সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

ইভিএম ব্যবহারে সুযোগ রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

ফাইল ছবি

মাতৃভূমির খবর ডেস্ক:  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যালট পেপারের পাশাপাশি ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন, ইভিএম ব্যবহারের সুযোগ রেখে, সংশোধিত গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, আরপিও’র অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রীসভা। আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রীসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। সংশোধিত গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ জাতীয় সংসদ উত্থাপন না হয়ে, রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ অনুযায়ী কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম ।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, অনুমোদিত আইনে, অনলাইনে একজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া মনোমনয়নপত্র জমা দেবার ৭ দিন আগে খেলাপী ঋণ পরিশোধের বিধান তুলে দিয়ে মনোনয়পত্র জমা দেয়ার দিনও তা শোধ করার বিধান যুক্ত করা হয়েছে।

ইভিএম এ ভোটগ্রহণের ক্ষেত্রে যথেষ্ট নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে দাবি করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এখানে হ্যাকিং বা কারচুপি করার কোনও সুযোগ থাকবে না। আইনটি পাশের জন্য শিগগিরই রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে বিএনপিসহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের বিরোধিতা এবং নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের আপত্তির মুখে গত ৩০শে অগাস্ট আরপিও সংশোধনের সিদ্ধান্ত নেয় ইসি।

এরপর গত ৩রা সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন, ইভিএম ব্যবহারের লক্ষ্যে আইন সংশোধনের জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ-আরপিও প্রস্তাব আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠায় নির্বাচন কমিশন।

বর্তমান আরপিও অনুযায়ী, সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের কোনও বিধান নেই। কিন্তু নির্বাচন কমিশন সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিষয়টি আরপিওতে অন্তর্ভুক্ত করতে চাচ্ছে। ইভিএম অন্তর্ভুক্তি ছাড়াও আরপিও বাংলায় রূপান্তরসহ কয়েকটি সংশোধনী রয়েছে।

আরপিও সংশোধন প্রস্তাবে ইভিএমের পাশাপাশি অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিল, মনোনয়নপত্র দাখিলের দিন পর্যন্ত ঋণ পুনঃতফসিল করার সুযোগ, ১২ ডিজিটের টিআইএন সনদ দাখিলের বিষয়টিও আরপিওতে যুক্ত করার প্রস্তাব রাখে নির্বাচন কমিশন। এসব বিধান রেখেই মন্ত্রীসভায় আরপিও’র অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar