বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন

এই কুতিনহোর দাম কি ১৬০ মিলিয়ন ইউরো?

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক : প্রথম একাদশে লিওনেল মেসি নেই। মাঝমাঠের দায়িত্ব তাঁকেই নিতে হতো। সেই দায়িত্বের ভারেই কি ভেঙে পড়লেন ফিলিপ কুতিনহো! স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রশ্ন, এই কুতিনহোর দাম কি ১৬০ মিলিয়ন ইউরো?

ওউসমানে ডেম্বেলে চোট পাওয়ার থেকেই বার্সার একাদশে নিয়মিত এই ব্রাজিলিয়ান। এই কোপা দেল রে টুর্নামেন্টেই লেভান্তে, এইবার আর সেভিয়ার বিপক্ষে হারানো আত্মবিশ্বাস পুনরুদ্ধারের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন কুতিনহো। কিন্তু কাল রাতের বড় মঞ্চটাই ছিল তাঁর পারফর্ম করার মোক্ষম জায়গা। চোটের কারণে মেসির অনুপস্থিতিতে বার্সার আক্রমণভাগের দায়িত্ব নিতে হতো তাঁকেই। কাল কুতিনহো এই দায়িত্ব পালনে পুরোপুরি ব্যর্থ। অগত্যা বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে ৬৩ মিনিটে তাঁকে তুলে মাঠে নামিয়েছেন লিওনেল মেসিকে।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘স্পোর্ত’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘কাল কুতিনহোর খেলা দেখে অন্তত মনে হয়নি সে বার্সার ইতিহাসে সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। একদিন এ নিয়ে কথা বলতেই হবে। বড় মঞ্চে কুতিনহোকে পার্থক্য গড়ে দিতে হতো, বিশেষ করে যখন মেসি খেলছে না।’ বরাবরের মতোই বাঁ প্রান্তে খেলেছেন এই ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার। আক্রমণে উঠতে কিংবা সাজাতে মোটেও সাহসী ভূমিকায় দেখা যায়নি কুতিনহোকে। উল্টো তাঁকে বোতলবন্দী করে রেখেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার দানি কারবাহল।

পারফরম্যান্স খারাপ হতেই পারে। তবে সবচেয়ে আশ্চর্যের ব্যাপার হলো, কুতিনহো কাল অসংখ্যবার বলের দখল হারিয়েছেন। এমনকি দখল হারিয়ে পুনরায় বল কাড়তেও পারেননি। সব মিলিয়ে রাতটি কোনোভাবেই তাঁর ছিল না। পাস, খেলা তৈরি, দূরদর্শিতা কিংবা ফিনিশিং এসব তো অনেক দূরের ব্যাপার। মাত্র দুটি শট নিয়েছিলেন, একটি মেরেছেন পোস্টের বাইরে আরেকটি এক তুড়িতে ‘সেভ’ করেছেন রিয়াল গোলরক্ষক।

‘স্পোর্ত’-এর প্রতিবেদক লুই মাসকারো তাই কোনো রাখঢাক রাখেননি। প্রতিবেদনে সোজাসাপ্টা লিখেছেন, ‘প্রায় এক বছরের বেশি সময় বার্সায় খেলছেন কুতিনহো। দিন যত গড়াচ্ছে তাঁর খেলা যা আরও খারাপ হচ্ছে। যা তাঁর দামের সঙ্গে কোনোভাবেই যায় না। ক্লাবের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি সাইনিং বলে কথা! এমনকি তিনি মেসিকেও সাহায্য করতে পারছে না। কোনো কিছুই কুতিনহোর পক্ষে কাজ করছে না। এ নিয়ে কোনো অজুহাত চলে না আবার বিষয়টি ক্ষমা করার মতোও নয়। কুতিনহোকে অবশ্যই পারফর্ম করতে হবে নতুবা বিক্রির অযোগ্য হওয়ার আগেই জুনে ক্লাব ছাড়তে হবে।’

সূত্র : প্রথম আলো

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar