ঢাকা ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রেকর্ড দরপতন মুদ্রার , ১ মার্কিন ডলার কিনতে হচ্ছে ২৫৫ পাকিস্তানি রুপিতে মাতৃত্বকালীন কার্ড প্রদানে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ,ইউপি সচিবসহ আটক দুই মতলব উত্তরে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জাতীয় ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুমিল্লা জেলা ক্রিকেট কমিটির সভাপতির পদ থেকে থেকে পদত্যাগ করেছেন সাইফুল আলম রনি কুলাউড়ায় ফাহিম স্মৃতি দ্বৈত নক আউট ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০২৩, শুভ উদ্বোধনী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে পরিত্যাক্ত স্কুল ভবন থেকে ৬৮ রাউন্ড এলএমজি গুলি উদ্ধার। ফরিদগঞ্জে যাত্রা শুরু করেছে এক্স স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন অবিভাবক শূণ্যতায় অস্তিত্ব বিলিনের পথে ডাকাতিয়া রামপালে সুইডেনের দূতাবাসে পবিত্র কুরআন পোড়ানোর ঘটনায় প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত সারা দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় ফারিয়ার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন

ওয়াই-ফাই-সুবিধার ইন্টারনেট সেবা দিতে পরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুক

বিশ্বের ৩৮০ কোটির বেশি মানুষ এখনো ইন্টারনেট-সুবিধার বাইরে। বর্তমানে ২২০ কোটির বেশি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করছে। ফেসবুক ব্যবহারকারী বাড়াতে আরও বেশি মানুষকে ইন্টারনেটের আওতায় আনতে হবে। কিন্তু বিশ্বের প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোকে ইন্টারনেটের আওতায় আনা কঠিন কাজ। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নানা উপায়ে সুবিধাবঞ্চিত অঞ্চলগুলোকে ইন্টারনেটের আওতায় আনার পরিকল্পনা করছে।

বর্তমানে বিভিন্ন প্রযুক্তি যন্ত্রাংশ নির্মাতা ও মোবাইল অপারেটরদের সঙ্গে চুক্তি করে ওয়াই-ফাই সেবা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে।

ফেসবুকের সাম্প্রতিক এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়, তারা এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই পরিকল্পনা হালনাগাদ করেছে। এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই হচ্ছে, যেসব অঞ্চলে ইন্টারনেট-সংযোগ কম, সেখানে হটস্পট ও ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক স্থাপন করা।

বুধবার ফেসবুকের ওয়্যারলেস সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার ভিশ পোনামপালাম এক ব্লগ পোস্টে লিখেছেন, ‘আমাদের টিম সহজে নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনা করা যায়—এমন সফটওয়্যার তৈরি করেছে, যা মেশ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে যুক্ত করা যাবে। এটি নতুন রাউটিং ফ্রেমওয়ার্কে কাজ করবে। ৫০ বা তার বেশি অ্যাকসেস পয়েন্টে এটি কার্যকর থাকবে।

তারহীন মেশ নেটওয়ার্ক (ডব্লিউএমএন) হচ্ছে একটি কমিউনিকেশন বা যোগাযোগের নেটওয়ার্ক বা রেডিও নোডসের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। মেশ হচ্ছে কোনো ডিভাইস বা নোডসের মধ্যে উন্নত যোগাযোগের প্রযুক্তি।

বর্তমানে তানজানিয়ায় মেশ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কিংয়ের পরীক্ষামূলক কর্মসূচি চালাচ্ছে ফেসবুক। এর বাইরে দুবাই, ইসরায়েল ও আয়ারল্যান্ডে এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুকের পৃথক টিম।

পোনামপালাম বলেন, ‘আমরা যে প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছি, তা সম্ভাব্য ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের সীমা ছাড়িয়ে যাবে।’

এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই উদ্যোগটির মাধ্যমে পাবলিক হটস্পট থেকে ইন্টারনেট সেবার সুবিধা শুরুতে পাঁচটি দেশে চালু হচ্ছে। দেশগুলো হচ্ছে ভারত, কেনিয়া, তানজানিয়া, নাইজেরিয়া ও ইন্দোনেশিয়া।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা যে ইন্টারনেট-সুবিধা তৈরি করছে, তাতে কম খরচে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পাবে মানুষ। বিশ্বের ৩৮০ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট-সুবিধা দিতে তাদের এ উদ্যোগ।

এর আগে ফেসবুক অ্যাকুইলা নামের সৌরশক্তিচালিত ড্রোনের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। পরে অবশ্য সে পরিকল্পনা থেকে তারা সরে আসে। এরপর কৃত্রিম উপগ্রহের মাধ্যমে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার একটি পৃথক পরিকল্পনার কথা জানায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এবারে এল ওয়াই-ফাইয়ের মাধ্যমে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার প্রকল্প।

Tag :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

রেকর্ড দরপতন মুদ্রার , ১ মার্কিন ডলার কিনতে হচ্ছে ২৫৫ পাকিস্তানি রুপিতে

ওয়াই-ফাই-সুবিধার ইন্টারনেট সেবা দিতে পরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুক

আপডেট টাইম ০৯:৫৪:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৮

বিশ্বের ৩৮০ কোটির বেশি মানুষ এখনো ইন্টারনেট-সুবিধার বাইরে। বর্তমানে ২২০ কোটির বেশি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করছে। ফেসবুক ব্যবহারকারী বাড়াতে আরও বেশি মানুষকে ইন্টারনেটের আওতায় আনতে হবে। কিন্তু বিশ্বের প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোকে ইন্টারনেটের আওতায় আনা কঠিন কাজ। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নানা উপায়ে সুবিধাবঞ্চিত অঞ্চলগুলোকে ইন্টারনেটের আওতায় আনার পরিকল্পনা করছে।

বর্তমানে বিভিন্ন প্রযুক্তি যন্ত্রাংশ নির্মাতা ও মোবাইল অপারেটরদের সঙ্গে চুক্তি করে ওয়াই-ফাই সেবা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে।

ফেসবুকের সাম্প্রতিক এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়, তারা এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই পরিকল্পনা হালনাগাদ করেছে। এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই হচ্ছে, যেসব অঞ্চলে ইন্টারনেট-সংযোগ কম, সেখানে হটস্পট ও ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক স্থাপন করা।

বুধবার ফেসবুকের ওয়্যারলেস সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার ভিশ পোনামপালাম এক ব্লগ পোস্টে লিখেছেন, ‘আমাদের টিম সহজে নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনা করা যায়—এমন সফটওয়্যার তৈরি করেছে, যা মেশ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে যুক্ত করা যাবে। এটি নতুন রাউটিং ফ্রেমওয়ার্কে কাজ করবে। ৫০ বা তার বেশি অ্যাকসেস পয়েন্টে এটি কার্যকর থাকবে।

তারহীন মেশ নেটওয়ার্ক (ডব্লিউএমএন) হচ্ছে একটি কমিউনিকেশন বা যোগাযোগের নেটওয়ার্ক বা রেডিও নোডসের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। মেশ হচ্ছে কোনো ডিভাইস বা নোডসের মধ্যে উন্নত যোগাযোগের প্রযুক্তি।

বর্তমানে তানজানিয়ায় মেশ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কিংয়ের পরীক্ষামূলক কর্মসূচি চালাচ্ছে ফেসবুক। এর বাইরে দুবাই, ইসরায়েল ও আয়ারল্যান্ডে এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুকের পৃথক টিম।

পোনামপালাম বলেন, ‘আমরা যে প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছি, তা সম্ভাব্য ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের সীমা ছাড়িয়ে যাবে।’

এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই উদ্যোগটির মাধ্যমে পাবলিক হটস্পট থেকে ইন্টারনেট সেবার সুবিধা শুরুতে পাঁচটি দেশে চালু হচ্ছে। দেশগুলো হচ্ছে ভারত, কেনিয়া, তানজানিয়া, নাইজেরিয়া ও ইন্দোনেশিয়া।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা যে ইন্টারনেট-সুবিধা তৈরি করছে, তাতে কম খরচে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পাবে মানুষ। বিশ্বের ৩৮০ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট-সুবিধা দিতে তাদের এ উদ্যোগ।

এর আগে ফেসবুক অ্যাকুইলা নামের সৌরশক্তিচালিত ড্রোনের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। পরে অবশ্য সে পরিকল্পনা থেকে তারা সরে আসে। এরপর কৃত্রিম উপগ্রহের মাধ্যমে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার একটি পৃথক পরিকল্পনার কথা জানায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এবারে এল ওয়াই-ফাইয়ের মাধ্যমে ইন্টারনেট-সুবিধা দেওয়ার প্রকল্প।