষ্টিয়া সুগার মিলে। এ বিষয়ে দশ বছর ধরে কর্মরত ম্যান্টেনেস হেলপার আল-আমিন জানায়, আমাকে জোর পূর্বকভাবে কাজ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে আমাকে হাজিরা খাতায়ও স্বাক্ষর করতে দেওয়া হচ্ছে না। কুষ্টিয়ার সুগার মিলে কর্মরত ড্রাইভার মাসুদ জানায়, আমার কাছ থেকে জোরপূর্বক গাড়ি চাবি ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। আমাকে আর কোন দায়িত্ব পালন করতে দেওয়া হচ্ছে না। এ বিষয়ে ট্রান্সপোর্ট হেলপার আরিফুল ইসলাম জানায়, শ্রমিক নিয়োগ বা ছাঁটায়ের কোন নিয়ম না থাকলেও ইতিমধ্যে শ্রমিক ছাঁটাই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এমনকি ছাঁটাইয়ের জন্য নতুন লিষ্টও প্রদান করা হয়েছে অফিসে। এ বিষয়ে কুষ্টিয়া সুগার মিলের শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক হোসেন জানায়, আমরা সদর দপ্তরের নির্দেশ মোতাবেক কাজ করছি, এখানে আমাদের নিজের মতামতের উপরে কোন কাজ হচ্ছে না। তিনি আরো বলেন, যাদের বাদ দেওয়া হচ্ছে তারা কোন শ্রমিক নয়। কুষ্টিয়া সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম সরোয়ার মোর্শেদ জানায়, শ্রমিক নিয়োগ বা ছাঁটায়ের বিষয়ে আমি কিছু জানি না। এদিকে কুষ্টিয়ার সুগার মিলে দক্ষ শ্রমিকদের বাদ দিয়ে অদক্ষ শ্রমিক নিয়োগ দেওয়ায় সুগার মিলে কর্মরত শ্রমিকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar