রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০২:৪৩ অপরাহ্ন

অস্ত্রসহ ক্যাসিনোর সভাপতি যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় তাকে তার গুলশানের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাবের অভিযানে এখন পর্যন্ত ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া বিপুল পরিমাণ টাকাও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

আরো পড়ুন :  রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে দুই জেএসএস কর্মী খুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় যুবলীগ নেতাদের নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশের পর আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনটির প্রভাবশালী নেতা খালেদকে ধরতে অভিযান নামে র‌্যাব। ওই বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতাদের ভাষ্য অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী যুবলীগের কয়েকজন নেতাকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুবলীগের ঢাকা মহানগরের একজন নেতা যা ইচ্ছে করে বেড়াচ্ছে, চাঁদাবাজি করছে। আরেকজন এখন দিনের বেলায় প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে চলেন। সদলবলে অস্ত্র নিয়ে ঘোরেন। এসব বন্ধ করতে হবে। যারা অস্ত্রবাজি করেন, যারা ক্যাডার পোষেন, তারা সাবধান হয়ে যান, এসব বন্ধ করুন। তা না হলে, যেভাবে জঙ্গি দমন করা হয়েছে, একইভাবে তাদেরকেও দমন করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর এমন কঠোর বার্তার পরই অভিযানে নামলো র‌্যাব।

বুধবার সন্ধ্যায় র‍্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, আমার নেতৃত্বে ইয়ংমেনস ক্লাবের ক্যাসিনোতে অভিযান চলছে। জুয়া খেলা অবস্থায় অভিযানে এখনো পর্যন্ত নারী ও পুরুষ মিলে ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সারওয়ার আলম আরো বলেন, ক্যাসিনোর ভেতর থেকে প্রচুর টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এসব টাকা আমরা এখনো গণনা করতে পারিনি। অভিযান শেষে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

একইসঙ্গে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গুলশানের একটি বাসভবনে ঘেরাও করে র‌্যাব। সেখান থেকে অস্ত্রসহ তাকে আটক করা হয়। দুপুর থেকেই বাড়িটি ঘিরে রাখেন র‍্যাবের প্রায় শতাধিক সদস্য।

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় গুলশানের বাসা থেকে খালেদকে তারা গ্রেপ্তার করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত

Design & Developed BY ThemesBazar