ঢাকা ০১:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হানিমুনে এসে স্বামীকে পিটিয়ে উধাও নববধূঃ প্রেমিকসহ গ্রেফতার এক ইলিশের দাম ৫ হাজার কলাপাড়ায় গাঁজাসহ ৪ জন গ্রেফতার প্রবাসে কাজের সন্ধানে গিয়ে প্রবাসীর মৃত্যু , তিন মাসপর নিজ বাড়িতে দাফন পটুয়াখালী জেলা শাখার সোনালী অতীত ক্লাবের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত দুর্গাপূজায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রতি নির্দেশ আইজিপির অবৈধ দখল বাজদের দখলে বাকেরগঞ্জের পৌর শহরের বুক চিরে বয়ে যাওয়া শ্রীমন্ত নদীর দু পাশ প্রধানমন্ত্রীর ৭৬ তম জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছন সোনারগাঁয়ে কাঁচপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী সভা ও সদস্য সংগ্রহ বাকেরগঞ্জে সোশাল ইসলামি ব্যাংকের ১৪৩ তম শাখা উদ্ভোধন

কমলনগরে চেয়ারম্যান পিতা -সদস্য পুত্র নির্বাচিত

ভাস্কর মজুমদার (নিজস্ব প্রতিবেদক); লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পিতা ও সদস্য পদে পুত্র নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় বারের মত বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ। একই ইউনিয়নে তার পুত্র ইসলামী আন্দোলন সমর্থিত মুফতী নুরুল্লাহ খালিদ ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।
১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীকে ৪ হাজার ৭৬৮ ভোট পেয়ে মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আশরাফ উদ্দিন রাজন রাজু মোটর সাইকেল প্রতীকে ৩ হাজার ৭৯৭ ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী নুরুল ইসলাম সাগর ১ হাজার ৫১৩ ভোট পেয়েছেন। এছাড়া চশমা প্রতিকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল মোল্লা পেয়েছেন ১১৪২ ভোট ও বিএনপি সমর্থিত আনারস প্রতিকের প্রার্থী হোসেন হাওলাদার পেয়েছেন ১০৬৫ ভোট।
নির্বাচিত মাওলানা খালেদ সাইফুল্লার ছেলে মুফতী নুরুল্লাহ খালিদ ৭০০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে সদস্য নির্বাচিত হন। এ ব্যাপারে খালেদ সাইফুল্লাহ বলেন, আল্লাহর রহমতে সততার সঙ্গে ৫ বছর পরিষদ চালিয়েছি। মানুষকে ন্যায্য অধিকার পাইয়ে দিয়েছি। উৎসবমুখর পরিবেশে তারা আমাকে ও আমার ছেলেকে ভোট দিয়ে জয়ী করেছেন। জনগণের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি।
এদিকে চরম উৎকন্ঠা উদ্বিগ্নতা আর ব্যাপক আশঙ্কা সত্ত্বেও নানা অভিযোগ আর অসঙ্গতির মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে কমলনগরের চর মার্টিন, চর লরেন্স ও চর কাদিরা এবং রামগতির চরগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। কমলনগরের চর মার্টিনে নৌকায় প্রকাশ্যে ভোট দিতে বাধ্য করা হয়েছে এবং ভোটারদের হাত থেকে ব্যালট পেপার কেঁড়ে নেয়ার অভিযোগ নৌকা প্রার্থীর ইউছুফ আলীর লোকজনের বিরুদ্ধে বিএনপিপন্থি স্বতন্ত্রপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করে বলেন, এক দু’টি কেন্দ্র ছাড়া বাকী সব কেন্দ্রে নৌকা প্রার্থীর লোকজন ভোটারের হাত থেকে ব্যালট কেঁড়ে নিয়ে নৌকায় তারা সিল মারে।
উপজেলার চর কাদিরা ইউনিয়নে তুলনামূলক কিছুটা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে। দুপুরবেলায় একযোগে কেন্দ্র দখলের অপচেষ্টা নস্যাৎ করে সব ওয়ার্ডের ভোটাররা নিবিঘ্নে ভোট দিতে পরেছেন বলে জানান।
সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য মতে নৌকা প্রতীক নিয়ে চর মার্টিনে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। আর হাতপাখা প্রতীক নিয়ে চর কাদিরা ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আল্লামা খালেদ সাইফুল্লাহ।
এদিকে, চর লরেন্স ইউনিয়নে আগেই বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম নুরুল আমিন মাস্টার। তবে চর লরেন্স ইউনিয়নে মেম্বার ও মহিলা মেম্বার পদে শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ইউনিয়নে কোনো প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া যায়নি। রামগতির চরগাজী ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ হয়েছে। তবে ভোটে আগের দিন রাতে উপজেলার চরগাজীর ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী শেখ ফরিদ (ফুটবল) ভোট কেন্দ্র দখলে নিতে তার লোকজন নিয়ে হামলা-গুলির ঘটনা ঘটিয়েছে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আজাদ উদ্দিন ও ধারালো অস্ত্রের কোপে আহত জাফর আলীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ আজাদ প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী আবদুর রব বেপারীর (মোরগ) ভগ্নিপতি ও আহত জাফর তার ভাগিনা। আহতরা চরগাজীর বয়ারচর গ্রামের বাসিন্দা।
রামগতি থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, হামলা ও গুলির ঘটনার তদন্ত চলছে। তদন্ত অনুযায়ী ও অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে রামগতির চরগাজি ছাড়াও কমলনগরের চর কাদিরা, চরলরেন্স ও চরমার্টিন ইউনিয়নে ১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।
কমলনগর উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ডা. জায়েদুল হোসেন চৌধুরী বলেন, কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট শেষ হয়েছে। ভোটে কোনো অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

হানিমুনে এসে স্বামীকে পিটিয়ে উধাও নববধূঃ প্রেমিকসহ গ্রেফতার

কমলনগরে চেয়ারম্যান পিতা -সদস্য পুত্র নির্বাচিত

আপডেট টাইম ০৫:২৭:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ নভেম্বর ২০২১

ভাস্কর মজুমদার (নিজস্ব প্রতিবেদক); লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পিতা ও সদস্য পদে পুত্র নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় বারের মত বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ। একই ইউনিয়নে তার পুত্র ইসলামী আন্দোলন সমর্থিত মুফতী নুরুল্লাহ খালিদ ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।
১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীকে ৪ হাজার ৭৬৮ ভোট পেয়ে মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আশরাফ উদ্দিন রাজন রাজু মোটর সাইকেল প্রতীকে ৩ হাজার ৭৯৭ ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী নুরুল ইসলাম সাগর ১ হাজার ৫১৩ ভোট পেয়েছেন। এছাড়া চশমা প্রতিকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল মোল্লা পেয়েছেন ১১৪২ ভোট ও বিএনপি সমর্থিত আনারস প্রতিকের প্রার্থী হোসেন হাওলাদার পেয়েছেন ১০৬৫ ভোট।
নির্বাচিত মাওলানা খালেদ সাইফুল্লার ছেলে মুফতী নুরুল্লাহ খালিদ ৭০০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে সদস্য নির্বাচিত হন। এ ব্যাপারে খালেদ সাইফুল্লাহ বলেন, আল্লাহর রহমতে সততার সঙ্গে ৫ বছর পরিষদ চালিয়েছি। মানুষকে ন্যায্য অধিকার পাইয়ে দিয়েছি। উৎসবমুখর পরিবেশে তারা আমাকে ও আমার ছেলেকে ভোট দিয়ে জয়ী করেছেন। জনগণের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি।
এদিকে চরম উৎকন্ঠা উদ্বিগ্নতা আর ব্যাপক আশঙ্কা সত্ত্বেও নানা অভিযোগ আর অসঙ্গতির মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে কমলনগরের চর মার্টিন, চর লরেন্স ও চর কাদিরা এবং রামগতির চরগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। কমলনগরের চর মার্টিনে নৌকায় প্রকাশ্যে ভোট দিতে বাধ্য করা হয়েছে এবং ভোটারদের হাত থেকে ব্যালট পেপার কেঁড়ে নেয়ার অভিযোগ নৌকা প্রার্থীর ইউছুফ আলীর লোকজনের বিরুদ্ধে বিএনপিপন্থি স্বতন্ত্রপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করে বলেন, এক দু’টি কেন্দ্র ছাড়া বাকী সব কেন্দ্রে নৌকা প্রার্থীর লোকজন ভোটারের হাত থেকে ব্যালট কেঁড়ে নিয়ে নৌকায় তারা সিল মারে।
উপজেলার চর কাদিরা ইউনিয়নে তুলনামূলক কিছুটা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে। দুপুরবেলায় একযোগে কেন্দ্র দখলের অপচেষ্টা নস্যাৎ করে সব ওয়ার্ডের ভোটাররা নিবিঘ্নে ভোট দিতে পরেছেন বলে জানান।
সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য মতে নৌকা প্রতীক নিয়ে চর মার্টিনে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। আর হাতপাখা প্রতীক নিয়ে চর কাদিরা ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আল্লামা খালেদ সাইফুল্লাহ।
এদিকে, চর লরেন্স ইউনিয়নে আগেই বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম নুরুল আমিন মাস্টার। তবে চর লরেন্স ইউনিয়নে মেম্বার ও মহিলা মেম্বার পদে শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ইউনিয়নে কোনো প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া যায়নি। রামগতির চরগাজী ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ হয়েছে। তবে ভোটে আগের দিন রাতে উপজেলার চরগাজীর ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী শেখ ফরিদ (ফুটবল) ভোট কেন্দ্র দখলে নিতে তার লোকজন নিয়ে হামলা-গুলির ঘটনা ঘটিয়েছে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আজাদ উদ্দিন ও ধারালো অস্ত্রের কোপে আহত জাফর আলীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুলিবিদ্ধ আজাদ প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী আবদুর রব বেপারীর (মোরগ) ভগ্নিপতি ও আহত জাফর তার ভাগিনা। আহতরা চরগাজীর বয়ারচর গ্রামের বাসিন্দা।
রামগতি থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, হামলা ও গুলির ঘটনার তদন্ত চলছে। তদন্ত অনুযায়ী ও অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে রামগতির চরগাজি ছাড়াও কমলনগরের চর কাদিরা, চরলরেন্স ও চরমার্টিন ইউনিয়নে ১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।
কমলনগর উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ডা. জায়েদুল হোসেন চৌধুরী বলেন, কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট শেষ হয়েছে। ভোটে কোনো অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।