মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৬:৩৬ অপরাহ্ন

আগামী বছর ঢাকা আসছেন সৌরভ গাঙ্গুলি

স্পোর্টস ডেস্কঃ ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই বড় এক সিদ্ধান্ত নেন সৌরভ গাঙ্গুলি। স্বল্প সময়ের মধ্যে আয়োজন করেছেন দিবা-রাত্রির টেস্ট। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও রাজি করিয়েছেন ঐতিহাসিক টেস্টে সাক্ষী হতে। গেল শুক্রবার ইডেন বেল বাজিয়ে খেলার উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী ঢাকায় ফেরার সময় ভারতের সাবেক এই তারকা ক্রিকেটার নিশ্চিত করেছেন আগামী বছর বাংলাদেশ সফর করছেন তিনি।

আরো পড়ুনঃ  রোহিঙ্গা নিয়ে মিয়ানমারের অন্যায় প্রচারণা বন্ধ করতে হবে: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন দলকে রাজি করানো পর, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকেও গোলাপি বল টেস্টের জন্য রাজি করাতে সক্ষম হন প্রিন্স অব কলকাতা খ্যাত এই তারকা।

এরপরই আমন্ত্রণ জানানো হয় বাংলাদেশের সরকার প্রধানকে। ইডেন গার্ডেনসে উপস্থিত হয়ে শেখ হাসিনা জানান, সৌরভের ডাকে সারা দিয়েই  কলকাতায় সংক্ষিপ্ত সফর করেছেন তিনি।

প্রথমবারের মতো দুই দলের গোলাপি বলে টেস্ট খেলা শুরুর আগে সৌরভ যাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন তাদের মধ্যে প্রায় সবাই যোগ দেন। এই টেস্ট ম্যাচকে ক্রিকেট উৎসবে পরিণত করতে সক্ষম হন বিসিসিআই প্রধান।

সব মিলিয়ে বাংলাদেশ-ভারতের ‘পিংক টেস্ট’র দ্বিতীয় দিন বেশ ফুরফুরে মেজাজে ছিলেন সৌরভ। প্রথম দিন অতিরিক্ত ব্যস্ততার কারণে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে পারেননি।

শনিবার বিসিসিআইয়ের সর্বোচ্চ এই কর্তা জানান, কলকাতা থেকে বিদায় নেয়ার আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সৌরভের থেকে একটা প্রতিশ্রুতি আদায় করে নিয়েছেন। আগামী বছর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ। সেই উপলক্ষ্যে ঢাকার মাটিতে এশিয়া অল স্টার ও বিশ্ব একাদশের দুটি প্রদর্শনী টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হবে। সেখানেই সৌরভকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন শেখ হাসিনা। বিসিসিআই বস জানিয়েছেন, অবশ্যই তিনি যাবেন সেই অনুষ্ঠানে।

ম্যাচের দ্বিতীয় দিন বিরাটের শতরান দেখেছেন সৌরভ। ক্রিকেটের দাদা খ্যাত এই তারকা জানিয়েছে, লাল বলের থেকে বেশি ভাল দেখা যাচ্ছে গোলাপি বল।

‘লাল বলের চেয়ে টেস্টে গোলাপি বলের দৃশ্যমানতা অনেক ভালো বলেই মনে হয়েছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar